• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • CONGRESS LEADER SIKHA MITRA SAID ABOUT ALLIANCE WITH TMC SB

Sikha Mitra: শেষমেশ তৃণমূলেরই হাত ধরবে কংগ্রেস? হাইকম্যান্ডের 'মন কি বাত' জানালেন শিখা!

নতুন সমীকরণ?

Sikha Mitra: বিধানচন্দ্র রায়ের জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিধান ভবনে গিয়েছিলেন শিখা মিত্র। সেখানেই তিনি বলেন, 'বিজেপিকে ঠেকাতে হলে সংঘবদ্ধ হওয়া ছাড়া উপায় নেই। ভারতবর্ষে বিজেপির মতো দল দেশ চালাতে পারেন না।'

  • Share this:

#কলকাতা: এবার কি তবে বাম-আইএসএফ জোট ছেড়ে তৃণমূলের সঙ্গে হাত মেলাবে কংগ্রেস। হাইকম্যান্ডের উদ্দেশে নিজের 'মন কি বাত' বলে দিলেন দলেরই নেত্রী। রাজ্যে আইএসএফ (ISF)-এর সঙ্গে জোট নিয়ে দ্বিমত আগেই উঠে এসেছিল কংগ্রেসের (congress) অন্দরে। দিন কয়েক আগে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী (Adhir Chowdhury) দাবি করেছিলেন, আইএসএফ-এর সঙ্গে জোট করেনি কংগ্রেস, জোট হয়েছিল বামেদের সঙ্গে। কিন্তু তারপরই ফুরফুরা শরিফে আব্বাস সিদ্দিকিদের সঙ্গে বৈঠক করে প্রবীণ কংগ্রেস নেতা আব্দুল মান্নান (Abdul Mannan) বলেন, কেউ ডিক্টেট করতে চাইলে তিনি তা মানবেন না। আইএসএফ এবং বামপন্থীদের সঙ্গে জোটটা হয়েছিল দিল্লির নির্দেশে। কিন্তু এদিন প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি প্রয়াত সোমেন মিত্রর স্ত্রী শিখা মিত্র সরাসরি সাম্প্রদায়িক বলে দেগে দিলেন আইএসএফ-কে।

বিধানচন্দ্র রায়ের জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিধান ভবনে গিয়েছিলেন শিখা মিত্র। সেখানেই তিনি বলেন, 'বিজেপিকে ঠেকাতে হলে সংঘবদ্ধ হওয়া ছাড়া উপায় নেই। ভারতবর্ষে বিজেপির মতো দল দেশ চালাতে পারেন না। ধর্মের মারামারিটাই তাদের লক্ষ্য। আমার মনে হয়, তৃণমূলের সঙ্গে জোট করে সবকিছু করলে ভালো। তৃণমূলকে জনগণই এনেছে। তাঁদের বিরুদ্ধে গেলে হবে না। একসঙ্গে চলতে হবে। হাইকম্যান্ডকেও আমি তাই বলব। হাইকম্যান্ডও তৃণমূলকেই সমর্থন করছে। কোনও সাম্প্রদায়িক দলকে সমর্থন দেওয়ার প্রশ্ন ওঠে না।'

শিখার সংযোজন, 'আমি তৃণমূলের হয়ে দুবার ভোটে দাঁড়িয়েছিলাম। নিজের থেকেই ছেড়ে চলে এসেছি। আমি দলবদলে বিশ্বাস করি না। কিন্তু সত্যকে অস্বীকার করা যাবে না। দলের কোনও কোনও নেতা ব্যক্তিগত মতামত দিতেই পারেন। কিন্তু হাইকম্যান্ডের তৃণমূল নিয়ে মনোভাব স্পষ্ট।' রাজনৈতিক মহলের মতে, এদিন শিখা যা বললেন, তা কি তাঁর ব্যক্তিগত মত? নাকি হাইকম্যান্ডের 'মন কি বাত' জানিয়ে দিতে তাঁকেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল? তা যদি হয়ে থাকে, তাহলে ২০২৪-এর লোকসভা ভোটের রূপরেখা এখন থেকেই স্পষ্ট হচ্ছে।

আব্বাস সিদ্দিকিদের সঙ্গে বৈঠক করে আব্দুল মান্নান বলেছিলেন, 'দিল্লি যদি বলে জোট নেই, মেনে নেব। ২০১১ সালে দিল্লি বলেছিল, তৃণমূলের সঙ্গে জোট হচ্ছে, আমি যেন না দাঁড়াই, আমি দাঁড়াইনি। সোনিয়া গান্ধির নির্দেশে আমি রাজ্যসভায় মনোনয়ন পেশ করেও তা প্রত্যাহার করে নিয়েছিলাম।' আবার অধীর শিবিরের দাবি আলাদা। এমন পরিস্থিতিতে এদিন শিখা মিত্রর মন্তব্য নতুন জল্পনা উসকে দিল।

Published by:Suman Biswas
First published: