Rahul Gandhi: কেরলে 'শত্রু', বাংলায় বন্ধু বামেদের হাত ধরতে অবশেষে আসছেন রাহুল!

Rahul Gandhi: কেরলে 'শত্রু', বাংলায় বন্ধু বামেদের হাত ধরতে অবশেষে আসছেন রাহুল!

রাহুল গান্ধি।

কেরলে গিয়ে কয়েকদিন আগেই বলেছিলেন, বাম-রামে জোট হয়েছে। কারণ, মোদি কখনওই বামহীন দেশের প্রসঙ্গই তোলেন না। মোদির লক্ষ্য শুধুই কংগ্রেসহীন ভারত। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে জোট বেঁধেছে বামফ্রন্ট-কংগ্রেস-আইএসএফ।

  • Share this:

    #কলকাতা: কেরলে গিয়ে কয়েকদিন আগেই বলেছিলেন, বাম-রামে জোট হয়েছে। কারণ, মোদি কখনওই বামহীন দেশের প্রসঙ্গই তোলেন না। মোদির লক্ষ্য শুধুই কংগ্রেসহীন ভারত। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে (West Bengal Assembly Election 2021) জোট বেঁধেছে বামফ্রন্ট-কংগ্রেস-আইএসএফ। প্রথম কয়েক দফা এমনকী ভোটের আগে নির্বাচনী প্রচার বা সংযুক্ত মোর্চার ব্রিগেডেও দেখা যায়নি কংগ্রেসের কোনও বড় নেতাকে। নাম-গন্ধ নেই গান্ধি পরিবারের কারও। তবে শেষ পর্যন্ত শেষ দু'দফার আগেই নাকি বাংলায় আসতে পারেন রাহুল গান্ধি (Rahul Gandhi)।

    অসমে একাধিক বার প্রিয়াঙ্কা গান্ধিকে (Priyanka Gandhi) প্রচার করতে দেখা গেলেও, তিনি বাংলায় আসেননি। তবে সূত্রের খবর, সপ্তম ও অষ্টম দফা ভোটের আগে বাংলায় আসতে পারেন রাহুল গান্ধি। তামিলনাড়ু, কেরলেও একাধিকবার রাহুল গান্ধিকে প্রচারে দেখা গিয়েছে। যদিও অফিশিয়ালি এখনও কিছুই জানায়নি কংগ্রেস। মুর্শিদাবাদ ও মালদহের মতোই কলকাতায় ভোট শেষ দুই দফাতেই। তাই কংগ্রেসের পক্ষ থেকে চেষ্টা হচ্ছে, যাতে কলকাতাতেই সংযুক্ত মোর্চার নেতাদের উপস্থিতিতেই রাহুল একটি জনসভায় হাজির হন।

    কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধি বাংলার ভোট প্রচারে যথা সময়ে আসবেন বলে বুধবার জানিয়েছিলেন দলের প্রদেশ সভাপতি অধীর চৌধুরী। বৃহস্পতিবারই কংগ্রেস সূত্রে জানা গেল, রাজ্যে শেষ দু'দফার ভোটে প্রচারে আসতে পারেন রাহুল গাঁধী। তবে দিন ক্ষণ এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলেই ওই সূত্র জানিয়েছে। কেন শেষ দফা? জানা গিয়েছে, এখনও রাজ্য কংগ্রেসের যেটুকু দাপট রয়েছে তা মালদহ ও মুর্শিদাবাদে। তাই সেই অঙ্ক কষেই ওই দুই জেলায় প্রচারে রাহুলকে পাঠানোর কমর্সূচি সাজিয়েছে এআইসিসি।

    পঞ্চম দফায় কংগ্রেসের তিন বিদায়ী বিধায়ক লড়ছেন। উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ির বিদায়ী কংগ্রেস বিধায়ক তথা প্রাক্তন আমলা সুখবিলাস বর্মা, মাটিগাড়া-নকশালবাড়িতে শঙ্কর মালাকার ও ফাঁসিদেওয়াতে সুনীল তিরকে লড়ছেন। এই বিধায়কদের জন্য রাহুল যাতে প্রচারে আসেন সে ব্যাপারেও বাংলায় আসার বিশেষ আবেদন করা হয়েছে এআইসিসিতে। কিন্তু এখনও সবুজ সঙ্কেত মেলেনি বলেই সূত্রের খবর। তবে উত্তরবঙ্গের নেতারা শেষ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলেই খবর।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    লেটেস্ট খবর