• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • 'আপনি মনে হয় ভুলে গেছেন, আমি নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী,' রাজ্যপালকে কড়া চিঠি মমতার

'আপনি মনে হয় ভুলে গেছেন, আমি নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী,' রাজ্যপালকে কড়া চিঠি মমতার

ভিডিও কনফারেন্সে ICMR’এর উন্নত প্রযুক্তিসম্পন্ন ল্যাবরেটরি উদ্বোধনে নাম না করে এই ভাষাতেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

ভিডিও কনফারেন্সে ICMR’এর উন্নত প্রযুক্তিসম্পন্ন ল্যাবরেটরি উদ্বোধনে নাম না করে এই ভাষাতেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

মমতা আরও লিখেছেন, 'মনে হয় আপনি ভুলে গেছেন, আমি নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী৷ আম্বেদকরের কথা উপেক্ষা করা উচিত নয়৷' সংবিধানে বর্ণিত ক্ষমতা ও পদমর্যাদার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে৷

  • Share this:

    #কলকাতা: কখনও রাজ্যের করোনার টেস্টিংয়ের হার নিয়ে, কখনও রেশন দুর্নীতি, প্রায় প্রতিদিন নিয়ম করে মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্য সরকারের তীব্র সমালোচনা করছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়৷ এমনকী রাজ্যে হটস্পট ও লকডাউন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আসা কেন্দ্রীয় দলকে রাজ্য সরকার সহযোগিতা করছে না অভিযোগ তুলেও সরব হয়েছেন রাজ্যপাল৷ এ বার সেই রাজ্যপালকে কড়া চিঠি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

    ৫ পাতার চিঠিতে মমতা লিখেছেন, 'মনে হয় আপনি ভুলে গিয়েছেন, আপনি মনোনীত রাজ্যপাল৷ যে রাজ্যের রাজ্যপাল, সেই রাজ্যকেই আক্রমণ করছেন৷ মুখ্যমন্ত্রীকেও সরাসরি আক্রমণ করছেন৷ মন্ত্রী ও আধিকারিকদের আক্রমণ করছেন৷ মন্ত্রিসভা ও প্রশাসনিক কাজে হস্তক্ষেপ করছেন৷ আপনার বলার ভঙ্গি অসাংবিধানিক৷ আপনার বক্তব্য আমায় হতবাক করেছে৷ বাধ্য হয়েই এই চিঠি প্রকাশ্যে এনেছি৷'

    মমতা আরও লিখেছেন, 'মনে হয় আপনি ভুলে গেছেন, আমি নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী৷ আম্বেদকরের কথা উপেক্ষা করা উচিত নয়৷' সংবিধানে বর্ণিত ক্ষমতা ও পদমর্যাদার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে৷

    যে দিন থেকে ধনখড় পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যপাল হয়ে এসেছেন তবে থেকে সংঘাত চলছে। একবার তো রাজ্যপালকে সরাসরি বিজেপির মুখপাত্র বলেও মন্তব্য করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। অতিমহামারীর পরিস্থিতিতেও তার কোনও পরিবর্তন হয়নি। বুধবারই সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্যপালের প্রসঙ্গ ওঠায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'ওঁর কথা নিয়ে আমি কিছু বলব না। উনি লম্বা লোক। আমরা ছোটখাটো। উনি ৮ ফুট। আমরা ৫ ফুট।'

    Published by:Arindam Gupta
    First published: