corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘ঘটনার পর অ্যাকশন নিয়েছি, ব্যবস্থা নেওয়ার পরেও কেন বিক্ষোভ’, জুনিয়র ডাক্তারদের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী

‘ঘটনার পর অ্যাকশন নিয়েছি, ব্যবস্থা নেওয়ার পরেও কেন বিক্ষোভ’, জুনিয়র ডাক্তারদের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী
  • Share this:

#কলকাতা: এনআরএস কাণ্ডের প্রতিবাদে রাজ্য জুড়ে চিকিৎসা পরিষেবা বিধস্ত ৷ ২৪ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে সরকারি হাসপাতালগুলিতে অচলাবস্থা চলার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপ ৷ ব্যবস্থা নেওয়ার পরেও বিক্ষোভ কেন? প্রশ্ন তুললেন ক্ষুব্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

কাজে যোগ না দিলে ‘এসমা’ জারির হুঁশিয়ারি ৷ আন্দোলনকারীদের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, '৪ ঘণ্টার মধ্যে কাজে যোগ দিতে হবে৷ পরিষেবা না শুরু করলে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷ কাজ না-করলে হস্টেলে থাকা যাবে না৷ সরকারি সাহায্য মিলবে না৷'

NRS কাণ্ড নিয়ে এদিন নিজের ক্ষোভ উগরে দেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ বলেন, ‘ঘটনার পর অ্যাকশন নিয়েছি ৷ ব্যবস্থা নেওয়ার পরেও বিক্ষোভ ৷ ডাক্তারদের বিরুদ্ধেও অভিযোগ উঠেছে ৷ দু’পক্ষই মারামারি করেছে ৷ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব ৷ একটি ঘটনা ঘটেছে ৷ খবর পেয়ে পুলিশ ব্যবস্থা নিয়েছে ৷ পরিবহর চিকিৎসার ব্যবস্থা হয়েছে ৷’

জুনিয়র ডাক্তারদের আন্দোলনে চিকিত্‍‌সা পরিষেবা শিকেয় উঠেছে রাজ্যে ৷ ২৪ ঘণ্টা পরিষেবা বন্ধ থাকায় রোগীদের হয়রানি দেখে প্রচন্ড রেগে যান মুখ্যমন্ত্রী ৷ বলেন, ‘মুমূর্ষু রোগীর চিকিৎসা হচ্ছে না ৷ ৪ দিন ধরে সহ্য করেছি ৷ হাসপাতাল কেউ অচল করতে পারে না ৷ চিকিৎসা হল জরুরি পরিষেবা ৷ ডাক্তাররা ধর্মঘট করতে পারেন না ৷’

জুনিয়র ডাক্তারদের ভূমিকার নিন্দায় মুখ্যমন্ত্রী, ‘হাসপাতাল রাজনীতির জায়গা নয় ৷ ৪ দিন ধরে রোগীরা পড়ে আছেন ৷ কয়েকজন নাটক করছেন ৷ তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে ৷’

এনআরএস হাসপাতালের ঘটনাতেও রাজনীতির গন্ধ পাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ তিনি বলেন,‘সিপিআইএম, বিজেপি মদত দিচ্ছে ৷ সিনিয়র চিকিৎসকদের কাজ করতে দিচ্ছে না ৷ বহিরাগতরা ঢুকে গন্ডগোল করছে ৷’

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ এসএসকেএম হাসপাতালে যান মুখ্যমন্ত্রী৷ রোগীর আত্মীয়স্বজন ও রোগীর সঙ্গে কথা বলেন ৷

First published: June 13, 2019, 2:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर