কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

৩৪ কোটি টাকা রেলের থেকে ফেরত চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী 

৩৪ কোটি টাকা রেলের থেকে ফেরত চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী 
File Photo

মুখ্যমন্ত্রী এদিন রেলকে উদ্দেশ্য করে জানিয়েছেন, রাজ্যের থেকে নেওয়া ৩৪ কোটি টাকা ফেরত দিক রেল।

  • Share this:

#কলকাতা: দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর আজ , সোমবার চালু হল নতুন মাঝেরহাট সেতু। বৃহস্পতিবার বিকেলে মাঝেরহাটের নতুন সেতুর উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উদ্বোধনী মঞ্চ থেকে তিনি ফের কেন্দ্রকে নিশানা করেন। সেখানে তিনি সেতুর কাজে বিলম্ব এবং সেজন্য সাধারণ মানুষের যে ভোগান্তি হয়েছে তার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের কলকাঠি নাড়ার ফলেই মাঝেরহাট সেতু তৈরিতে অহেতুক বিলম্ব হয়েছে বলে মুখ্যমন্ত্রী এদিন অভিযোগ করেছেন। একই সাথে মুখ্যমন্ত্রী এদিন রেলকে উদ্দেশ্য করে জানিয়েছেন, রাজ্যের থেকে নেওয়া ৩৪ কোটি টাকা ফেরত দিক রেল।

কলকাতা বন্দর সেতুর কাজের জন্যে প্রায় ৭৭ লাখ টাকা নিয়েছে বলেও দাবি করেছেন তিনি। ২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর মাসে ভেঙে পড়েছিল মাঝেরহাট সেতু৷ তার প্রায় ২ বছর ৩ মাস বাদে উদ্বোধন হল নব নির্মিত সেতুর৷ নতুন এই সেতু তৈরি করতে গিয়ে খরচ হয়েছে ৩১১ কোটি টাকা৷ মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, এই গোটা টাকাই রাজ্য দিয়েছে৷ মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, সেতুর অনুমতি দিতে রেল যে ৩৪ টাকা নিয়েছে, সেই টাকায় রাজ্যে অনেক স্কুল, কলেজ তৈরি করা হত ৷ তবে এর জন্য রেলের সাধারণ কর্মী, আধিকারিকদের দোষারোপ করছেন না বলে তিনি জানিয়েছেন। তার দাবির সে ক্ষেত্রে আরও ৯ মাস আগে মাঝেরহাট সেতু চালু করা সম্ভব হতো। তিনি আরও অভিযোগ করেন, টালা ব্রিজ ভাঙার জন্যও রেল ৫৫ লাখ টাকা নিচ্ছে।

নতুন এই মাঝেরহাট সেতু চার লেনের৷ ভার বহন ক্ষমতাও আগের তুলনায় অনেক বেশি৷  কয়েকদিন আগে মাঝেরহাট সেতুর উদ্বোধনের দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছিল বিজেপি৷ যার জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি৷ এ দিন সেকথা উল্লেখ করে তিনি ওই দলের তীব্র সমালোচনা করেন। তবে রেল রাজ্যের এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। রেলের বক্তব্য তারা ২৪ কোটি টাকা পেয়েছেন রাজ্য থেকে। সেতুর উদ্বোধনের পরে এদিন হেঁটে তা পরিদর্শন করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ শুক্রবার সকাল থেকেই ব্রিজ সাধারণ যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে৷ তবে সেতু দিয়ে এখনই ভারী ও অতিভারী যান চলাচল বন্ধ।

আবীর ঘোষাল

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: December 3, 2020, 7:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर