হীরালাল পাল কলেজের আক্রান্ত অধ্যাপককে ফোন মুখ্যমন্ত্রীর

হীরালাল পাল কলেজের আক্রান্ত অধ্যাপক সুব্রত চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফোন করে কথা বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 25, 2019 01:47 PM IST
হীরালাল পাল কলেজের আক্রান্ত অধ্যাপককে ফোন মুখ্যমন্ত্রীর
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 25, 2019 01:47 PM IST

#কলকাতা: ফের কলেজে আক্রান্ত অধ্যাপক ৷ হীরালাল পাল কলেজের আক্রান্ত অধ্যাপক সুব্রত চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে ফোন করে কথা বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ ঘটনার জন্য দুঃখপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ আক্রান্ত অধ্যাপককে নিরাপত্তার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি ৷

এদিন অধ্যাপক সুব্রত চট্টোপাধ্যায়কে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বলেন, ‘প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা করবে রাজ্য ৷ ইতিমধ্যেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে ৷ প্রয়োজন হলে আপনি ফোন করবেন ৷’

ছবিকে কেন্দ্র করে দু’দল ছাত্রছাত্রীর মধ্যে বচসা, হাতাহাতি। মধ্যস্থতা করায় আক্রান্ত বাংলার অধ্যাপক। টিএমসিপি সদস্যদের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ অধ্যাপকের। অভিযুক্তদের পালটা দাবি, বিজেপির সংগঠন বাড়ানোর জন্য ‘সিন ক্রিয়েট’ করছেন অধ্যাপক। ঘটনা ঘিরে উত্তেজনা কোন্নগরের নবগ্রাম হীরালাল পাল কলেজে।

অধ্যাপক পেটাল পড়ুয়ারা। ঘটনার জেরে উত্তেজনা ছড়ায় হুগলির কোন্নগরের নবগ্রাম হীরালাল পাল কলেজে। কাঠগড়ায় তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। যদিও পড়ুয়াদের একাংশের দাবি,  পরীক্ষার পর বেঞ্চে উঠে ছবি তুলছিলেন স্নাতকোত্তরের কয়েকজন ছাত্রী। তা নিয়ে আপত্তি জানান স্নাতকের পড়ুয়ারা। দু’দলের বচসা গড়ায় হাতাহাতিতে। ঝামেলা থামাতে এগিয়ে আসেন বাংলার অধ্যাপক।

অভিযোগ, এরপরই ওই অধ্যাপকের ওপর চড়াও হন ছাত্ররা। মারধরের অভিযোগ মানতে নারাজ টিএমসিপি। তাদের পাল্টা দাবি, কলেজে বিজেপির প্রভাব বাড়াতে চাইছেন ওই অধ্যাপক। সংবাদমাধ্যমের সামনে নাটক করছেন তিনি। ঘটনা ঘিরে বুধবার দিনভর উত্তপ্ত ছিল কলেজ চত্বর। অন্যদিকে, অধ্যাপক পেটানোর ঘটনায় সরব শিক্ষাবিদদের একাংশ।

First published: 01:47:28 PM Jul 25, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर