কন্যাশ্রী-স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প নিয়ে আলোচনা রাষ্ট্রসংঘে, ডাচ লগ্নি টানতে উদ্যোগী মুখ্যমন্ত্রী

কন্যাশ্রী-স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প নিয়ে আলোচনা রাষ্ট্রসংঘে, ডাচ লগ্নি টানতে উদ্যোগী মুখ্যমন্ত্রী

কন্যাশ্রী-স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প নিয়ে আলোচনা রাষ্ট্রসংঘে, ডাচ লগ্নি টানতে উদ্যোগী মুখ্যমন্ত্রী

  • Share this:

    #হেগ: কন্যাশ্রী কিংবা স্বাস্থ্যসাথীর ধাঁচে অন্য দেশেও চালু হোক প্রকল্প। চাইছে রাষ্ট্রসংঘ। পশ্চিমবঙ্গে কিভাবে এইসব প্রকল্পের কাজ চলছে? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ থেকেই তা শুনবেন বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা। বৃহস্পতিবার এই বক্তৃতার আগেই অবশ্য নেদারল্যান্ডস থেকে লগ্নি টানতে ঝাঁপাচ্ছে রাজ্য সরকার। বুধবার দ্য হেগে রাজ্যের বিনিয়োগ সম্মেলনে থাকবে ২০০-এর বেশি ডাচ সংস্থা।

    ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য দেশ থেকেও এবার লগ্নি আনতে সক্রিয় রাজ্য সরকার। বুধবার দ্য হেগে নেদারল্যান্ডসের তিনটি বণিকসভার সঙ্গে বৈঠক মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। চামড়া থেকে খাদ্যপণ্য - বড় শিল্পের পাশাপাশি ছোট ও মাঝারি উদ্যোগেও রাজ্যের সম্ভাবনা তুলে ধরবেন মুখ্যমন্ত্রী।

    নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগ শহরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাষ্ট্রসংঘের আমন্ত্রণেই এই সফর। তবে তারই ফাঁকে এই সফর থেকে বাংলায় লগ্নি টানতেও তৎপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    কন্যাশ্রী, যুবশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী, জল ধরো - জল ভরো-সবুজ সাথী। দুনিয়ার সবপ্রান্তের নীতি নির্ধারক ও কূটনীতিবিদদের সামনে রাজ্যের এই প্রকল্পগুলি ব্যাখ্যা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিভাবে এইসব প্রকল্পের মাধ্যমে সামাজিক ক্ষমতায়নের কাজ হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে? তা নিয়ে রাষ্ট্রসংঘের সমীক্ষায় ধরা পড়েছে চমকপ্রদ তথ্য। আর এই সূত্রেই রাষ্ট্রসংঘের জনপরিষেবার শাখার আমন্ত্রণ মুখ্যমন্ত্রীকে।

    কন্যাশ্রীর জেরে কমেছে কমেছে ছাত্রীদের স্কুল ছাড়ার প্রবণতা ৷ অন্য দেশে সরকারের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এধরণের প্রকল্প শুরু করতে চায় রাষ্ট্রসংঘ ৷ আফ্রিকার ৪ টি দেশকে প্রাথমিকভাবে বাছা হয়েছে ৷ সব মানুষকে স্বাস্থ্য বিমার সুবিধা দিতেও স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের মডেল খতিয়ে দেখছে রাষ্ট্রসংঘ ৷

    ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের অন্যতম ধনী দেশ নেদারল্যান্ডস। এখান থেকে লগ্নি টানতে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে রাজ্য সরকার। বুধবার দ্য হেগে বিনিয়োগ সম্মেলনে বিশ্ববাংলাকে থিম করেই প্রচার চালানো হবে ৷ লগ্নি টানতে চিহ্নিত করা হয়েছে চামড়াজাত পণ্য, অলঙ্কার, খাদ্য ও সব্জি প্রক্রিয়াকরণের মতো ক্ষেত্র ৷ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পেও প্রযুক্তি বিনিময় ও পণ্য রফতানির সুযোগ পেতে চায় রাজ্য ৷ লগ্নি সম্ভাবনা খতিয়ে দেখেই দুশোরও বেশি শিল্পসংস্থাকে আমন্ত্রণ ৷

    First published: