‘ফেসবুকের মাধ্যমে অশান্তি লাগানোর চেষ্টা চলছে’, অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

‘ফেসবুকের মাধ্যমে অশান্তি লাগানোর চেষ্টা চলছে’, অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

‘ফেসবুকের মাধ্যমে দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা চলছে’, অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

  • Share this:

#কলকাতা: উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে সোশাল সাইটকে। টাকা ছড়িয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। এসব বরদাস্ত করা হবে না। নবান্নে বললেন ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাদুড়িয়ায় ঘটনা নিয়ে তোপ মুখ্যমন্ত্রী। টাকা ছড়িয়ে, সোশ্যাল সাইটে উসকানি দিয়ে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এলাকায় শান্তি রক্ষার বার্তা দিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে, অশান্তির আগুন জ্বললে কাউকে ছাড়া হবে না বলেও যুযুধান দু’পক্ষকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। পুলিশকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নামানো হয়েছে আধাসেনাও।

সোশ্যাল সাইটে উসকানি দিয়ে হিংসা ছড়ানো। বিভেদকামী শক্তির এমন কৌশল নিয়ে অনেক আগেই সতর্ক করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঠারেঠোরে বিঁধেছিলেন বিজেপিকে। মঙ্গলবার, বাদুড়িয়ার গোষ্ঠী সংঘর্ষ নিয়ে নাম করেই বিজেপি বিঁধলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাদুড়িয়ায় আচমকা এমন হিংসার কারণ কী? ফেসবুকে একটি বিতর্কিত পোস্ট ঘিরেই শুরু হয় উত্তেজনা। তা শেষপর্যন্ত তীব্র অশান্তির আকার নেয়।

এলাকায় শান্তিশৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে যুযুধান দু’পক্ষকেই কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কিছু কিছু ধর্মীয় নেতা টাকা নিয়ে হিংসা বাধাচ্ছেন বলে সরাসরি অভিযোগ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  ‘গোরক্ষার নামে হামলা বিজেপি-র ৷ ফেসবুকের মাধ্যমে দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা চলছে ৷  দাঙ্গা নিয়ে রাজনীতি করবেন না ৷ টাকার বিনিময়ে হিংসা ছড়াচ্ছেন কিছু নেতা ৷’, অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৷

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কড়া পদক্ষেপ করছে রাজ্য সরকার।

- বাদুড়িয়ার নামানো হয়েছে ৪ কোম্পানি বিএসএফ

- এছাড়া, কলকাতা পুলিশ থেকে বাদুড়িয়ায় পাঠানো হচ্ছে বাড়তি বাহিনী

- দায়িত্বে আইপিএস বিনীত গোয়েল, ডি পি সিং ও সঞ্জয় সিং

বাদুড়িয়ার পরিস্থিতি নিয়ে দুই গোষ্ঠীর কাছেই শান্তির আবেদন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। অশান্তি জারি থাকলে রাজ্য যে আরও কড়া মনোভাব দেখাবে তাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন তিনি।

First published: 06:38:55 PM Jul 04, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर