Coal Scam: অপরাধীদের জাল গোটাচ্ছে CID, ম্যারাথন জেরা শেষে কয়লা-কাণ্ডে প্রথম গ্রেফতারি

Coal Scam: অপরাধীদের জাল গোটাচ্ছে CID, ম্যারাথন জেরা শেষে কয়লা-কাণ্ডে প্রথম গ্রেফতারি

কয়লাকাণ্ডে প্রথম সিআইডি হাতে গ্রেফতার এক। ধৃতের নাম রণধীর সিং। অন্ডাল এলাকা থেকে সিআইডি তাকে গ্রেফতার করে।

কয়লাকাণ্ডে প্রথম সিআইডি হাতে গ্রেফতার এক। ধৃতের নাম রণধীর সিং। অন্ডাল এলাকা থেকে সিআইডি তাকে গ্রেফতার করে।

  • Share this:

    #কলকাতা: কয়লাকাণ্ডে প্রথম সিআইডি হাতে গ্রেফতার এক। ধৃতের নাম রণধীর সিং। অন্ডাল এলাকা থেকে সিআইডি তাকে গ্রেফতার করে। রণধীর অন্ডালের বাসিন্দা। সিআইডি  সূত্রে খবর, রণধীর সিংয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ, জেসিবি বা বিভিন্ন মেশিন এনে অন্ডালের কয়লা খনি থেকে কয়লা তুলে হাত বদলের মাধ্যমে কয়লা পাচার করত। হাত বদলের ম্যাধমে কয়লা পাচারের একাধিক বিষয় সম্পর্কে অবগত রণধীর। সিআইডি সূত্রে খবর, এই  রাজ্যে কয়লা পাচারের ঘটনায় মোট ৩৩টি মামলা রুজু হয়। তার মধ্যে তিনটি মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে সিআইডি। সেগুলি  পাণ্ডবেশ্বর, অন্ডাল ও বরাবনি এলাকার।

    জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে ওই এলাকার প্রায় ৮-১০জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিআইডির দুঁদে গোয়েন্দারা। সেই জিজ্ঞাসাবাদের সময়  রণধীরের কথায় অসঙ্গতি মেলে। দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শুক্রবার রাতে রণধীরকে গ্রেফতার করা হয় অন্ডাল এলাকা থেকে। ধৃত রণধীরের বিরুদ্ধে কয়লা চুরি (379 আইপিসি, অবৈধভাবে খনন (30 কোল মাইনিং অ্যাক্ট) ধারায় মামলা রুজু হয়েছে।

    চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে কয়লাপাচার কাণ্ডে তদন্তভার হাতে নেয় সিআইডি। আদালতের নির্দেশ দেয় রেলের জায়গা ছাড়া অন্য জায়গাগুলিতে তল্লাশির জন্য রাজ্য পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে কাজ করতে হবে। ডিআইজি সিআইডি-র নেতৃত্বে সিআইডি সিট (SIT) গঠন করে। আসানসোলে ইসিএল অফিস-সহ একাধিক জায়গা সিআইডি টিম গিয়ে পরিদর্শন করে। কারণ বিভিন্ন সময় কয়লা চুরির  ঘটনার সময় স্থানীয়  থানাগুলিতে অভিযোগ দায়ের করা হয়। এ রাজ্যে মোট ৩৩টি FIR হয়েছে। সিআইডি এই তেত্রিশটি এফএআরের মধ্যে তিনটি মামলার তদন্তভার হাতে নেয়।

    সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে  সিআইডি কয়েকদিন ধরে ৮-১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এরা মূলত আসানসোলের বারাবনি, অন্ডাল ও পাণ্ডবেশ্বরের বাসিন্দা যারা কয়লা খনিতে কয়লা তোলা, মেশিন এনে কয়লা খনন করে বিভিন্ন হাত বদলের মাধ্যমে কয়লা পাচারের র‍্যাকেটে জড়িত সন্দেহে সিআইডি জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। সিআইডি সূত্রে খবর, কে বা কারা কয়লা তুলেছিল? অত্যাধুনিক মেশিন এনে কয়লা তুলে কোথায় পাঠানো হত? কাদের কাছে হাতবদল হত?  এ সব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে রণধীর সিংয়ের খোঁজ পায় সিআইডি। দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদে অসঙ্গতি মেলায় শেষ পর্যন্ত  শুক্রবার অন্ডাল থেকে সিআইডি গ্রেফতার করে রণধীর সিংকে।

    রণধীরকে সিআইডি হেফাজতে নিয়ে জেরা করে জানার চেষ্টা করবে কয়লা পাচার কাণ্ডে খনি থেকে কয়লা খনন ও কয়লা চুরির ঘটনায় আর কারা জড়িত। অন্যদিকে, সিবিআই  কয়লাকাণ্ডে অনুপ মাঝি  ওরফে লালা ও তার ঘনিষ্ঠ বেশ কিছু ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কয়লাকাণ্ডের শিকড়ে পৌঁছনোর চেষ্টা করছে। তবে কয়লাপাচার কাণ্ডে সিআইডির হাতে প্রথম গ্রেফতার হল রণধীর সিং। যাকে জেরা করে এই কয়লা পাচার যে মাকড়সা  জালের মতো বিস্তার করেছে তার মূলে পৌঁছনোর চেষ্টা করছে সিআইডি।

    ARPITA  HAZRA

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    লেটেস্ট খবর