নারদা কাণ্ডে তদন্তের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

নারদকাণ্ডে তদন্তের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ নবান্ন শুক্রবার বিশেষ বৈঠক শেষে নারদ স্টিং কাণ্ডের সত্যতা খতিয়ে দেখতে কলকাতা পুলিশের হাতে তদন্তভার তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী ৷

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 17, 2016 09:00 PM IST
নারদা কাণ্ডে তদন্তের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 17, 2016 09:00 PM IST

#কলকাতা: নারদকাণ্ডে তদন্তের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ নবান্ন শুক্রবার বিশেষ বৈঠক শেষে নারদ স্টিং কাণ্ডের সত্যতা খতিয়ে দেখতে কলকাতা পুলিশের হাতে তদন্তভার তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী ৷

রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের মুখে প্রকাশিত হওয়া নারদ ভিডিও ক্লিপ রাজনৈতিক মহলে বিতর্কের ঢেউ তোলে ৷ ভিডিও ক্লিপটিতে তৃণমূলের ১১ জন শীর্ষ নেতা- নেত্রীদের লক্ষ লক্ষ টাকা নিতে দেখা যায় ৷ এই ক্লিপ নিয়েই ভোটের আগে তৈরি হয় প্রবল বিতর্ক ৷ শাসক দলের বিরুদ্ধে একযোগে আক্রমণ শানান বিরোধীরা ৷

দক্ষিণের সংবাদ সংস্থা নারদ ডট কম দাবি করেন, এই ভিডিও একদম খাঁটি ৷ ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে এই স্টিং অপারেশনটি তারা করেছিলেন বলে দাবি করেন সংস্থার কর্ণধার ম্যাথু স্যামুয়েল ৷

ভোট চলাকালীনই মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী জানিয়েছিলেন, ঘটনার তদন্ত করে দেখা হবে আসল ঘটনা কী? ভিডিওতে দেখানো দৃশ্যগুলি কতটা সত্যি তাও দেখা হবে ৷ নারদা নিয়ে প্রশ্নের জবাবে হাওড়ার নির্বাচনী জনসভায় নেত্রী বলেছিলেন, ‘যদি কেউ টাকা নিয়ে থাকে তাহলে সে চোর, দল নয় ৷’ আসল ঘটনার তদন্ত করে দেখার প্রতিশ্রুতি তখনই দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

এদিন বিশেষ বৈঠকের পর নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নারদা নিয়ে তদন্ত হবে ৷ আমরা চাই সত্য সামনে আসুক ৷ জানতে চাই স্টিংকাণ্ডের পেছনে কারা আছেন ৷’ একই সঙ্গে তিনি জানান, ‘কেউ যদি সত্যি দোষী হন, তিনি অবশ্যই শাস্তি পাবেন ৷ স্টিংকাণ্ডের পেছনে কোনও চক্রান্ত আছে কিনা, কারা এই চক্রান্তের পেছনে আছে, আগে সেটা জানতে হবে ৷ এখনও বিশ্বাস করি পুরোটাই চক্রান্ত ছিল ৷ কোনও প্ররোচনা ছিল ৷ আমি চাই সত্যটা সামনে আসুক ৷ সব পরিষ্কার হোক ৷’

Loading...

TMC_STING00000003-630x372

ভিডিও প্রকাশের এতদিন পর হঠাৎ সরকারিভাবে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভোটপ্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছিল ৷ তাই তদন্তের কাজ শুরু করা যায়নি ৷ তবে কথা দিয়েছিলাম যে তদন্ত হবে ৷ তাই আজ তদন্তের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৷’

নারদ স্টিং কাণ্ডে সিবিআই তদন্ত দাবি করে ইতিমধ্যেই তিনটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয় হাইকোর্টে। তিনটি মামলারই একসঙ্গে শুনানি চলছে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে।

সেই মামলাতেই ১২ এপ্রিল অরিজিনাল ফুটেজ ও ক্যামেরা সংগ্রহে রাজ্য সরকার, সিবিআই ও হাইকোর্টের অফিসারকে নিয়ে কমিটি গঠন করে উচ্চ আদালত। কমিটির সদস্যদের নাম ঘোষণা করে হাইকোর্ট। কমিটিতে আছেন রাজ্য পুলিশ রিক্রুটমেন্ট সেলের আইজি অনিল কুমার, সিবিআই-এর দুর্নীতি দমন ব্যুরোর পুলিশ সুপার নগেন্দ্র প্রসাদ এবং হাইকোর্টের অরিজিনাল সাইড রেজিস্ট্রার জয়ন্ত কোলে ৷

গত মার্চ ১৪, নির্বাচনের প্রথম দফার বিজ্ঞপ্তি জারির দিন বিজেপি পার্টি অফিসে শাসক দল তৃণমূলের ১১ জন শীর্ষ নেতা- নেত্রীদের ঘুষ নেওয়ার বিস্ফোরক ক্লিপটি দেখানোর পর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক মহল ৷ ভিডিওটি দেখিয়ে বিজেপি নেতা সিদ্ধার্থনাথ সিংয়ের দাবি করেন, কংগ্রেসের ৫০ বছরের দুর্নীতির রেকর্ড পাঁচ বছরে ভেঙে দিয়েছে তৃণমূল ৷

অভিযোগ ওঠে, ভোটে জেতার জন্য শাসক দলের বিরুদ্ধে এসবই বিরোধীদের চক্রান্ত ৷ নির্বাচনে নারদাকে হাতিয়ার করে লড়ে বিজেপি, বাম-কংগ্রেস জোট ৷ তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি ৷ সরকারে ফিরতেই আসল ঘটনা জানতে তদন্তের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

ভিডিও ক্লিপের ফরেনসিক রিপোর্ট এসে গিয়েছে ৷ লোকসভায় নীতি কমিটির কাছেও পৌঁছেছে নারদকাণ্ড ৷ অভিযুক্ত সাংসদদের কাছে পৌঁছে গিয়েছে চিঠি ৷ তাই তদন্তের ফল যাই বেরোক তার আঁচ আর সরকার বা দলের গায়ে পড়বে না ৷

First published: 08:53:21 PM Jun 17, 2016
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर