গঙ্গারামপুরের মধ্যযুগীয় বর্বরতায় বিস্মিত প্রধান বিচারপতি, রিপোর্ট তলব

গঙ্গারামপুরের মধ্যযুগীয় বর্বরতায় বিস্মিত প্রধান বিচারপতি, রিপোর্ট তলব

শিক্ষিকাকে মারধর ও দড়ি দিয়ে বাঁধার ঘটনা স্থানীয়রা মোবাইল বন্দি করেন৷ রাস্তা থেকে টেনে হিঁচড়ে সরিয়ে দেওয়ার ছবি, ভিডিও ভাইরাল হয়

  • Share this:

#গঙ্গারামপুর: গঙ্গারামপুরের মধ্যযুগীয় বর্বরতার ঘটনা জেনে বিস্মিত প্রধান বিচারপতি। ঘটনার রিপোর্ট তলব করেছেন তিনি। দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরে শিক্ষিকাকে মারধর এবং দড়ি বেঁধে ছেঁচড়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগের বিষয়ে স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপ করল কলকাতা হাইকোর্ট। স্টেট লিগ্যাল সার্ভিস অথোরিটি-র চেয়ারম্যানের কাছ থেকে গঙ্গারামপুরের ঘটনার রিপোর্ট তলব করেছেন প্রধান বিচারপতি।

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা লিগ্যাল সার্ভিস অথোরিটির সঙ্গে যোগাযোগ করে যত দ্রুত সম্ভব রিপোর্ট দিতে নির্দেশ করেন প্রধান বিচারপতি। গঙ্গারামপুর নন্দনপুর-এর ঘটনায় প্রধান বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেন আইনজীবী রবিশঙ্কর চট্টোপাধ্যায়। স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করে পদক্ষেপ করুক কলকাতা হাইকোর্ট, এমনটাই আর্জি করেন রবিশঙ্কর। আইনজীবীর কাছে বিষয়টি জেনে ভরা এজলাসে বিস্ময় প্রকাশ করেন প্রধান বিচারপতি টি বি রাধাকৃষ্ণণ।

শুক্রবার সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ গঙ্গারামপুরের নন্দনপুরে  ঘটে এই ঘটনা৷ শিক্ষিকাকে মারধর ও দড়ি দিয়ে বাঁধার ঘটনা স্থানীয়রা মোবাইল বন্দি করেন৷ রাস্তা থেকে টেনে হিঁচড়ে সরিয়ে দেওয়ার ছবি, ভিডিও  ভাইরাল হয়৷ তারপরই ঘটনাকে ঘিরে তোলপাড় হয়ে ওঠে গঙ্গারামপুরের নন্দনপুর। কাঠগড়ায় তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েতের উপপ্রধান ও তাঁর  অনুগামীরা।অভিযুক্ত উপপ্রধানকে সাসপেন্ড করেছে তৃণমূল কংগ্রেস । প্রধানমন্ত্রী গ্রামসড়ক যোজনা প্রকল্পের আওতায় নন্দনপুরে  রাস্তা তৈরির প্রকল্পের কাজ চলছিল। ৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রাস্তা তৈরিতে জমির প্রয়োজন হয়ে পড়ে। নিগৃহীতার অভিযোগ, গ্রাম সড়ক যোজনা প্রকল্পের নামে  জোর করে তাদের জমি দখল করা হচ্ছে। তার প্রতিবাদ করতেই, স্থানীয় উপপ্রধানের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়।

ঘটনার পর থেকেই উধাও অভিযুক্ত তৃণমূলের উপপ্রধান। তবে শাসকদলের পক্ষ থেকে  দাবি করা হয়েছে যে, ঘটনায় দলের কেউ যুক্ত নয়। তবে অভিযুক্তকে সাসপেন্ড করেছে দল। তৃণমূলের উপপ্রধান-সহ চারজনের বিরুদ্ধে গঙ্গারামপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এই ঘটনার জেরে আপাতত বন্ধ রয়েছে রাস্তার কাজ।

ARNAB HAZRA

First published: February 3, 2020, 5:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर