মহানগরের রাস্তায় হেনস্থার শিকার প্রধান বিচারপতি নিশিথা মাত্রে

মহানগরের রাস্তায় হেনস্থার শিকার প্রধান বিচারপতি নিশিথা মাত্রে
প্রধান বিচারপতি নিশীথা মাত্রে

মহানগরের রাস্তায় হেনস্থার শিকার প্রধান বিচারপতি নিশিথা মাত্রে

  • Share this:

#কলকাতা: রাতের কলকাতায় হেলমেটহীন- লাইসেন্সহীন মদ্যপদের দৌরাত্ম্য। কলকাতার রাস্তায় হেনস্থার শিকার হলেন খোদ কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি নিশীথা মাত্রে ৷ মা উড়ালপুল দিয়ে আসার সময় তাঁর গাড়িতে ধাক্কা দেয় একটি বাইক ৷ শুধু তাই নয় আরোহীদের বিরুদ্ধে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে অশালীন আচরণেরও অভিযোগ ৷ দু জনকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ তাদের আলিপুর আদালতে তোলা হবে। ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে প্রধানবিচারপতির নিরাপত্তা নিয়ে।

বৃহস্পতিবার সন্ধেয় সোয়া আটটা নাগাদ মা উড়ালপুলের উপর বিচারপতি নিশীথা মাত্রের গাড়িতে ধাক্কা মারে একটি বাইক ৷ গাড়ির মধ্যে সে সময় উপস্থিত ছিলেন নিশীথা মাত্রে ৷ তাঁর কোনও আঘাত না লাগলেও গাড়ির সামান্য ক্ষতি হয়েছে ৷ ধাক্কায় বিচারপতি নিশিতা মাত্রের গাড়ির লুকিং গ্লাস ভেঙে যায়।

এরপরই প্রধানবিচারপতিকে টাটা করে পালিয়ে যায় দুই অভিযুক্ত। খবর পেয়ে মা উড়ালপুলের উপরেই দুই বাইক আরোহীকে ধরে ট্রাফিক সার্জেন্ট। দুই বাইক আরোহীর মাথায় ছিল না কোনও হেলমেট। বেনিয়াপুকুর থানার পুলিশ দুই বাইক আরোহী রবীন সিং ও সোনু রামকে আটক করে। বছর বাইশের রবীন সিংয়ের বাড়ি আনন্দপুর এলাকায়। রবীন স্থানীয় একটি গ্যাসের গোডাউনে কাজ করে। ২০ বছরের সোনু রাম পড়াশোনা করে।

ঘটনার সময় দু জনেই মদ্যপ ছিল। এমনকি দুজনের কারোর কাছেই বাইক চালানোর কোনও লাইসেন্স ছিল না। উদ্ধার হওয়া বাইকটিও তাদের নয়। অন্যের বাইক চালাচ্ছিল দু জন, ছিল না গাড়ির কোনও কাগজপত্রও। দুজনকেই গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ।

কোনও সরকারি অনুষ্ঠানে গেলে হাইকোর্টের প্রোটোকল বিভাগের দেওয়া গাড়ি ব্যবহার করেন বিচারপতি। কিন্তু অন্যসময় নিজের গাড়িতেই তিনি হাইকোর্টে যাতাযাত করেন। এদিনও নিজের কাজ সেরে সল্টলেকের বাড়ি ফিরছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি নিশিতা মাত্রে। ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে প্রধানবিচারপতির নিরাপত্তা নিয়ে। অভিযোগ উঠেছে মা উড়ালপুলের নিরাপত্তা নিয়েও

First published: 09:39:53 AM Sep 08, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर