Home /News /kolkata /
জোগান কম, কেজি প্রতি ৫০ টাকা বাড়ল মাংসের দাম ! আমফানের ঝাপটায় বেড়েছে মাছের দামও

জোগান কম, কেজি প্রতি ৫০ টাকা বাড়ল মাংসের দাম ! আমফানের ঝাপটায় বেড়েছে মাছের দামও

জানা গিয়েছে, কলকাতায় মুরগির মাংসের দাম ২৫০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছে৷ আর খাসির মাংসের দাম ৮০০ টাকা ছুঁয়েছে৷ Representational Image

জানা গিয়েছে, কলকাতায় মুরগির মাংসের দাম ২৫০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছে৷ আর খাসির মাংসের দাম ৮০০ টাকা ছুঁয়েছে৷ Representational Image

কলকাতার প্রায় সমস্ত বাজারে মুরগির মাংসের দাম কেজি প্রতি পঞ্চাশ থেকে ষাট টাকা বেড়েছে।

  • Share this:

    #কলকাতা: আমফানের তাণ্ডবে মাথায় হাত পোলট্রি ব্যবসায়ীদের। হাজার হাজার মুরগির প্রাণ গিয়েছে। ঝড়ের ঝাপটায় ভেসে গেছে পুকুরের মাছ। তার জেরেই বাজারে মাছ-মাংসের জোগানে ঘাটতি দেখা দিয়েছে। পাল্লা দিয়ে বেড়েছে দাম।

    আমফানের ঝাপটায় ভেঙে গেছে বহু পোলট্রি ফার্ম। ধ্বংস হয়ে গিয়েছে খামারও। হাঁস, মুরগি গবাদি পশুর মৃত্যু হয়েছে। এর প্রভাব পড়েছে বাজারে। কলকাতার প্রায় সমস্ত বাজারে মুরগির মাংসের দাম কেজি প্রতি পঞ্চাশ থেকে ষাট টাকা বেড়েছে।

    আমফানের আগে মানিকতলা বাজারে গোটা মুরগি বিক্রি হচ্ছিল কেজি প্রতি ১৩০ টাকায়। এখন বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায়। কাটা মুরগি বিক্রি হচ্ছিল ২০০ টাকায়। আমফানের পর বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ২৬০ টাকায়।

    আমফানের পর দমদমের নাগেরবাজারে গোটা মুরগি বিক্রি হচ্ছে কিলো প্রতি ১৭০ টাকায়। কাটা মুরগির মাংস বিক্রি হচ্ছে ২৫০ টাকায়।

    আমফানের তাণ্ডবে একাধিক পুকুরের মাছ ভেসে গেছে। আড়তে মাছ আসছে না। কলকাতার বাজারে মাছের জোগানও কমেছে। মাছের দাম পাল্লা দিয়ে বেড়েছে।

    আমফানের পর মানিকতলা বাজারে গোটা রুই বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ২০০ টাকায়। কাটা রুই বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ৩০০ টাকায়। গোটা কাতলা মাছ আগে বিক্রি হচ্ছিল দুশো থেকে আড়াইশো টাকায়। এখন বিক্রি হচ্ছে ২৮০ টাকায়। এখন কাটা কাতলা কিনতে হচ্ছে কেজি প্রতি ৪০০ টাকায়। বাগদা চিংড়ির দাম কেজি প্রতি ২০০ টাকা বেড়েছে। আমফানের পর এখন গলদা চিংড়ি বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকায় ৷ লকডাউন আর আমফানের জোড়া ধাক্কায় নাভিশ্বাস উঠছে আমজনতার।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published:

    Tags: Fish and Meat Price, Kolkata

    পরবর্তী খবর