তারকা থেকে হেভিওয়েট আসনের বদল, তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় থাকছে একাধিক চমক

তারকা থেকে হেভিওয়েট আসনের বদল, তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় থাকছে একাধিক চমক

সূত্রের খবর তালিকায় রয়েছে একাধিক তারকার নাম। টিকিট পেতে চলেছেন কলকাতা পুরসভার বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর।

সূত্রের খবর তালিকায় রয়েছে একাধিক তারকার নাম। টিকিট পেতে চলেছেন কলকাতা পুরসভার বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর।

  • Share this:

#কলকাতা: আজ দুপুরেই প্রকাশ করা হচ্ছে  তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা। শুভ সময় দেখেই প্রকাশ পেতে চলেছে ২০২১ বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা। সূত্রের খবর তালিকায় রয়েছে একাধিক তারকার নাম। টিকিট পেতে চলেছেন কলকাতা পুরসভার বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর। আসন বদল হতে পারে বেশ কিছু হেভিওয়েটের। তবে এবারের তালিকা প্রকাশে ব্যতিক্রম হতে চলেছে। কারণ অন্যান্য বার ভোটের প্রার্থী তালিকা মমতা বন্দোপাধ্যায় ঘোষণা করেন ভোটের দিন ঘোষণার দিনেই। এবার তা প্রকাশ পেল এক সপ্তাহ পরে।

তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হচ্ছে আজ। আর এই প্রার্থী  তালিকায় চমক থাকতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। সেই চমকে একটা বড় অংশ থাকতে পারে টলিউড স্টারেদের উপস্থিতি। সূত্রের খবর, যে কয়েকজন টলিউড স্টার দলে যোগ দিয়েছেন তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন হতে পারেন বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী। সম্ভাব্য তালিকা নিয়ে চলছে জল্পনা। বিধানসভা ভোটে প্রার্থী হতে পারেন সায়নী ঘোষ। গত ২৪ তারিখ সায়নী হুগলির ডানলপের তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সভায় যোগ দিয়েছেন তিনি। এই সায়নী ঘোষ জোড়াফুল শিবিরে যোগ দেওয়ায় তাকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আক্রমণ করা হয় সায়নীকে। এর আগে অভিযোগ উঠেছিল বিজেপি তার বিরুদ্ধে অসম্মানজনক কথা বলেছে। যার প্রতিবাদ করেন খোদ মমতা বন্দোপাধ্যায়। সায়নী নিজেও দলে যোগ দিয়ে বলেছেন, মহিলাদের আত্মসম্মান রক্ষা করতে হলে তৃণমূলের বিকল্প নেই৷  কম বয়স, পরিচিত মুখ, সুবক্তা সায়নী এবার জোড়াফুলের প্রতীকে লড়তে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।জল্পনা চলছে আর এক অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীকে নিয়ে। সোহমের অবশ্য ভোটে লড়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ২০১৬ সালে বাঁকুড়ার বড়জোড়া বিধানসভায় তাকে প্রার্থী করেছিল দল। অল্প ভোটের ব্যবধানে হেরে যায় সোহম। যদিও সোহম একেবারে ঘরের ছেলে তৃণমূলের। সাংগঠনিক পদেও তাকে রাখা হয়েছে। সে একাধিক সভা, মিছিলে যোগ দেয়। এখন থেকেই বিভিন্ন জায়গায় প্রচারে ব্যস্ত সে। পরিচিত মুখ, রাজনীতি করছে, ভোটে লড়ার অভিজ্ঞতা থেকে টিকিট মিলতে পারে সোহমের৷ জল্পনা রয়েছে অভিনেত্রী 'বাহা' ওরফে রণিতা দাসকে নিয়ে।  দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলের বিভিন্ন সভা-মিছিলে দেখা যায় তাকে। গত ২৪ তারিখ সে দলে যোগ দিয়েছে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের হাত ধরে। পরিচিত এই মুখের জুটতে পারে প্রার্থীপদ।

জল্পনা রয়েছে পরিচালক সুদেষ্ণা রায়, পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক'কে নিয়ে। সূত্রের খবর রাজ ও কাঞ্চন এই দুজনের প্রার্থী হওয়া একেবারে নিশ্চিত।এর আগেও তৃণমূলে একাধিক টলিউড স্টার ভোটে প্রার্থী হয়েছেন। সাংসদ হয়েছেন তাপস পাল, শতাব্দী রায়, সন্ধ্যা রায়, মুনমুন সেন, দেব, মিমি, নুসরাত। এমনকি রাজ্য সভায় পাঠানো হয়েছিল মিঠুন চক্রবর্তীকে। মন্ত্রীসভায় ব্রাত্য বসুর মতো নাট্যকার-অভিনেতা-পরিচালক আছেন। টিকিট পেতে পারেন গায়িকা অদিতি মুন্সি। ফলে বরাবর মমতা বন্দোপাধ্যায় গুরুত্ব দেন সমাজের এই পেশার সাথে যুক্ত মানুষদের। এবারও তাই টলিউড থেকে কারা কারা ভোটে লড়ার টিকিট পাচ্ছেন তা নিয়ে আগ্রহ রয়েছে সকলের।

টিকিট পেতে পারেন ক্রীড়া ক্ষেত্রের অনেকেই। নাম রয়েছে প্রাক্তন ফুটবলার বিদেশ বোস, মানস ভট্টাচার্য, গৌতম সরকার, প্রশান্ত বন্দোপাধ্যায় ও সৌমিক দে'র। নাম রয়েছে ক্রিকেটার মনোজ তেওয়ারির। তবে কে কে টিকিট পাচ্ছেন তা নিয়ে নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।সূত্রের খবর অতীন ঘোষ, দেবাশিষ কুমার টিকিট পেতে চলেছেন। দু'জনেই কলকাতা থেকে টিকিট পেতে পারেন। অন্যদিকে মালা সাহা, পরেশ পাল, সোনালি গুহ টিকিট পাবার সম্ভাবনা কম। জেলার একাধিক বিধায়কের আসন বদল হতে পারে। আজ ঘোষণা হতে চলেছে প্রার্থী তালিকা। আগামী ৯ তারিখ ইস্তেহার প্রকাশ করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: