• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • SSC নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আমূল পরিবর্তন

SSC নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আমূল পরিবর্তন

সাধারণ চাকরিপ্রার্থীদের জন্য বয়সের উর্ধ্বসীমা ৪২ বছর ৷ ওবিসি ও তপশিলী জাতি ও তপশীলি উপজাতিরা ৪৫ বছর পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন ৷

সাধারণ চাকরিপ্রার্থীদের জন্য বয়সের উর্ধ্বসীমা ৪২ বছর ৷ ওবিসি ও তপশিলী জাতি ও তপশীলি উপজাতিরা ৪৫ বছর পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন ৷

এসএসসির নিয়োগ প্রক্রিয়ায় এবার আমূল বদল আসছে। তিনটি পৃথক নিয়োগ প্রক্রিয়ার পাশাপাশি, শিক্ষাগত যোগ্যতার ক্ষেত্রেও বদল আনা হচ্ছে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: এসএসসির নিয়োগ প্রক্রিয়ায় এবার আমূল বদল আসছে। তিনটি পৃথক নিয়োগ প্রক্রিয়ার পাশাপাশি, শিক্ষাগত যোগ্যতার ক্ষেত্রেও বদল আনা হচ্ছে। মূলত NCTE আইনি বদলের জেরেই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় এই আমূল পরিবর্তন। খুব শৃীঘ্রই নয়া বিধি প্রকাশ করবে স্কুল শিক্ষা দফতর। প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত প্রার্থীদেরই নিয়োগ করা হবে।

    গত সোমবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর শিক্ষা নিয়ে রিভিউ বৈঠকে SSC নিয়োগ প্রক্রিয়ায় আরও জোর দেওয়ার কথা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই মত মঙ্গলবারই SSC ও প্রাথমিকের চেয়ারম্যানের সঙ্গে এক প্রস্থ বৈঠকও করেন শীক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। NCTE আইন বদল করার জেরে নিয়োগের আইনে বদল আনতে হচ্ছে স্কুল শিক্ষা দফতরকেও।

    কী বদল ?

    ১.পঞ্চম থেকে অষ্টম, নবম ও দশম ও একাদশ ও দ্বাদশ তিনটি পৃথক নিয়োগ প্রক্রিয়া হবে SSCতে ৷ ২.পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির নিয়োগ প্রক্রিয়াতে টেট বাধ্যতামূলক ৷ ৩.তবে নবম দশম ও একাদশ ও দ্বাদশ এই দুটি নিয়োগ প্রক্রিয়ায় টেটের কোনও গুরুত্ব থাকছে না ৷ ৪.একাদশ ও দ্বাদশ এই নিয়োগ প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে স্নাতকোত্তরে ৫০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে ৷ ৫.নবম ও দশম ও পঞ্চম অষ্টম এই দুইয়ের ক্ষেত্রে অনার্সে গ্র্যাজুয়েটদের ৬.পাশাপাশি আবেদন করতে পারবেন পাস গ্র্যাজুয়েটরাও ৷ ৭.তিনটি নিয়োগ প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রেই প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরাই সুযোগ পাবেন ৷

    নয়া এই নিয়োগ বিধি প্রস্তুত করছে স্কুল শিক্ষা দফতর। ইতিমধ্যেই স্কুল শিক্ষা দফতরের নয়া সচিব নয়া বিধি প্রস্তুত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আধিকারিকদের।

    স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর। যদিও, ইতিমধ্যেই স্কুল সার্ভিস কমিশনের তরফে যে টেট নেওয়া হয়, আইনি জটিলতার কারণে সেই নিয়োগ প্রক্রিয়া এখনও আটকে। ফলে ফল প্রকাশ হয়নি টেটেরও।

    আইনি জটিলতা কাটিয়ে সেই নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করতে অনেকটাই সময় লাগবে বলে মনে করছেন স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকরা। তাই নয়া বিধি প্রস্তুত করে কী করে তাড়াতাড়ি নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা যায় সেই বিষয়েই তোরজোর শুর করছে স্কুল শিক্ষা দফতর বলেই খবর।

    First published: