Alapan Bandopadhyay: মুখ্যসচিব আলাপনকে হঠাৎ দিল্লিতে তলব, ৩১ মে কাজে যোগ দেওয়ার জরুরি নির্দেশ

তিনদিনের মধ্যে রাজ্যের মুখ্যসচিব (Chief Secretary) আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapon Bandopadhyay) দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় কর্মীবৃন্দ ও প্রশিক্ষণ মন্ত্রকের নতুন পদে যোগ দিতে বলা হয়েছে।

তিনদিনের মধ্যে রাজ্যের মুখ্যসচিব (Chief Secretary) আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapon Bandopadhyay) দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় কর্মীবৃন্দ ও প্রশিক্ষণ মন্ত্রকের নতুন পদে যোগ দিতে বলা হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতাঃ রাজ্যের মুখ্যসচিব (Chief Secretary) আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapan Bandopadhyay) দিল্লিতে ডেকে পাঠাল কেন্দ্র। মুখ্যসচিবকে ছেড়ে দিতে রাজ্যকে চিঠি পাঠাল কেন্দ্র সরকার। করোনা-ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের জোড়া বিপর্য়য়ে সঙ্গে যখন লড়ছে রাজ্য, তখনই রাজ্যের মুখ্যসচিবকে দিল্লিতে ডেকে নিল কেন্দ্র। আগামী তিনদিনের মধ্যে তাঁকে দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় কর্মিবর্গ ও প্রশিক্ষণ মন্ত্রকের নতুন পদে যোগ দিতে বলা হয়েছে।

মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদনে সাড়া দিয়ে সম্প্রতি রাজ্যের মুখ্যসচিব পদে আলাপনের মেয়াদ বাড়িয়েছিল কেন্দ্র। মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই মমতা ঘনিষ্ঠ আমলা আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাজ্য থেকে সরিয়ে দিল্লিতে তুলে নিয়ে যাওয়ায় বিস্মিত আমলা মহল। তাও এখনও এমন একটা সময় যেখানে কোভিড ও ঘূর্ণিঝড় উত্তর পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের একাধিক কমিটি ও টাস্ক ফোর্সের মাথায় রয়েছেন মুখ্যসচিব।

১৯৮৭ সালের ব্যাচের আইএএস (IAS) আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, মুখ্যমন্ত্রীর অন্যতম ‘আস্থাভাজন’ আমলা। দীর্ঘ প্রশাসনিক জীবনে একাধিকবার বিভিন্ন সমস্যা থেকে সরকারকে বের করে এনেছেন তিনি। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব হিসেবে গত বছর অক্টোবর মাসের ১ তারিখে দায়িত্ব নিয়েছিলেন। তার আগে স্বরাষ্ট্র দফতরের সচিব ছিলেন। মে মাসে আলাপনের ৬০ বছর বয়স হয়েছে। তাই চলতি মাসেই চাকরি থেকে অবসর নেওয়া কথা ছিল তাঁর। তবে তাঁর মেয়াদ বাড়ানোর জন্য ১৩ মে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চিঠিতে আবেদন জানান, কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলায় আলাপনের মতো দক্ষ আমলা প্রয়োজন রাজ্যের। মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দিয়ে এরপর আলাপনের মেয়াদ বৃদ্ধিতে অনুমোদন দেয় কেন্দ্র। আপাতত ৩ মাসের জন্য তাঁর মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে।

সোমবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে এ কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই। চলতি মাসেই চাকরি থেকে অবসর নেওয়া কথা ছিল তাঁর। দক্ষ প্রশাসক আলাপনের মেয়াদ বৃদ্ধিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন মমতা। ওইদিন সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বলেন, আমাদের মুখ্যসচিবের মেয়াদ ৩ মাস বাড়ানো হয়েছে। আমফান এবং কোভিডের সময় কাজ করেছেন তিনি। তাঁর অভিজ্ঞতা রয়েছে। সুতরাং, মুখ্যসচিবের মেয়াদ বৃদ্ধিতে আমরা খুশি। চাকরি জীবনের শুরুতে মহকুমাশাসক, আন্ডার সেক্রেটারি এবং একাধিক জেলার জেলাশাসক হিসেবে কাজ করেছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতা পুরসভার কমিশনার ছাড়াও পুর, পরিবহণ, শিল্প, এমএসএমই-র মতো দফতরে কাজ করার অভিজ্ঞতাও রয়েছে তাঁর। স্বরাষ্ট্রসচিবের দায়িত্বের পাশাপাশি তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরেরও দায়িত্বভার সামলেছেন আলাপন।

Abir Ghosal

Published by:Shubhagata Dey
First published: