Narada Case Update: ৪ জুন পর্যন্ত অন্তর্বর্তী জামিন সুব্রত- ফিরহাদদের, তদন্তে সহযোগিতার নির্দেশ

জামিন পেলেন চার নেতা৷

নারদা কাণ্ডে (Narada Scam) এ দিন সকালেই ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে সিবিআই৷

  • Share this:

#কলকাতা: আগামী ৪ জুন পর্যন্ত নারদ কাণ্ডে ধৃত চার নেতা মন্ত্রীর অন্তবর্তী জামিন মঞ্জুর করল বিশেষ সিবিআই আদালত৷ একই সঙ্গে জামিনের জন্য আদালত কয়েকটি শর্ত দিয়েছে৷ মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের আইনজীবী মণিশঙ্কর চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ১৫ দিন অন্তর তদন্তকারী অফিসারের সঙ্গে দেখা করতে হবে চার নেতাকেই৷ পাশাপাশি তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে বলেও নির্দেশে উল্লেখ করেছে আদালত৷ চার নেতাকেই ব্যক্তিগত ৫০ হাজার টাকার বন্ডে জামিন মঞ্জুর করেছে আদালত৷

এ দিন তৃণমূলের তিন নেতা ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং মদন মিত্রের হয়ে আদালতে মূল সওয়াল করেন তৃণমূলের সাংসদ- আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ব্যক্তিগত ভাবে প্রত্যেক নেতার জন্যই আলাদা আলাদা আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন৷ শোভন চট্টোপাধ্যায়ের হয়ে সওয়াল করেন আইনজীবী সুদীপ্ত মৈত্র৷ কল্যাণকে সহযোগিতার জন্য আইনজীবী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অনিন্দ্য রাউত, বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায়, অশোক দেবের মতো তৃণমূল নেতারা৷

নারদা কাণ্ডে এ দিন সকালেই ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে সিবিআই৷ করোনা অতিমারির কথা মাথায় রেখে এ দিন ভার্চুয়ালি আদালতে পেশ করা হয় ধৃত নেতা, মন্ত্রীদের৷ নারদ মামলায় প্রথম চার্জশিটও এ দিন আদালতে জমা দিয়েছে সিবিআই৷ সেখানে মোট ১৩ জন অভিযুক্তের মধ্যে ৫ জনের নাম রয়েছে৷ এ দিন যে চার জনকে গ্রেফতার করা হয়, তাঁরা ছাড়াও চার্জশিটে নাম রয়েছে আইপিএস অফিসার এসএমএইচ মির্জার৷

দলের নেতাদের গ্রেফতারির পরেই সিবিআই দফতরে হাজির হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ প্রায় ৬ ঘণ্টা সেখানে ছিলেন তিনি৷ শুনানি শেষ হওয়ার পর সিবিআই দফতর ছেড়ে বেরোন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ফলে দিনের শেষে দলের নেতারা জামিন পাওয়ায় স্বস্তি তৃণমূল শিবিরে৷ তবে এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাচ্ছে সিবিআই৷

Arnab Hazra
Published by:Debamoy Ghosh
First published: