• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • CBI AT ABHISHEK BANERJEE S PLACE TO SERVE NOTICE IN COAL SMUGGLING CASE AKD

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে সিবিআই! নোটিস অভিষেকের স্ত্রী ও শ্যালিকাকে, চাঞ্চল্য...

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে সিবিআই।

তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা সৌগত রায় জানাচ্ছেন, সিবিআই গেলেও নোটিস দেওয়া যায়নি অভিষেকের পরিবারকে। কারণ সে সময়ে কেউই বাড়িতে ছিলেন না।

  • Share this:

    #কলকাতা: এবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে হানা দিল সিবিআই। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শ্যালিকাকে নোটিস দিতেই এদিন তাঁদের বাড়িতে যায় সিবিআই। সূত্রের খবর, সিবিআই এই নোটিসে জানিয়েছে কয়লাকাণ্ডের প্রেক্ষিতে তাঁঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায় সংস্থা। সূত্রের খবর, নিজাম প্যালেস থেকে আসা সিবিআই-এর পাঁচ প্রতিনিধিদের দল রুজিরা বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে আজই জিজ্ঞাসাবাদও করতে চেয়েছিল। কিন্তু রুজিরারা বাড়িতে ছিলেন না। সেক্ষেত্রে আজ রুজিরার সঙ্গে সিবিআই-এর কথাবার্তার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

    জানা যাচ্ছে, তাঁদের সুবিধে মতো দিনেই অভিষেকের স্ত্রী শ্যালিকার সঙ্গে কথা বলতে চায় সিবিআই, সেক্ষেত্রে দেখা হতে পারে আজও। রেকর্ড করা হতে পারে বয়ানও। এখনও পর্যন্ত যেটুকু তথ্য পাওযা যাচ্ছে সেই অনুযায়ী, আজ দুপুরে অভিষেকের স্ত্রী ফোনে রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথাও হয় সিবিআই-এর প্রতিনিধি দলের। সূত্রের খবর, অনুপ মাঝির অ্যাকাউন্টে লেনদেনের বিষয়ে সিবিআই কথা বলতে চায় অভিষেক পত্নী রুজিরার সঙ্গে।

    এ দিন দুপুর দুটো পাঁচ মিনিট নাগাদ অভিষেকের বাড়িতে হঠাৎই পৌঁছে যায় সিবিআইয়ের ওই প্রতিনিধিদল। দলে জনা পাঁচেক সিবিআই অফিসার ছিলেন বলে জানা যাচ্ছে। সূত্রের মারফত খবর, ঘটনার সময়ে অভিষেকও বাড়িতে ছিলেন না। ছিলেন না রুজিরা দেবীও, সেই কারণেই ফোনে কথা।‌পরে দেখা যায়, অভিষেকের বাড়ির গোটা এলাকায় বিরাট পুলিশ বাহিনী ঘিরে রেখেছে। বাইরের কাউকেই ঢুকতে দেওয়া হচ্ছিল না অভিষেকের বাড়িতে সেই সময়ে।

    তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা সৌগত রায়ের বক্তব্য, "সিবিআই গেলেও নোটিস দেওয়া যায়নি অভিষেকের পরিবারকে। কারণ সে সময়ে কেউই বাড়িতে ছিলেন না। সেক্ষেত্রে সিবিআই-এর প্রতিনিধিদল আবারও আসতে পারেন।"

    বাংলায় নির্বাচনের দামামা বেজে গিয়েছে। নির্বাচনী প্রচারসভায় কয়লাকাণ্ড, গরুপাচার ইত্যাদি নানা বিষয়ে অভিষেককে আক্রমণ করছিলেন বিজেপি নেতারা, বিশেষত শুভেন্দু অধিকারী বারবার এই ধরনের অভিযোগ তুলছিলেন। তার মধ্যেই অভিষেকের পরিবারে এভাবে সিবিআই হানা ভোটের মুখে  তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

    তৃণমূল প্রশ্ন তুলছে সিবিআই-এর নিরপেক্ষতা নিয়ে। তৃণমূল নেতা কুনাল ঘোষ বলেন, "অভিষেক বিজেপির পথের কাঁটা। এই কারণেই এই ঘটনা ঘটছে। কুনাল ঘোষের প্রশ্ন সারদা কাণ্ডে কেন মুকুল রায়কে গ্রেফতার হচ্ছেন না। ভোটের আগে কুৎসামূলক রাজনীতি চলছে। অপরাধীরা ওদের কোলে দোল খাচ্ছে।"

    বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অবশ্য বলছেন, "কয়লাকাণ্ডে জড়িত বিনয় মিশ্র অভিষেকের পরিবারের ঘনিষ্ঠ ছিল। গোরুপাচার কয়লাপাচারে বহু লোক যুক্ত আছে। সিবিআই তদন্তে লোক খুশি। এই দুর্নীতি বন্ধ হওয়া উচিত।" রাজীব কুমারের ঘটনাও তুলে আনেন দিলীপ ঘোষ।

    Published by:Arka Deb
    First published: