কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মোদিকে হারাতে যেকোনও ত্যাগে প্রস্তুত: মমতা

মোদিকে হারাতে যেকোনও ত্যাগে প্রস্তুত: মমতা
  • Share this:

#কলকাতা: ২৩ শে মে লোকসভার রেজাল্ট আউট। পরিবর্তিত রাজনৈতিক পরিস্থিতি কী সরকার গঠনে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে তৃণমূল কংগ্রেসের ভূমিকা? নিউজ18 বাংলায় এডিটর বিশ্ব মজুমদারকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, বিজেপিকে হারাতে যে কোনও আত্মত্যাগে তৈরি তৃণমূল কংগ্রেস।

উনিশের ভোট। ২৩ রেজাল্ট আউট। রাজনৈতিক সমীকরণ স্পষ্ট হতে এখনও বেশ কয়েকদিন বাকি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক লক্ষ্য অবশ্য ইতিমধ্যেই স্পষ্ট। নিউজ18 বাংলায় এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে বার্তা তৃণমূলনেত্রীর। বলেন, মূল এবং সম্মিলিত লক্ষ্য প্রথমে মোদিকে সরানো ৷

বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে? সুযোগ পেলে হবেন প্রধানমন্ত্রী? নিউজ18 বাংলায় এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্তর, ২৩ মে ফলপ্রকাশের পর সম্মিলিত ভাবে স্থির হবে প্রধানমন্ত্রীর নাম। মোদি সরকারকে উৎখাতে তৃণমূল কংগ্রেস যে কোনও আত্মত্যাগে তৈরি বলেও জানিয়েছেন মমতা।

নির্বাচনে কী হবে দিল্লির সমীকরণ? নিউজ18 বাংলায় এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে প্রত্যয়ী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কমন মিনিমাম প্রোগ্রামে স্থির হবে জোটের নীতি। আঞ্চলিক দলগুলির মিলিত শক্তি জোরাল ফ্যাক্টর হবে বলেই মত তৃণমূল নেত্রীর।

চলতি লোকসভা ভোটেই মোদি জমানার অবসান। রাজনীতির দেওয়াল লিখন বুঝেই রণকৌশল তৈরি করছে মোদি বিরোধীরা দলগুলো। কংগ্রেস ও বিজেপির বাইরে তৃতীয় বিকল্পের উত্থানের সম্ভাবনা দেখছেন তৃণমূলনেত্রী। তিনি বলেন, ‘লোকসভায় বিজেপি খুব বেশি হলে ১৫০, কংগ্রেস ১২৫, দরকার তো ২৭৩, বাকি দলগুলো অনেক বেশি পাবে ৷’

অন্যদিকে, সব ভোটারকে ভিভিপ্যাট দেখে নেওয়ার আর্জি জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইভিএমে কারচুপির আশঙ্কায় ভিভিপ্যাট দেখার আর্জি জানালেন তিনি। নিউজ এইটিন বাংলাকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে তৃণমূল নেত্রী বলেন, ভোটে জিততে ভোটিং মেশিনে কারচুপিও করতে পারে বিজেপি।

নোটবাতিলের পর প্রথম মোদি বিরোধিতায় দেশজুড়ে আন্দোলনে নামা। পরবর্তীতে সেই পথে হেঁটেছেন চন্দ্রবাবু নাইডু, কে চন্দ্রশেখর রাও, মায়াবতী, অখিলেশ যাদবরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে আবর্তিত হচ্ছে যাবতীয় আলোচনা। আর গোটা রাজ্য যে সম্ভাবনার দিকে তাকিয়ে, সেই সম্ভাবনা বাস্তব হলে তৈরি হবে ঐতিহাসিক মুহূর্ত।

First published: May 12, 2019, 1:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर