corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজ্যপালকে চিঠি উচ্চশিক্ষা দফতরের, ডিলিটের সিদ্ধান্ত নিয়ে ব্যাখ্যা

রাজ্যপালকে চিঠি উচ্চশিক্ষা দফতরের, ডিলিটের সিদ্ধান্ত নিয়ে ব্যাখ্যা
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়

চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে, নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডিলিট দেওয়া সম্মানের।

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে কি রাজ্যপাল থাকবেন? তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে ডিলিট বিতর্কে রাজ্যপালের ব্যাখ্যার জবাব দিয়েছে উচ্চশিক্ষা দফতর। রাজভবনে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে, নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডিলিট দেওয়া সম্মানের। তাঁর সময় পেয়েই ২৮ জানুয়ারির দিন চূড়ান্ত হয়েছে। তাই দ্বিতীয়বার আলোচনার দরকার নেই। চিঠি পেয়ে রাজ্যপালও সমাবর্তনের ফাইল ছেড়ে দিয়েছেন। তাই কলকাতার সমাবর্তন জট কাটল বলেই মনে করা হচ্ছে। যাদবপুরের সমাবর্তন ঘিের রাজ্য-রাজ্যপাল বেনজির সংঘাত তৈরি হয়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেেনট বৈঠকে রাজ্যপাল থাকার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। সেই বৈঠকই বাতিল হয়ে গিয়েছিল। ২৮ জানুয়ারি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন ঘিরেও তৈরি হয় জট। ফের রাজ্যের সঙ্গে রাজ্যপালের সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরি হয়। রাজ্যপাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে ব্যাখ্যা চান, সমাবর্তনের দিন ২৮ জানুয়ারি কীভাবে চূড়ান্ত হল? সেনেটের চেয়ারম্যান হওয়া সত্ত্বেও তাঁকে না জানিয়েই কী করে অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডিলিট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল? মঙ্গলবার সেই ব্যাখ্যারই জবাব দিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার উচ্চশিক্ষা দফতর মারফত রাজভবনে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

ডিলিট বিতর্কে রাজ্যপালকে জবাব উচ্চশিক্ষা দফতরের। চিঠিতে জানানো হয়েছে, নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে সম্মান জানানো কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে গর্বের। ওঁর সঙ্গে কথা বলেই ২৮ জানুয়ারি ডিলিট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওঁর দিন পাওয়াই গুরুত্বপূর্ণ। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্যরা ২৮ জানুয়ারি সমাবর্তনের দিন চূড়ান্ত করেন। এ নিয়ে দ্বিতীয়বার আলোচনার প্রয়োজন নেই। রাজভবন চিঠি পাওয়ার পরই নিজের অবস্থান বদলান রাজ্যপাল। তিনিও জানান, সমাবর্তনের ফাইল ছেড়ে দিয়েছেন। সোমবার কলকাতার সমাবর্তন নিয়ে রাজ্যপাল ব্যাখ্যা চাওয়ায় শিক্ষামন্ত্রী জানান, তাঁকে ছাড়াই সমাবর্তন হবে। রাজ্যপাল ফাইল ছেড়ে দেওয়ায় ২৮ জানুয়ারি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন জট কাটল বলেই মনে করা হচ্ছে। কিন্তু রাজ্যপাল কি ওই সমাবর্তনে থাকছেন? তা এখনও স্পষ্ট করে জানা যায়নি।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: January 14, 2020, 5:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर