• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বিক্ষোভ আশঙ্কার মধ্যেই আগামীকাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন, নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেওয়া হবে ডি.লিট

বিক্ষোভ আশঙ্কার মধ্যেই আগামীকাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন, নোবেলজয়ী অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেওয়া হবে ডি.লিট

ইতিমধ্যেই পড়ুয়া ও শিক্ষা কর্মীদের একাংশ রাজ্যপাল কে সমাবর্তনে বয়কটের ডাক দিয়েছে। আগামীকাল নজরুল মঞ্চে পড়ুয়াদের একাংশের তরফ

ইতিমধ্যেই পড়ুয়া ও শিক্ষা কর্মীদের একাংশ রাজ্যপাল কে সমাবর্তনে বয়কটের ডাক দিয়েছে। আগামীকাল নজরুল মঞ্চে পড়ুয়াদের একাংশের তরফ

ইতিমধ্যেই পড়ুয়া ও শিক্ষা কর্মীদের একাংশ রাজ্যপাল কে সমাবর্তনে বয়কটের ডাক দিয়েছে। আগামীকাল নজরুল মঞ্চে পড়ুয়াদের একাংশের তরফ

  • Share this:

#কলকাতা: বিক্ষোভ আশঙ্কার মধ্যেই কাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন হতে চলেছে। রাজ্যপাল তথা আচার্য জাগদীপ ধনকার কে ঘিরে কালো পতাকা ও বিক্ষোভ দেখাতে পারেন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ও কর্মচারীদের একাংশ। ইতিমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় এর তরফে পড়ুয়া ও শিক্ষা কর্মীদের একাংশের সঙ্গে আলোচনা বসলেও নজরুল মঞ্চে বিক্ষোভের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, সমাবর্তন মঞ্চে ই পড়ুয়াদের তরফে এনআরসি ও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতা করে প্রতিবাদ দেখানো হতে পারে বলেও আশঙ্কা বিশ্ববিদ্যালয়ের। এদিকে কাল একই মঞ্চে রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রীর কে দেখা যেতে পারে। এই সমাবর্তন মঞ্চেই নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডিলিট দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই সমাবর্তনের প্রস্তুতি চূড়ান্ত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন হবে কি হবে না তা নিয়ে বিতর্ক ছিল। এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনের দিনেই এন আর সি ও সি এ এ বিরোধী বিক্ষোভের আঁচ দেখা যেতে পারে। ইতিমধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন এ রাজ্যপালকে বয়কটের ডাক দিয়েছে পড়ুয়া ও শিক্ষা কর্মীদের একাংশ। মঙ্গলবার সমাবর্তনে নজরুল মঞ্চ ঢুকতে বাধা পড়তে পারেন রাজ্যপাল এমনই আশঙ্কা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। যা নিয়ে সোমবারও দফায় দফায় উপাচার্য সহ আধিকারিকরা পড়ুয়া ও শিক্ষা কর্মীদের সঙ্গে আলোচনাা করেছে। মূলত যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় এর সমাবর্তনের পুনরাবৃত্তি চাইছে না কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বৈঠক নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় মুখ না খুললেও আগামী কালকের সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয় এর তরফে কোন বিক্ষোভ অশান্তির থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছে পড়ুয়া ও কর্মচারীদের বলেই বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর। যদি ও আগামী কালকের সমাবর্তন মঞ্চে ই গবেষক পড়ুয়াদের তরফ এ এন আর সি ও সি এ এ বিরোধিতা করে  বিক্ষোভ দেখাতে পারে বলেই আশঙ্কা করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

তবে সমাবর্তনের আমন্ত্রণপত্রে কারোর নাম না থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্দরে জল্পনা চলছে ই। যদিও আগামী কালকের সমাবর্তন নির্বিঘ্নে শেষ করাটাই এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে চ্যালেঞ্জের। আগামীকাল সমাবর্তনেে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় সাম্মানিক ডিলিট তুলে দেবেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় এর হাতে।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

Published by:Elina Datta
First published: