corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিশ্বভারতী কাণ্ডে নয়া মোড়!  স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপ প্রধান বিচারপতি ডিভিশন বেঞ্চের

বিশ্বভারতী কাণ্ডে নয়া মোড়!  স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপ প্রধান বিচারপতি ডিভিশন বেঞ্চের

৪ সদস্যের কমিটি গঠন, বিশ্বভারতীর জমি কাঁটাতার দিয়ে ঘেরা সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ হাইকোর্টের

  • Share this:

#কলকাতা: বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে চলা সাম্প্রতিক অচলাবস্থার নিরসনে স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপ কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি টি বি রাধাকৃষ্ণনের ডিভিশন বেঞ্চের। কবিগুরুর সাধের বিশ্ববিদ্যালয়ের গরিমা অক্ষুন্ন রাখতে স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপ বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। ভুবনডাঙার জমি চিহ্নিতকরণ সংক্রান্ত অচলায়তনের সমাধান সূত্র খুঁজে বের করতে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 ৪ সদস্যের কমিটির চেয়ারপার্সন হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দোপাধ্যায়। কমিটিতে বিচারপতি বন্দোপাধ্যায় ছাড়াও থাকছেন বিচারপতি অরিজিৎ বন্দোপাধ্যায়, রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত এবং কেন্দ্রের অতিরিক্ত সলিসিটর জেনারেল ওয়াই জে দস্তুর। আদালত বান্ধব নিযুক্ত করা হয়েছেন সিনিয়র আইনজীবী জয়দীপ কর। কমিটির হাত শক্ত করতে একগুচ্ছ নির্দেশ জারি করেছে প্রধান বিচারপতি রাধাকৃষ্ণণ ও বিচারপতি শম্পা সরকারের ডিভিশন বেঞ্চ। বিশ্বভারতী মামলায় রায়ে প্রধান বিচারপতি ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশ গুলি এইরকম;

১) আদালত নিযুক্ত ৪ সদস্যের কমিটির অনুমতি ছাড়া বিশ্বভারতীর সম্পত্তির বা যে সম্পত্তিকে বিশ্বভারতী নিজের বলে দাবি করে, সেখানে কোনও নির্মাণ অথবা ভাঙার কাজ করা যাবে না।

২) আদালত নিযুক্ত কমিটির নির্দেশ অনুযায়ী রাজ্য এবং কেন্দ্রের রাজস্ব বিভাগের আধিকারিকরা যুদ্ধকালীন তৎপরতায় বিশ্বভারতীর সম্পত্তি চিহ্নিতকরণের কাজ করবেন। কাঁটাতার দিয়ে ঘিরতে হবে জমি এবং পুরো বিষয়টি ৪ সদস্যের কমিটির নজরদারিতে হবে।

 ৩) ১৭ আগস্ট, ২০২০ ঘটনার প্রেক্ষিতে পুলিশের সমস্ত পদক্ষেপ স্থগিত, প্রশাসনিক পদক্ষেপও স্থগিত ।  যদিও পুলিশ বিশ্বভারতী এবং সংলগ্ন এলাকায় কড়া নজর রাখবে পুলিশ। আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে। ফৌজদারি বা দেওয়ানী আদালতে সম্পত্তির বিবাদ সংক্রান্ত কোন মামলা থাকলে সেগুলোও স্থগিত থাকবে। স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে হবে।

৪) কমিটি মনে করলে যে কোনও সমস্যা প্রধান বিচারপতি ডিভিশন বেঞ্চের নজরে আনবে।

বিশ্বভারতীর ভুবনডাঙায় পাঁচিল দেওয়া হচ্ছে। এমন একটা অভিযোগে হুলস্থুল বেধে যায় সেখানে। সিবিআই তদন্ত,  ক্যাম্পাসে পুলিশ ফাঁড়ি সহ একাধিক আবেদন নিয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেন আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকার। প্রাথমিক পর্যায়ে রাজ্যের রিপোর্ট চায় আদালত। ১৬ সেপ্টেম্বর সেই রিপোর্ট হাতে পান প্রধান বিচারপতি। তা খতিয়ে দেখার পর বিশ্বভারতী কাণ্ডে অচলাবস্থা মেটাতে শুক্রবার স্বতঃপ্রণোদিত হস্তক্ষেপ করে নির্দেশ জারি কলকাতা হাইকোর্টের।

Arnab Hazra

Published by: Elina Datta
First published: September 18, 2020, 9:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर