কুহেলি মৃত্যুর ঘটনায় হাইকোর্টে খারিজ কাউন্সিলের নির্দেশ, ফেরত দিতে হবে চিকিৎসকের বাজেয়াপ্ত নথি

কুহেলি মৃত্যুর ঘটনায় হাইকোর্টে খারিজ কাউন্সিলের নির্দেশ, ফেরত দিতে হবে চিকিৎসকের বাজেয়াপ্ত নথি

১৫ দিনের মধ্যে চিকিৎসক সুভাষ তিওয়ারির বাজেয়াপ্ত নথি ফেরত না দিলে ৫০ হাজার টাকা জরিমানার মুখে পড়তে হবে মেডিকেল কাউন্সিলকে।

  • Share this:

Arnab Hazra

#কলকাতা: কুহেলিকাণ্ডে নয়া মোড় ৷ রাজ্য মেডিকেল কাউন্সিল এর নির্দেশ খারিজ হাইকোর্টে। জরিমানারও হুঁশিয়ারি রাজ্য মেডিকেল কাউন্সিলকে। কুহেলি কান্ডে রাজ্য মেডিকেল কাউন্সিল এর নির্দেশ খারিজ কলকাতা হাইকোর্টে। বুধবার বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য রাজ্য মেডিকেল কাউন্সিলকে হুঁশিয়ারিও দিয়েছে। ১৫ দিনের মধ্যে চিকিৎসক সুভাষ তিওয়ারির বাজেয়াপ্ত নথি ফেরত না দিলে ৫০ হাজার টাকা জরিমানার মুখে পড়তে হবে মেডিকেল কাউন্সিলকে।

কিছুদিন আগে রাজ্য মেডিকেল কাউন্সিল কুহেলি কাণ্ডে অভিযুক্ত চার চিকিৎসকের মধ্যে তিন চিকিৎসকে গাফিলতিতে দোষী সাব্যস্ত করে শাস্তির নিদান দেয়। চিকিৎসক সুভাষ তিওয়ারি, চিকিৎসক সঞ্জয় মহাবর এবং চিকিৎসক বৈশালী রায় শ্রীবাস্তব এই তিনজনের চিকিৎসক রেজিস্ট্রেশন তিন মাসের জন্য বাতিল করা হয়।  পাশাপাশি ওয়েস্ট বেঙ্গল মেডিকেল কাউন্সিল এর সাইট থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয় তিন চিকিৎসকের নামও।

চিকিৎসক সুভাষ তিওয়ারি রাজ্য মেডিকেল কাউন্সিলের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে মামলা ঠোকে। সেই মামলায় কাউন্সিলের সিদ্ধান্তকে অযৌক্তিক আখ্যা দেয় আদালত। এরপরই রেজিস্ট্রেশন বাতিলের সিদ্ধান্ত খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে বাইপাসের ধারে বেসরকারি হাসপাতালে গাফিলতির কারণে মৃত্যুর অভিযোগ ওঠে চার মাসের কুহেলি চক্রবর্তীর। কোলোনোস্কোপি করার নামে কার্যত দুইদিন খ্যাতি দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ ছিল। এরপর অজ্ঞান করার পর আর জ্ঞানই ফেরেনি কুহেলির। প্রায় আড়াই বছর পর তিনজন চিকিৎসককে দোষী সাব্যস্ত করে সাজার বিধান দিলেও হাইকোর্টে যা ধোপে টিকলো না।

জোকার বাসিন্দা কুহেলি চক্রবর্তীর মৃত্যু হয়েছে এটা ঠিক। দু’দিন কার্যত অভুক্ত ছিল সে।রাজ্য হেলথ কমিশন চিকিৎসায়  গাফিলতির অভিযোগে সিলমোহর দেয়। ৩০ লক্ষ টাকা পরিবারকে ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দেয়। সবকিছুকে ছাপিয়ে বুধবার বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য চিকিৎসকের রেজিস্ট্রেশন বাতিলের নির্দেশ খারিজ করে দেওয়ায় যেমনটা দাঁড়াল...মৃত্যু আছে শাস্তি নেই রাজ্যে।

First published: 07:35:32 PM Nov 27, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर