• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • CALCUTTA HIGH COURT ORDER ON SUVENDU ADHIKARI VS WEST BENGAL GOVERNMENT POLICE CASE SB

Suvendu Adhikari | Calcutta High Court: হাইকোর্টে বড় 'জয়' শুভেন্দু অধিকারীর, আদালত-অনুমতি ছাড়া গ্রেফতারি নয়!

শুভেন্দুর বড় স্বস্তি

Suvendu Adhikari | Calcutta High Court: এদিন শুভেন্দু অধিকারীকে ভবানী ভবনে ডেকে পাঠিয়েছিল সিআইডি। কিন্তু তিনি যাননি। মেইল করে সিআইডি-কে জানান, আদালতের বিচারাধীন বিষয়।

  • Share this:

#কলকাতা: দিল্লিতে যেদিন কয়লাকাণ্ডে ED-র কাছে হাজির হয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ঠিক সেদিনই কলকাতা হাইকোর্ট থেকে বড় রক্ষাকবচ পেলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। প্রসঙ্গত, এদিন শুভেন্দুকে ভবানী ভবনে ডেকে পাঠিয়েছিল সিআইডি। কিন্তু তিনি যাননি। মেইল করে সিআইডি-কে জানান, আদালতের বিচারাধীন বিষয়। এদিন আদালতে শুনানি আছে। তাই হাজির হচ্ছেন না তিনি। সেই শুনানির শেষেই এদিন হাইকোর্টে কার্যত 'জয়' পেলেন শুভেন্দু অধিকারী। হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশেখর মান্থা স্পষ্টতই জানিয়ে দেন, যে এফআইআরে শুভেন্দু অধিকারী নাম আছে সেই এফআইআর ওপর স্থগিতাদেশ। যে যে এফআইআরে শুভেন্দু অধিকারীর নাম নেই, সেই তদন্তে সহযোগিতা করবে শুভেন্দু অধিকারী। তবে তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারির মতন কোনও পদক্ষেপ করতে পারবে না পুলিশ বা সিআইডি। তবে বিরোধী দলনেতা তাঁর সুবিধা মতন তদন্তকারীদের তদন্তে সহযোগিতা করবে।

এখানেই শেষ নয়, শুভেন্দুকে বড় রক্ষাকবচ দিয়ে হাইকোর্ট আরও জানায়, আগামী দিনে কোনও এফআইআর শুভেন্দু অধিকারী বিরুদ্ধে হলে হাইকোর্টের অনুমতি ছাড়া কোনও কড়া পদক্ষেপ করতে পারবে না পুলিশ বা সিআইডি।৬ সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে হলফনামা দেবে রাজ্য। ৮ সপ্তাহ পর ফের এই মামলার শুনানি হবে।

আরও পড়ুন: সময়ের আগেই ইডির কাছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ঢোকার আগে দিয়ে গেলেন 'দায়িত্বশীল' বার্তা

এদিন সোমবার সকালে বিচারপতি রাজশেখর মান্থার বেঞ্চে শুভেন্দু অধিকারীর আইনজীবী পরমজিৎ সিং পাটোয়ালিয়া জানান, আদালতের বিচারাধীন মামলায় সমন পাঠিয়ে ডেকে পাঠানো হয়েছে রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে। যে এফআইআরে তলব করা হয়েছে, তা আদালতের কাছে এখন বিচারাধীন। সমনের বিষয়টি জেনেই বিচারপতি রাজশেখর মান্থা তখনই মৌখিক নির্দেশে জানিয়ে দিয়েছিলেন, এখনই CID সমনের প্রেক্ষিতে কোনও পদক্ষেপ করার বা সাড়া দেওয়ার প্রয়োজন নেই শুভেন্দু অধিকারীর। আর দুপুরেই শুভেন্দুকে আপাতত সর্বোচ্চ স্বস্তি দিলেন বিচারপতি।

প্রসঙ্গত, রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে ফল ঘোষণার পর থেকে এ যাবৎ ৫ টি এফআইআর হয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে। কাঁথি থানার ২ টি, নন্দীগ্রাম থানা, তমলুক ও কলকাতার মানিকতলা থানায় একটি করে এফআইআর হয়েছে রাজ্যের বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে। হাইকোর্টে এমনই তথ্য দিয়েছে রাজ্য। যদিও শুভেন্দু আদালতে অভিযোগ করেছিলেন, এই ৫ এফআইআর-ই রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে করা। এদিন শুনানির সময় বিচারপতি সেই প্রতিহিংসার বিষয়টিও তুলে আনেন। রাজনৈতিক মহলের মতে, সিআইডি-র তলবের দিনই যে রক্ষাকবচ আদালত থেকে পেলেন শুভেন্দু, তা বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ।

Published by:Suman Biswas
First published: