• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • CALCUTTA HIGH COURT JUDGE SABYASACHI BHATTACHARYA REACTION ON VIRTUAL COURT SYSTEM SB

Calcutta High Court: 'সার্কাস চলছে আদালতে!' কলকাতার বিচারপতির মন্তব্যে হাজার বিচারপ্রার্থীর 'আর্তনাদ'

বিচারপ্রার্থীদের অপেক্ষা বাড়ছে

Calcutta High Court: সার্কাসের মত ফাঁকা স্টেজ শো সুলভ বিচারের শুনানি নিয়ে সরব কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য।

  • Share this:

#কলকাতা: হাইকোর্টে ভার্চুয়াল শুনানিকে "সার্কাস" বললেন খোদ বিচারপতি। গমগম করছে এজলাস, কাঠগড়া, যুক্তিতর্ক আর তার কাঁটাছেড়া এখন এসব অতীত, নতুন ট্রেন্ড ভিডিও কনফারেন্সে শুনানি। সেখানেও বিপত্তি। এক আধবার না, বারবার। তাই সার্কাসের মত ফাঁকা স্টেজ শো নিয়ে সরব কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য।

কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে এগিয়ে চলেছে দেশ, রাজ্য। সুবিচারের আশায় ঘোরা মানুষদের কথা মাথায় রেখে অনেক আগেই চালু হয়েছে ভার্চুয়াল শুনানি। এজলাসে এজলাসের ছবি বলতে এখন একগুচ্ছ ল্যাপটপ ক্যামেরা আর সাউন্ড সিস্টেম। বিচারপতি বসে কার্যত শুনশান এজলাসে আর আইনজীবীরা বিভিন্ন স্থানে, ল্যাপটপ কিম্বা মোবাইলে। প্রত্যেককে জুড়ছে ইন্টারনেট বা ওয়াইফাই। এক কথায় কানেক্টিভিটি যত ভালো, তত চমৎকার ভার্চুয়াল শুনানি। ডিজিটাল ইন্ডিয়ায় বিচারপ্রার্থীদের ভাগ্য এখন যতটা না ঝুলে আইনি যুক্তির মারপ্যাঁচে তার থেকেও বেশি কানেক্টিভিটিতে।

সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টের ভার্চুয়াল শুনানিতে বিঘ্ন ঘটা এখন রোজনামচা। বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য এই নিয়ে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। একটি মামলার প্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্টের "ডিজিটাল" জট নিয়ে শো-কজও করেছেন তিনি।  শো-কজ করা হয় হাইকোর্ট সেন্ট্রাল প্রোজেক্ট কো-অর্ডিনেটরকে। সেই অনুযায়ী শো-কজের জবাব আসে তবে, তাতে কানেক্টিভিটির হাল ফেরেনি। কানেক্টিভিটি সমস্যায় জেরবার কার্যত হাইকোর্টের কমবেশি সব এজলাস। আইনজীবী সুদীপ্ত দাশগুপ্ত, শমীক চট্টোপাধ্যায়, ফিরদৌস শামিম, বিক্রম বন্দ্যোপাধ্যায়, সঞ্জীব দাঁ, মলয় ভট্টাচার্য, প্রতাপ দে --কমবেশি প্রত্যেকেই জানাচ্ছেন ভার্চুয়াল শুনানি নিরবিচ্ছিন্ন হচ্ছে না। আর তাতে শুনানির সময় আরও বেশি লেগে যাচ্ছে।   হাইকোর্ট সেন্ট্রাল প্রোজেক্ট কো-অর্ডিনেটরকে তুলোধনা করে বিচারপতি ভট্টাচার্যের তাই মন্তব্য, "ফাঁকা এজলাসে বসে স্টেজ শো করব না আর, বসব না বেঞ্চে।"

তিনি আরও বলেন,"ভার্চুয়াল শুনানির নামে সার্কাস চলছে, এই সার্কাস থেকে নিজেকে সরিয়ে নিচ্ছি।" মানুষ বিচার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে কানেক্টিভিটি সমস্যায়। অবিলম্বে কানেক্টিভিটি সমস্যা স্বাভাবিক করার ব্যবস্থা করুক হাইকোর্ট প্রশাসন। এমনটাই নির্দেশে জানিয়েছেন তিনি। বিচারপতি জানিয়েন, শেষ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে হাইকোর্ট সেন্ট্রাল প্রোজেক্ট কো-অর্ডিনেটরকে। পরিস্থিতি না শোধরালে আদালত অবমাননার রুল জারিরও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিচারপতি।

Published by:Suman Biswas
First published: