Home /News /kolkata /
Calcutta High Court: দুই বেঞ্চের টানাপোড়েন, বেনজির প্রশাসনিক নির্দেশ পৌঁছল রেজিস্ট্রার জেনারেলের দফতরে

Calcutta High Court: দুই বেঞ্চের টানাপোড়েন, বেনজির প্রশাসনিক নির্দেশ পৌঁছল রেজিস্ট্রার জেনারেলের দফতরে

কলকাতা হাইকোর্টে বেনজির টানাপোড়েন৷

কলকাতা হাইকোর্টে বেনজির টানাপোড়েন৷

আদালত সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার দুপুরের পর বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ে'র প্রশাসনিক নির্দেশ রেজিস্ট্রার জেনারেলের দফতরে পৌঁছেছে (Calcutta High Court)। 

  • Share this:

#কলকাতা: দেশের প্রধান বিচারপতি ও রাজ্যের প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ চেয়ে বুধবার আবেদন রাখেন কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta High Court) বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। একই সঙ্গে ওই দিন বিচারবিভাগীয় নির্দেশও দেন তিনি।

বুধবার সন্ধে ৭টার কিছু সময় পরে জুডিসিয়াল নির্দেশ কোলকাতা হাইকোর্টের ওয়েবসাইটে দেখা যায়।হাইকোর্ট পাড়ায় বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রশাসনিক নির্দেশ নিয়ে কৌতূহল নজরকাড়া। আদালত সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার দুপুরের পর বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রশাসনিক নির্দেশ রেজিস্ট্রার জেনারেলের দফতরে পৌঁছেছে। এসএসসি সংক্রান্ত একগুচ্ছ মামলার কিছু ঘটনাক্রম বন্দি এই প্রশাসনিক নির্দেশ বলে ওই একই সূত্রের দাবি।

আরও পড়ুন: বিষয় SSC, ডিভিশন বেঞ্চের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ সিঙ্গল বেঞ্চ! বেনজির ঘটনা কলকাতা হাই কোর্টে

আবদুল গণি আনসারির করা মামলায় বুধবার বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় আদালতে জানান, একক বেঞ্চ বিবেচনার পর এসএসসি-র উপদেষ্টা  এস পি সিনহার সম্পত্তির হিসেব হলফনামায় তলব করেন। ৩০ মার্চ এই হলফনামা দেওয়ার নির্দেশ ছিল। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশ চ্যালেঞ্জ করে বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের ডিভিশন বেঞ্চে আপিল মামলা করেন এস পি সিনহা।

আপিল মামলায় বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের ডিভিশন বেঞ্চ বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশ পরিবর্তন (মডিফাই) করে দেয়। ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, এসএসসি উপদেষ্টা তাঁর সম্পত্তির হলফনামা মুখবন্ধ খামে দেবেন একক বেঞ্চর। ৩০ মার্চের পরিবর্তে এস পি সিনহা আরও ৫ দিন সময় পাবেন সম্পত্তির হলফনামা দেওয়ার জন্য৷

ডিভিশন বেঞ্চ আরও জানায়, এসএসসি-র উপদেষ্টার হলফনামা কোনও মামলার পক্ষকে দেওয়া যাবেনা। মামলার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময়ে ওই হলফনামা খুলে তা দেখতে পারবে একক বেঞ্চ।

এখানেই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রশ্ন, মামলার চূড়ান্ত সময়(Final decision) মানে বিচারপতির নির্দেশ লেখার মুহূর্ত। ওই সময় এস পি সিনহা সম্পত্তির হলফনামা নিয়ে একক বেঞ্চ কী করবে? কারণ হলফনামার তথ্য মামলার বিবেচনার অভিমুখে বদল আনলে তখন তা মামলার চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের মুহূর্ত নাও হতে পারে। কাজেই ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশ কার্যত ঘুরিয়ে একক বেঞ্চের হাত বেঁধে দিল বলেই মতপ্রকাশ করেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি আরও জানান, আর যদি তা না হয় তাহলে বলতে হয় ডিভিশন বেঞ্চ আগেভাগেই একক বেঞ্চের বিবেচনা আঁচ করতে পেরে গিয়েছে। এটা কীভাবে সম্ভব!

বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় আরও প্রশ্ন করেন, সরকারি চাকরিতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে একজন বিচারপতি কাজ করতে পারবেন কি না যত্ন সহকারে ভেবে দেখুন  দেশের প্রধান বিচারপতি এবং কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি। গ্রুপ ডি, গ্রুপ সি এবং নবম-দশম শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগে CBI অনুসন্ধানের নির্দেশের উপরে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ দিয়েছে বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের ডিভিশন বেঞ্চ।

আরও পড়ুন: বিচার ব্যবস্থার ওপর অনাস্থা খোদ বিচাপতির! এই ঘটনা কী নজিরবিহীন?

বৃহস্পতিবার বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের একক বেঞ্চ গ্রুপ ডি নিয়োগ দুর্নীতি মামলার নির্দেশনামায় জানান, অবৈধ নিয়োগ দেওয়ার চক্র ফাঁস করতে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত প্রয়োজন। অনুরূপ অন্যান্য মামলার বিষয় থেকে জানতে পেরেছে আদালত, এই অবৈধ সরকারি নিয়োগ প্রদানের দুর্নীতির অন্যতম কারিগর বা কিংপিন শান্তি প্রসাদ সিনহা। তাই, একক বেঞ্চ  সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন-এর আঞ্চলিক প্রধানকে নির্দেশ দিচ্ছে এসএসসি প্রাক্তন উপদেষ্টা  এস পি সিনহাকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করতে।

বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন ডিভিশন বেঞ্চে গ্রুপ সি ও গ্রুপ ডি মামলার শুনানি চলাকালীন একজন আইনজীবীর করা মন্তব্য প্রশাসনিক নির্দেশে উল্লেখ করেছেন বলে সূত্রের খবর। জুম প্লাটফর্মে ভিডিও কনফারেন্সের এমন অডিও রেকর্ড চেয়ে অনেক আইনজীবী আবেদন করেছেন। একক বেঞ্চ(বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বেঞ্চ) চায় ওই অডিও রেকর্ডিং আদৌ আছে কিনা তার সত্যতা সামনে আনতে।

বুধবার বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এজলাসে জানান,'মঙ্গলবার বিকেলে আমার চেম্বারে একজন যান, তিনি এসএসসি উপদেষ্টা মামলা এবং এসএসসি নিয়োগ মামলা নিয়ে কথা বলতে চানন। হাত জোড় করে তাঁকে ফেরত  পাঠিয়েছি।'

এসএসসি-র উপদেষ্টা এস পি সিনহার সার্ভে পার্কের বাড়িতে বৃহস্পতিবার রাতে পৌঁছে যায় সিবিআই। হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে উপদেষ্টাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে গেলে প্রাথমিক ভাবে বাড়িতে না পেয়ে ফিরে আসতে হয় সিবিআইকে। পরে রাত ১১টার পরে সিবিআই দপ্তর নিজাম প্যালেসে পৌঁছন এস পি সিনহা। ঘণ্টাখানেক সিবিআই জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হন এস পি সিনহা।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Calcutta High Court

পরবর্তী খবর