• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বাংলায় অঙ্ক, বিজ্ঞান শেখাবেন শ্রেষ্ঠ শিক্ষকরা! সুযোগ নিয়ে এল জনপ্রিয় এই অ্যাপ

বাংলায় অঙ্ক, বিজ্ঞান শেখাবেন শ্রেষ্ঠ শিক্ষকরা! সুযোগ নিয়ে এল জনপ্রিয় এই অ্যাপ

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

চতুর্থ থেকে দশম শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য বাইজুস অ্যাপে এই সুবিধে মিলবে৷ মাতৃভাষায় যারা পড়াশোনা করতে চায়, বাংলার সেই ছাত্রছাত্রীদের জন্যই এই ব্যবস্থা করেছে বাইজুস৷

  • Share this:

    #কলকাতা: স্কুল ফের খুললেও সন্তানদের সুরক্ষার কথা ভেবে রাজ্যের ৭২ শতাংশ বাবা- মায়েরাই চাইছেন অনলাইনে পড়াশোনা চালু থাকুক৷ এই পরিস্থিতি বাঙালি ছাত্রছাত্রীদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ নিয়ে এল পড়াশোনার জন্য জনপ্রিয় এডুকেশন অ্যাপ Byju's৷

    এই মুহূর্তে বিশ্বের সবথেকে মূল্যবান এড-টেক সংস্থা এবং বিশ্বের সবথেকে বড় পার্সোনালাইজড কে-১২ (দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনার) অ্যাপ Byju's এবার তাদের অ্যাপে বাংলায় অঙ্ক এবং বিজ্ঞান শেখার সুযোগ করে দিল৷ চতুর্থ থেকে দশম শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য বাইজুস অ্যাপে এই সুবিধে মিলবে৷ মাতৃভাষায় যারা পড়াশোনা করতে চায়, বাংলার সেই ছাত্রছাত্রীদের জন্যই এই ব্যবস্থা করেছে বাইজুস৷

    Byju's অ্যাপে এই মুহূর্তে ৬.৪ কোটি রেজিস্টার্ড ইউজার রয়েছে৷ বাংলায় এই অ্যাপ নিয়ে আসার পর পশ্চিমবঙ্গে আরও বেশি সংখ্যক ছাত্রছাত্রী পড়াশোনার জন্য Byju's-কে বেছে নেবে বলে আশাবাদী সংস্থা৷ এর ফলে আরও বেশি বাঙালি ছাত্রছাত্রীরা অনলাইনে পড়াশোনার সুবিধে পাবে৷ আগামী কয়েকমাসে অন্যান্য আঞ্চলিক ভাষাতেও বাইজুস অ্যাপে লার্নিং প্রোগাম শুরু করা হবে বলে সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে৷

    এই প্রসঙ্গে Byju's-এর সিইও মৃণাল মোহিত বলেন, 'ছাত্রছাত্রীদের তাদের মাতৃভাষায় অঙ্ক এবং বিজ্ঞানে দক্ষ করে তোলার যে লক্ষ্য আমরা নিয়েছি, তা পূরণ করতেই বাংলায় লার্নিং প্রোগাম শুরু করা হল৷ করোনা অতিমারির জন্য অনলাইন পড়াশোনার সুবিধে সম্পর্কে মানুষ আরও অবগত হয়েছেন৷ এই মাধ্যমে পড়াশোনার কী কী সুবিধে, ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক, শিক্ষক সবাই তা হাতেকলমে বুঝতে পারছেন৷ সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গে আমাদের একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, স্কুল খুলে গেলেও ৭২ শতাংশ বাবা-মায়েরাই চাইছেন তাঁদের সন্তানরা অনলাইনে পড়াশোনা চালিয়ে যাক৷ বাংলাতেও লার্নিং প্রোগ্রাম শুরু হওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গের অসংখ্য ছাত্রছাত্রী ভৌগলিক এবং ভাষাগত দূরত্বকে ঘুচিয়েই শ্রেষ্ঠ শিক্ষকদের কাছে পড়াশোনার সুযোগ পাবে৷'

    করোনা অতিমারির মধ্যে লকডাউন শুরু হওয়ার পর দেশজুড়ে ৫০০০ অভিভাবককে নিয়ে একটি সমীক্ষা করে Byju's৷ এমন অভিভাবকদেরই বেছে নেওয়া হয়েছিল, যাঁদের অন্তত একজন সন্তান কেজি থেকে দ্বাদশ শ্রেণির মধ্যে পড়াশোনা করছে৷ তাতে দেখা যায়, ৭০ শতাংশ অভিভাবকই স্বীকার করেছেন যে লকডাউনের মধ্যেই তাঁদের সন্তানরা প্রথম বারের জন্য অনলাইনে পড়াশোনা করেছে৷ তাঁদের মধ্যে ৭৫ শতাংশ অভিভাবকই ভবিষ্যতে স্কুল খুললেও অনলাইনে পড়াশোনার পক্ষে সায় দিয়েছেন৷ পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে এই সংখ্যাটা ৭২ শতাংশ৷ এই ৭২ শতাংশের মধ্যে আবার ৬০ শতাংশ অভিভাবক স্বীকার করে নিয়েছেন যে অনলাইনে পড়াশোনা করে তাঁদের সন্তানরা উপকৃত হয়েছে৷ আর ৫৯ শতাংশ অভিভাবক জানিয়েছেন যে তাঁরা অন্য বাবা-মায়েদেরও তাঁদের সন্তানদের অনলাইনে পড়াশোনা করানোর সুপারিশ করবেন৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: