• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • By Election in West Bengal: রাত পোহালেই বাংলায় উপনির্বাচন, ৪-এর অঙ্কে তৃণমূল আর বিজেপি-র লক্ষ্য?

By Election in West Bengal: রাত পোহালেই বাংলায় উপনির্বাচন, ৪-এর অঙ্কে তৃণমূল আর বিজেপি-র লক্ষ্য?

বাংলায় উপনির্বাচন

বাংলায় উপনির্বাচন

By Election in West Bengal: অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন করাই এখন লক্ষ্য নির্বাচন কমিশনের। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় বাহিনী বাড়ানো হয়েছে। কমিশন সূত্রে খবর, ১০০ শতাংশ বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে।

  • Share this:

#কলকাতা: রাত পোহালেই রাজ্যের চার বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন (By Election in West Bengal)। বুধবার শেষ হয়ে গিয়েছে প্রচার। ওই চার কেন্দ্রেই এবার জিততে বদ্ধপরিকর তৃণমূল। অপরদিকে, ওই চারটি কেন্দ্রের মধ্যে দুটিতে গত বিধানসভা নির্বাচনে জয় পেয়েছিল BJP, তাই সেই দুটি কেন্দ্র অর্থাৎ শান্তিপুর ও দিনহাটা দখলে রেখে মানরক্ষা চেষ্টায় গেরুয়া শিবির। অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন করাই এখন লক্ষ্য নির্বাচন কমিশনের। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় বাহিনী বাড়ানো হয়েছে। কমিশন সূত্রে খবর, ১০০ শতাংশ বুথেই কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে।

আরও পড়ুন: বড় খবর! স্কুল খুলছে ১৬ তারিখ, কিন্তু বদলে গেল ক্লাসের সময়সীমা! শিক্ষকরা যাবেন কবে থেকে?

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, একটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের যদি একটা বুথ থাকে তাহলে ৪ জন কেন্দ্রীয় জওয়ান থাকবেন, একটা ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে ২ থেকে ৪ টি বুথ থাকলে ৮ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান থাকবেন, ৫ থেকে ৮ টা বুথ থাকলে ১৬ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন হবে আর ৯ ও তার বেশি বুথ থাকলে ২৪ জন কেন্দ্রীয় বাহিনী। এই ভাবেই বিভিন্ন ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন থাকবে।

আরও পড়ুন: গোয়ায় মমতার ঝড়, পাল্টা হ্যাশট্যাগ-অস্ত্র বেছে নিল বঙ্গ বিজেপি!

নির্বাচন কমিশনের এই নিয়মের ভিত্তিতেই দিনহাটায় মোতায়েন করা হয়েছে ২৭ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী, খড়দহতে ২০ কোম্পানি, শান্তিপুরে ২২ কোম্পানি ও গোসাবায় ২৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হবে। দিনহাটায় ভোটারের সংখ্যা ২৯৮০৬৭, খড়দহতে ২৩২৩৪৮, শান্তিপুরে ভোটার সংখ্যা ২৫৪৮৮৯ এবং গোসবায় ভোটার সংখ্যা ২৩০২৩০। যত বেশি সংখ্যক ভোটারকে ভোটমুখী করাই এই উপনির্বাচনে অন্যতম লক্ষ্য নির্বাচন কমিশনের।

ঘোষণা হয়ে গিয়েছিল আগেই। পুজোর পর এবার উপনির্বাচন হতে চলেছে কোচবিহারের দিনহাটা, নদিয়ায় শান্তিপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবা ও উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহে। আগামীকাল, শনিবার ৩০ সেপ্টেম্বর ভোট। আর ২ নভেম্বর ভোট গণনা। চার কেন্দ্রেই এখন কেন্দ্রীয় বাহিনীর ভারী বুটের শব্দ শোনা যাচ্ছে। গোসাবা বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত সুন্দরবন কোস্টাল থানা এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে আশ্বস্ত করা হয়েছে সাধারণ মানুষকে।

আরও পড়ুন: হৃদয়ের শহরের জন্য মোদির কাছে আর্জি বাবুলের! TMC-র হয়েও একই গন্তব্য? জল্পনা...

ভোট হবে করোনা বিধি মেনেই। থাকবে মাস্ক ও স্যানিটাইজারের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা। শান্তিপুর কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে লড়াই করছেন ব্রজকিশোর গোস্বামী। বিজেপি প্রার্থী নিরঞ্জন বিশ্বাস। বামফ্রন্ট প্রার্থী সৌমেন মাহাতো এবং কংগ্রেস প্রার্থী রাজু পাল। আবার, দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামানিক ৫৭ ভোটে জিতেছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে তিনি বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন। তাই ফের একবার দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হতে চলেছে আগামীকাল। সেখানে বিজেপি প্রার্থী অশোক মণ্ডল, বামফ্রন্ট প্রার্থী আব্দুর রউফ ও তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বিধানসভা নির্বাচনের মতোই উদয়ন গুহ৷ অপরদিকে, বিধানসভা নির্বাচনে খড়দহ কেন্দ্রে বিপুল ভোটে জিতেছিলেন তৃণমূল প্রার্থী কাজল সিনহা। কিন্তু ফল ঘোষণার আগেই করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। তাই ফের উপনির্বাচন হচ্ছে সেখানে। সেখানে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় আর বিজেপি-র হয়ে লড়াই করছেন জয় সাহা।

Published by:Suman Biswas
First published: