• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • শুক্রবারের মধ্যে JNNURM প্রকল্পের বাস নামানোর হুঁশিয়ারি, না নামালে পুলিশি ব্যবস্থা

শুক্রবারের মধ্যে JNNURM প্রকল্পের বাস নামানোর হুঁশিয়ারি, না নামালে পুলিশি ব্যবস্থা

বাস নামাতে গররাজি বাস মালিকরা। রাত অবধি চলল দড়ি টানাটানি।

বাস নামাতে গররাজি বাস মালিকরা। রাত অবধি চলল দড়ি টানাটানি।

বাস নামাতে গররাজি বাস মালিকরা। রাত অবধি চলল দড়ি টানাটানি।

  • Share this:

#কলকাতা: সরকারি বাস রাস্তায় নেমেছে। যাত্রী সংখ্যার হিসেব রেখে আগামী দিনে বাসের সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে পারে বলে জানিয়েছে রাজ্য পরিবহন দফতর। বেশ কিছু জেলায় নেমেছে বেসরকারি বাসও। এবার জেএনএনইউআরএম প্রকল্পের বাস যাদের কাছে আছে তাদের শুক্রবারের মধ্যে রাস্তায় বাস নামাতে বলা হয়েছে। যদি তারা বাস নামাতে অস্বীকার করে, তাহলে রাজ্য পরিবহন দফতর পুলিশের সহায়তায় বাস টেনে নিয়ে আসবে। ইতিমধ্যেই এই বিষয়ে রাজ্যের প্রায় ৪০০ বাস মালিকের কাছে এই বিষয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

২০০৯ সালে বাম আমলে রাজ্যে চালু হয় কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সহায়তায় বাস চলাচল। জওহরলাল নেহেরু ন্যাশনাল আরবান রিনিউয়াল মিশন প্রকল্পে বাস আসে রাজ্যে। বড় বাস তুলে দেওয়া হয় বেসরকারি সংস্থা বা ফ্রাঞ্চাইজিদের হাতে। বেশ কিছু ক্ষেত্রে একক মালিকানায় বাস নেন অনেকেই। ২০০৯ সালে এই বাসের দাম ছিল ১৯ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। নিয়মানুযায়ী এর ৩৫ শতাংশ দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। ১৫ শতাংশ টাকা দিয়েছিল রাজ্য সরকার। বাকি ৫০ শতাংশ টাকা বেসরকারি মালিক বা ফ্রাঞ্চাইজির দেওয়ার কথা। ফলে ৯ লাখ ৪২ হাজার টাকা শোধ করতে হবে তাদের। এর মধ্যে শুরুতেই ২ লক্ষ টাকা সিকিউরিটি ডিপোজিট হিসেবে দেওয়া হয়েছিল। বাকি টাকা ৯৬ মাসে ২২ হাজার পিছু দেওয়ার কথা ছিল মালিকদের। যদিও বহু টাকা ব্যাঙ্কে কোনও বাস মালিকই শোধ করতে পারেননি। ফলে এই বাসের মালিকানাধীন এখন অনেকটাই রাজ্য সরকারের হাতে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে বেসরকারি বাস মালিকদের রাস্তায় বাস নামাতে অনুমতি দিয়েছিল রাজ্য সরকার। ২০ জন যাত্রী নিয়ে বাস চালাতে বলে সরকার। ভাড়া ঠিক করতে বলেন তাদের। যদিও যে পরিমাণ ভাড়ার কথা বাস সংগঠনগুলি জানায় তাতে আপত্তি জানায় রাজ্য সরকার। ফলে সরকারি বাস এখন যাত্রী পরিষেবা দিচ্ছে। বুধবার থেকেই ৫৫ রুটের বাস চলছে। এবার এই জেএনএনইউআরএম প্রকল্পের বাস রাস্তায় নামাতে চাইছে রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠানো হয়েছে। যদিও বেসরকারি বাস মালিকরা জানাচ্ছেন, ৪০০ বাস চলার মতো অবস্থায় নেই। সব মিলিয়ে গোটা রাজ্যে হয়তো ১০০ বাস চলার উপযুক্ত অবস্থায় আছে। তবে নুন্যতম সাত টাকা ভাড়ায় সেই বাস চালানো সম্ভব নয় বলেই দাবি তাদের। যদিও সরকারের কড়া অবস্থান, বাস না চালালে পুলিশ বাস নিয়ে আসবে। সেই বাস রাজ্য পরিবহন নিগম চালাবে। আপাতত কী সিদ্ধান্ত নেন এই সব বাসের মালিকরা সে দিকেই তাকিয়ে সকলে।

ABIR GHOSHAL

Published by:Ananya Chakraborty
First published: