• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BUS ACCIDENT IN KOLKATA MONE DIED INJURED ARE ADMITTED IN SSKM TRAUMA CARE SDG

Kolkata Accident|| কলকাতায় ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনা, SSKM-র ট্রমা কেয়ারে আহতরা, ঘটনাস্থলে পুলিশ কমিশনার

কলকাতায় বাস চলাচল শুরু হওয়ার প্রথম দিনেই ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনা। কলকাতা পুলিশের এক কর্মী বাইক নিয়ে তখন সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় তাঁর।

কলকাতায় বাস চলাচল শুরু হওয়ার প্রথম দিনেই ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনা। কলকাতা পুলিশের এক কর্মী বাইক নিয়ে তখন সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় তাঁর।

  • Share this:

    #কলকাতা: কলকাতায় বাস চলাচল শুরু হওয়ার প্রথম দিনেই ভয়াবহ বাস দুর্ঘটনা। কলকাতা পুলিশের এক কর্মী বাইক নিয়ে তখন সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন।  তাঁকে বাঁচাতে গিয়েই বাসটি সজোরে তাঁকে ধাক্কা মেরে পাঁচিলে উঠে যায়। মৃত্যু হয় পশ্চিম মেদিনীপুরের বাসিন্দা বাইক আরোহী বিবেকানন্দ ডাবের। জানা গিয়েছে, বাইক  দুর্ঘটনার সময়ে বাসে অন্তত ৩০ জন যাত্রী ছিলেন। আহত হয়েছেন এদের মধ্যে অন্তত ১৮ জন। হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তাদের মধ্যে ১৩ জন, যাঁদের মধ্যে ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আহতদের সকলকেই এসএসকেএম হাসপাতালের ট্রমা কেয়ারে রাখা হয়েছে। দুর্ঘটনায় মিনিবাসটি কার্যত দুমড়ে-মুচড়ে গিয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র-সহ  পুলিশের বড় টিম। হাসপাতালের ট্রমা কেয়ারে পৌঁছে গিয়েছেন ডিসি ট্র্যাফিক অরিজিৎ সিনহা। ঘটনাস্থলে রয়েছে সেনাবাহিনীর বিশেষ দল। দ্রুত গতিতে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছেন তারা।

    উল্লেখ্য, এ দিন দুপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফোর্ট উইলিয়ামের পাঁচিলে সজোরে ধাক্কা মারে হাওড়া মেটিয়াবুরুজ রুটের একটি মিনিবাস। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে উল্টো দিক থেকে আসা একটি বাইক সামনে চলে আসায় গতি নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে হঠাৎ বাসটি সোজা রেড রোডের পাঁচিলে ধাক্কা মারে। ওই বাইক আরোহীও নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসের তলায় চলে যান। ঘটনায় আহত হয়েছেন বাসচালক-সহ যাত্রীরা। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই ধরাধরি করে পাতালের নিয়ে যাওয়া হয়। বাসটিকে সরাতে নিয়ে আসা হয় ক্রেন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ফোর্ট উইলিয়াম এলাকায় বেশ কয়েকটি সিসিটিভি রয়েছে। সেখানেই ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে ঠিক কী ভাবে অ্যাক্সিডেন্ট ঘটল। বাসচালক মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে আশ্বাস তদন্তকারীদের।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: