• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • খুনের আগে শিশুকে কেন চানাচুর খাওয়ায় শিবকুমার? বড়বাজার খুনে একাধিক চাঞ্চল্যকর তথ্য পুলিশের হাতে

খুনের আগে শিশুকে কেন চানাচুর খাওয়ায় শিবকুমার? বড়বাজার খুনে একাধিক চাঞ্চল্যকর তথ্য পুলিশের হাতে

শিবকুমারের প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, খুনের আধঘণ্টা  আগে দু'বছরের শিশুকে নিজের ঘরে ডেকে চানাচুর খাইয়েছিল শিবকুমার। কী উদ্দেশ্যে সে এই কাজ করেছিল ?

শিবকুমারের প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, খুনের আধঘণ্টা আগে দু'বছরের শিশুকে নিজের ঘরে ডেকে চানাচুর খাইয়েছিল শিবকুমার। কী উদ্দেশ্যে সে এই কাজ করেছিল ?

শিবকুমারের প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, খুনের আধঘণ্টা আগে দু'বছরের শিশুকে নিজের ঘরে ডেকে চানাচুর খাইয়েছিল শিবকুমার। কী উদ্দেশ্যে সে এই কাজ করেছিল ?

  • Share this:

# কলকাতা: বড়বাজারে শিশু খুনে ধৃত শিবকুমার গুপ্তা নিজের দোষ কবুল করলেও পুলিশ এখনও একটি প্রশ্নের উত্তর পায়নি। শিবকুমারের প্রতিবেশীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, খুনের আধঘণ্টা  আগে দু'বছরের শিশুকে নিজের ঘরে ডেকে চানাচুর খাইয়েছিল শিবকুমার। কী উদ্দেশ্যে সে এই কাজ করেছিল তা জানতেই মরিয়া তদন্তকারিরা। ঠাণ্ডা মাথায় পরিকল্পনা করে খুনের সুযোগ তৈরির জন্য সে চানাচুর খাইয়েছিল নাকি অন্য উদ্দেশ্য ছিল ? সেই উত্তর খুঁজছে পুলিশ।

বড়বাজারে ২ বছরের শিশুকে খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত শিবকুমারের বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় খুন এবং ৬ বছরের একটি শিশুকে খুনের চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। সেই মামলায় তাকে গ্রেফতার করে সোমবার আদালতে পেশ করে বড়বাজার থানার পুলিশ। তদন্তকারিদের আবেদন গ্রহণ করে ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত।

পুলিশ সূত্রে খবর, এই ঘটনায় অভিযুক্ত শিবকুমার জেরায় জানিয়েছে, প্রথমে সে ২ বছরের শিশুটিকে ছ'তলা থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেয়। অন্য দুটি শিশু তা দেখে ফেলায় তাদেরও ফেলে দেয়। তবে তাদের মধ্যে একজনকে ফেলতে ব্যর্থ হয় সে।

তার পরিকল্পনা ছিল, যেহুতু বারান্দায় বাচ্চারা ছাড়া আর কেউ ছিল না, তাই সবার অলক্ষ্যে বাচ্চাদের ছুড়ে ফেলে দেওয়া। পরবর্তীতে বলা যে খেলতে গিয়ে পড়ে গিয়েছে। সে জন্য ঘটনার পরও ধৃত ব্যক্তি স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশের কাছে দাবি করে, সে কিছুই জানে না, তাঁর দাবি ছিল, বাচ্চারা খেলতে গিয়ে দুর্ঘটনাবশত পড়ে গিয়েছে।

তদন্তকারীরা রীতিমতো অবাক হয়ে গিয়েছে শিবকুমারের মানসিক জোর দেখে। বড়বাজার থানার এক অফিসার বলেন, "গ্রেফতারের পর দু'বছরের শিশুকে মেরে ফেলার কথা স্বীকার করলেও তার মধ্যে কোনও তাপউত্তাপ নেই। শিশুকে খুনের জন্য দুঃখ বা খারাপ লাগাও নেই। এরকম শক্ত মনের অপরাধী খুব কম দেখেছি।"

জেরার সময় তদন্তকারীরা মূলত জানার চেষ্টা করে, কেন শিশুটিকে হত্যা করল সে। শিবকুমারের দাবি, বাচ্চারা শুধুমাত্র তার ঘরের সামনে খেলত বা জল ফেলত নয়, মাঝেমধ্যেই তাকে ঘুমের মধ্যে বিরক্ত করত! সেই কারণেই সে খুন করেছে শিশুটিকে। তবে তার পরিকল্পনা ছিল, নিঃশব্দে শিশুদের ছয় তলা থেকে ফেলে দিয়ে বিষয়টিকে দুর্ঘটনা বলে দাবি করার। তবে তার অজান্তেই গোটা ঘটনাটি তারই প্রতিবেশী এক মহিলা দেখে ফেলেন। তার বয়ানকে হাতিয়ার করেই গ্রেফতার করা হয় শিবকুমারকে।

SUJOY PAL

Published by:Rukmini Mazumder
First published: