বাড়ি ফিরলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, ফিরলেন পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে

শারীরিক অবস্থার উন্নতি, নিয়ন্ত্রণে রক্তচাপ, স্বাভাবিক হৃদস্পন্দন। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 10, 2019 03:52 PM IST
বাড়ি ফিরলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, ফিরলেন পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 10, 2019 03:52 PM IST

#কলকাতা: শারীরিক অবস্থার উন্নতি, নিয়ন্ত্রণে রক্তচাপ, স্বাভাবিক হৃদস্পন্দন। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। বাড়িতেই চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণ। দিতে হবে অক্সিজেন, নেবুলাইজেশন। চলবে চেস্ট ফিজিও থেরাপি। হাসপাতালে থাকতে চাইছিলেন না প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর জেদের কারণেই হাসপাতাল থেকে ছাড়তে বাধ্য হন চিকিৎসকরা।

জেদের কাছে হার মানলেন চিকিৎসকরা। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার অদম্য ইচ্ছেতেই সায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। আলিপুরের বেসরকারি হাসপাতাল থেকে পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে সোমবার দুপুরে নিয়ে যাওয়া হয়। সঙ্গে চিকিৎসকদের কড়া নজরদারি। হাসপাতাল সূত্রে খবর, (গ্রাফিক্স ইন) এখন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আছে ও তাঁর হৃৎস্পন্দনও স্বাভাবিক। তবে এখন থেকে বাড়িতেই তাঁকে বাইপ্যাপ দেওয়া হবে। দেওয়া হবে অক্সিজেন ও নেবুলাইজেশনও। পাশাপাশি তাঁর চেস্ট ফিজিওথেরাপি চলবে। দুজন চিকিৎসক বাড়িতেই তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখবেন।

দুপুর তিনটে কুড়ি নাগাদ স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্য ও মেয়ে সুচেতনা ভট্টাচার্য অ্যাম্বুল্যান্স করেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে 69 পাম অ্যাভিনিউয়ে নিয়ে যান। বাড়ির মধ্যে কিভাবে চিকিৎসা করতে হবে তা বাড়ির লোকজনকে বুঝিয়ে দেন চিকিৎসকরা।

ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিস নিয়ে শুক্রবার বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে ভরতি করা হয় হাসপাতালে। তাঁর ব্লাড প্রেসারও দ্রুত কমে যায়। চিকিৎসকরা জানান, তাঁর ফুসফুসে সংক্রমন রয়েছে, এবং নিউমোনিয়া আছে। পুরোপুরি সুস্থ বলা না গেলেও অবস্থা অনেকটাই স্থিতিশীল। সোমবার দুপুরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে দেখতে হাসপাতালে যান বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গী ও মুকুল রায়। তবে আইসিইউয়ের বাইরে থেকেই বুদ্ধদেববাবুকে দেখে ফিরে যান তাঁরা। ছিলেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিমও।

First published: 03:52:42 PM Sep 10, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर