কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা নেগেটিভ, তবু সংকটেই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, হাসপাতালে উদ্বিগ্ন মমতা

করোনা নেগেটিভ, তবু সংকটেই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, হাসপাতালে উদ্বিগ্ন মমতা
ফাইল ছবি

করোনা নেগেটিভ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তবে তাঁর শারীরিক অবস্থা সংকটজনক। ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে বাইপ্যাপ ভেন্টিলেশনে রয়েছেন।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা নেগেটিভ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তবে তাঁর শারীরিক অবস্থা সংকটজনক। ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে বাইপ্যাপ ভেন্টিলেশনে রয়েছেন তিনি। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, বুদ্ধবাবুর সিটি স্ক্যান রিপোর্টে হালকা নিউমোনিয়া পাওয়া গিয়েছে। আচ্ছন্ন অবস্থায় রয়েছেন তিনি। এ দিকে, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  বনগাঁর রাজনৈতিক সভা থেকে ফিরে উডল্যান্ডে ছুটে যান তিনি। জানা গিয়েছে, সেখানে গিয়ে বুদ্ধবাবুর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নেওয়ার পাশাপাশি চিকিৎসকদের সঙ্গেও কথা বলেন।

এ দিকে ইতিমধ্যেই হাসপাতালে পৌঁছে গিয়েছেন সিপিআইএম নেতা সূর্যকান্ত মিশ্র, বিমান বসু, রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, এখনই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা সম্বন্ধে কোনও কিছু বলা সম্ভব নয়। আপাতত তাঁকে আইসিউতে রাখা হয়েছে। হাসপাতালে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী  মীরা ভট্টাচার্য এবং কন্যা সুচেতনা। এ দিন মুখ্যমন্ত্রী হাসপাতালে পৌঁছনোর পরে বাম নেতারা তাঁর সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সুচেতনার কাছে গিয়ে তাঁকে সাহস জোগান। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর আরোগ্য কামনা করেন।

গত কয়েকদিন ধরেই তাঁর শারীরিক অবস্থা ভাল নেই। মঙ্গলবার থেকেই তাঁর শ্বাসকষ্ট ক্রমেই বাড়ছিল। দীর্ঘদিন ধরেই তাঁর সিওপিডির সমস্যা ছিল। নতুন করে শ্বাসকষ্ট বাড়ায় কোনও রকম ঝুঁকি না নিয়ে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ব্যক্তিগত চিকিৎসকের পরামর্শে তাঁকে বুধবার দুপুরে আলিপুরের উডল্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। দেখা যায় তাঁর অক্সিজেন স্যাচুরেশন দাঁড়িয়েছে ৯৫।

প্রসঙ্গত, শেষ কয়েক বছরে নিজেকে কিছুটা অন্তরালেই নিয়ে গিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। সম্প্রতি তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির খবর নিতে সস্ত্রীক তাঁর বাড়িতে পৌঁছে যান রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। নিয়মিত তাঁর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিনও তার অন্যথা হল না। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর অসুস্থতার খবর পেতেই তিনি হাসপাতালে পৌঁছলেন তাঁকে দেখতে। কথা বললেন স্ত্রী এবং মেয়ের সঙ্গে।

Published by: Shubhagata Dey
First published: December 9, 2020, 8:22 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर