• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বৌভাতে নিমন্ত্রণ করে ডেকে এনে কনেপক্ষকে দরজা বন্ধ করে বেধরক মারধর করল পাত্রপক্ষ

বৌভাতে নিমন্ত্রণ করে ডেকে এনে কনেপক্ষকে দরজা বন্ধ করে বেধরক মারধর করল পাত্রপক্ষ

প্রতীকী ছবি {

প্রতীকী ছবি {

  • Share this:

    #নরেন্দ্রপুর: বৌভাতে নিমন্ত্রণ করে মেয়ের বাবা-সহ বাড়ির লোকজনকে বেধরক মারধর করা হয়। তাঁদের অভিযোগ গত ১১ তারিখ তাদের মেয়েকে বিয়ে দেয় বেহালা ঠাকুর পুকুর এলাকার বাসিন্দা অর্থাৎ মেয়েকে বাবা রঘুনাথ শাও, তিনি তার মেয়েকে নরেন্দ্রপুর এলাকার অন্তর্গত রানিয়া ৩০ ফুট এলাকায়।

    মেয়ের বাবা রঘুনাথ শাও তিনি জানান, গত ১২ তারিখ রানিয়া ৩০ ফুট এলাকায়  রীতি মেনে বৌভাতে নিমন্ত্রিত হয়ে গিয়েছিলেন মেয়ের বাড়ির লোকজন, ঠাকুরপুকুর এলাকা হয়ে রনিয়ায় পৌঁছান তাঁরা, সেখানে পৌছানোর পর ছেলের বাড়ির তরফ থেকে ছেলের বাবা ও মামা তাঁদেরকে ঘরে ঢুকিয়ে দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয় ৷ এরপর মেয়ের বাবা-সহ বাড়ির লোকজনকে বেধরক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ করা হয় মেয়ের তরফে।

    কারণ ছেলের বাড়ির তরফে মেয়ের বাবার কাছে ৫ লক্ষ টাকার পণ দাবি করেন ছেলের বাবা। তাঁরা বলেন আমরা এত টাকা কোথায় পাব, আপনারা যা চেয়েছেন আমার সাধ্যমতো দিয়েছিলাম, এরপর এতগুলো টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় ছেলের বাবা চড়াও হয় তাঁদের উপর। তাঁরা বারে বারে জানতে চান, কেন আপনারা এভাবে আরও পনের দাবি করছেন ?

    এ কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে মেয়ের মামাকে পাশে রাখা ২০ লিটার জলের বোতল ছুড়ে মারে, সেই বোতল তাঁর মাথায় এসে লাগার সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি, তখন মেয়ের বাবা প্রতিবাদ করতে গেলে, মেয়ের বাবাকেও বেধরক মারধর করা হয়। এমনকী বাদ যায়নি মেয়ের বাড়ির মহিলারাও তাঁদেরকেও বেধরক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

    এরপর মেয়ের বাবা-সহ বাড়ির লোকজন নরেন্দ্রপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে এখনও পর্যন্ত কাওকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

    First published: