Home /News /kolkata /
ভালো জীবনসঙ্গিনীর আশায় মাকে বলি দিল ছেলে

ভালো জীবনসঙ্গিনীর আশায় মাকে বলি দিল ছেলে

মায়ের মাথা কেটে কালী মন্দিরে দান ছেলের।

  • Share this:

    #পুরুলিয়া: মায়ের মাথা কেটে কালী মন্দিরে দান ছেলের। পুরুলিয়ার বরাবাজারের বামু গ্রামের ঘটনা। উপার্জনহীন ছেলেকে বিয়ে করতে বাধা দেন মা। সেই আক্রোশ থেকেই মাকে খুন নাকি সিদ্ধিলাভের আশায় মাকে বলি? তদন্তে নেমে ধন্দে পুলিশ।

    মাকে গলা কেটে খুন ছেলের। তারপর কাটা মাথা বাড়িরই মন্দিরে কালীমূর্তির পায়ে দান। পুরুলিয়ার বরাবাজারের বামুগ্রামের ঘটনায় গ্রেফতার অভিযুক্ত ছেলে নারায়ণ মাহাত।

    শুক্রবার বাড়িতে একা ছিলেন ৫৫ বছরের ফুলি মাহাত। বিকেলে আচমকা তাঁর ওপর চড়াও হয় ছোট ছেলে নারায়ণ মাহাত। বাড়ির কালীমন্দিরে নিয়ে গিয়ে তরোয়াল দিয়ে মায়ের গলা কেটে খুন করে সে। রাতেই নারায়ণকে গ্রেফতার করে পুরুলিয়া থানার পুলিশ।

    জেরার মুখে সে খুনের কথা স্বীকার করে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। দীর্ঘদিন ধরে মায়ের কাছে বিয়ের জন্য বায়না করে আসছিল নারায়ণ। কিন্তু উপার্জনহীন ছেলেকে বিয়ে দিতে রাজি হননি মা। সেই রাগ থেকেই খুন বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশের।

    গ্রামবাসীদের অনেকেরই মতে সিদ্ধিলাভের আশায় মন্দিরে মাকে বলি দেয় ছেলে। অভিযুক্তের ভাইয়ের অভিযোগ, আক্রোশ থেকে নয় ঠান্ডা মাথাতেই সেই এই কাজ করেছে ৷ নারায়ণের বিশ্বাস ছিল সিদ্ধিলাভের জন্য একজন ভালো জীবনসঙ্গিনী দরকার তাই বিয়ে করতে চাইছিল সে ৷ তা সম্ভব হচ্ছিল না বলে, মাকে বলি দিয়ে ভালো জীবনসঙ্গিনী লাভ করতে চেয়েছিল সে ৷ ফলে সেই তত্ত্বও উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ।

    ঠিক কী কারণে খুন তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। শনিবার পুরুলিয়া জেলা আদালতে তোলা হলে নারায়ণ মাহাতকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

    First published:

    Tags: Boy murdered mother, Murder, Sacrifice to god, Son Murdered Mother

    পরবর্তী খবর