Black fungus: উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস, কী করবেন কী করবেন না, রাজ্যের গাইডলাইন

রাজ্যে জারি ব্ল্যাকফাঙ্গাস গাইডলাইন।

Black Fungus: কী করব কী করব না, কী ভাবে চিনব রোগ, গাইডলাইন জারি করল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

  • Share this:

    #কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গ এক ব্ল্যাক ফাঙ্গাস (Black Fungus) আক্রান্তর মৃত্যু হল। সব মিলিয়ে আরও চারজন আক্রান্ত। পরিস্থিতির গুরুত্ব সম্পর্কে ওয়াকিবহাল প্রশাসন তাই রীতমতো আদাজল খেয়ে নেমে পড়েছে। কালই ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয়েছে।ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে এক‌টি সরকারি নির্দেশিকা বা গাইডলাইন তৈরি করেছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর। আপাত অপরিচিত এই রোগের প্রাথমিক লক্ষণ উপসর্গ, তার চিকিৎসা এবং প্রতিরোধ প্রতিবাদ নিয়ে অবিলম্বে চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দেওয়াও শুরু হচ্ছে। প্রত্যেক জেলার সি এম ও এইচ দের নির্দেশ পাঠানো হয়েছে,যদি এই রোগের কোনো খবর পাওয়া যায়,তবে জরুরি ভিত্তিতে তা স্বাস্থ্য ভবনে জানাতে হব।

    চিকিৎসকরা বলছেন ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকরমাইকোসিস ফাঙ্গাসটি মাটিতে থাকে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমলেই আক্রান্ত হতে পারেন অনেকে। অনেকের ক্ষেত্রে এতে ব্লাডপ্রেশার নেমে গিয়ে বিপদ বাড়ে। কারও আবার সমস্যা শুরু হয় চোখের। দেখে নেওয়া যাক কী বলছে স্বাস্থ্য দফতরের গাইডলাইন-

    কী ভাবে প্রতিরোধ

    ডায়াবিটিসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। মাস্ক পরতে হবে নিয়ম করে। বিশেষত ধুলো রয়েছে এমন জায়গায় যাওয়ার সময়ে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। কোথাও বেরোলে, বাগানের কাজ করলে হাতে গ্লাভস পরা বাধ্যতামূলক। চারপাশ পরিচ্ছন্ন রাখতেই হবে। খোলা জায়গায় ফল, রুটি অর্থাৎ ছত্রাক জমতে পারে এমন কিছু রাখা যাবে না।

    কী ভাবে উপসর্গ চিনব

    সাইনাসের ব্যথা বাড়বে এই সমস্যায়। সর্দির সঙ্গে রক্তপাত হতে পারে। মুখমণ্ডলের বিভিন্ন অংশে ব্যথা, ও কালো ছোপ দেখা যেতে পারে। দাঁতে ব্য়থা হবে। জ্বর আসতে পারে। রক্ত জমাট বাধার সমস্যাতেও ভুগছেন অনেকে। বুকে ব্যথা, শ্বাসকষ্টের সমস্যা হতে পারে। রক্তবমি, মানসিক অস্থিরতা ও চোখ ফোলার সমস্য়াও হতে পারে।

    কী করণীয়

    শর্করার মাত্রা অবশ্যই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে নির্দেশ, বুঝে ব্য়বহার করতে হবে স্টেরয়েড ও অ্যান্টিবায়োটিক। চিকিৎসা শুরু করতে দেরি করা যাবে না।

    Published by:Arka Deb
    First published: