কলকাতা

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

আলু, গাজর, ঢেঁড়স, বেগুন হাতে বিজেপির বিক্ষোভ মানিকতলা মোড়ে

আলু, গাজর, ঢেঁড়স, বেগুন হাতে বিজেপির বিক্ষোভ মানিকতলা মোড়ে

হাতে গেরুয়া ঝান্ডা সঙ্গে এক এক ধরণের আনাজ।তাই নিয়ে দুপুর আড়াইটে নাগাদ হুড়মুড়িয়ে মানিকতলা মোড়ে বিক্ষোভে সামিল মেরেকেটে জনা পঞ্চাশেক কর্মী।

  • Share this:

কলকাতা: আলু, গাজর, ঢেঁড়স, বেগুন হাতে বিজেপির বিক্ষোভ মানিকতলা মোড়ে। আলু ৩৫ টাকা, গাজর ৬০টাকা, ঢেঁড়স ৭০টাকা, বেগুন ৬০টাকা, পটল ৭০টাকা বুধবারের কেজি প্রতি দর ছিল মানিকতলা বাজারে। মহার্ঘ আলু, সবজি-আনাজ নিয়েই অভিনব বিক্ষোভ বিজেপির।

হাতে গেরুয়া ঝান্ডা সঙ্গে এক এক ধরণের আনাজ।তাই নিয়ে দুপুর আড়াইটে নাগাদ হুড়মুড়িয়ে মানিকতলা মোড়ে বিক্ষোভে সামিল মেরেকেটে জনা পঞ্চাশেক কর্মী। তাদের মধ্যে মহিলা কর্মীও ছিলেন বেশ কয়েকজন। মুখে স্লোগান, আলুর দাম বাড়ল কেন?  মুখ্যমন্ত্রী জবাব দাও। যেই না বলা স্লোগান পিছন থেকে কেরোসিনে চোবানো কুশপুত্তলিকা হাজির। আগুন সংযোগ করতে যেতেই পুলিশের সঙ্গে বচসা,ধস্তাধস্তি। মানিকতলা মোড়ে শুয়ে পড়ে প্রতিবাদ। ১০-১৫ মিনিট কার্যত ধুন্ধুমার বেধে যাওয়ার উপক্রম। তবে আন্দোলনকারীদের তুলনায় পুলিশের উপস্থিতি ছিল অনেক বেশি। তাই আন্দোলনকারীদের হটিয়ে দিতে পুলিশকে বেগ পেতে হয়নি।

প্রত্যেককেই আটক করে লালবাজার সেন্ট্রাল লক-আপে নিয়ে যায় পুলিশ। বিজেপি যুব নেতা শ্যাম জয়সওয়াল বলেন, "সবজি দাম বৃদ্ধির পাশাপাশি বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর প্রতিবাদে আমাদের বিক্ষোভ। পুলিশ জোর করে আমাদের শান্তিপূর্ন আন্দোলন ভেঙে দিয়েছে।" বিজেপি উত্তর কলকাতার সভাপতি  শিবাজী সিংহরায় জানান, " মানিকতলায় বিক্ষোভ আমাদের যু্বমোর্চা ডাকে হয়। পার্টি সরাসরি এই কর্মসূচিতে ছিলোনা। তবে আমি এই ইস্যুকে সমর্থন করি। পুলিশ বাড়াবাড়ি করেছে।"

জিনিসপত্র দামবৃদ্ধি, রেল বেসরকারি করণ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনায় বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো । সেখানে শুধু আলু ও সবজির দামবৃদ্ধি নিয়ে আন্দোলন কেন প্রশ্ন তুলেছেন বাম ও তৃণমূল কংগ্রেস  নেতারা। তবে বিজেপি যুব নেতা কৌশিক ঘোষ, ঈশ্বর দাস'দের যুক্তি, " মহারাষ্ট্র থেকে আসা পেঁয়াজ কিনছি সর্বোচ্চ ৩০ টাকায় আর সেখানে বাংলার আলু কিনছি ৩৫টাকায়। রাজ্য সরকার সঠিক পদক্ষেপ করলে এমন কালোবাজারি হয়না। " এদিনের বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘিরে যানজট তৈরি  হয় এ পি সি রোড, মানিকতলা মেনরোড ও বিবেকানন্দ রোডে। তবে পুুলিশ ব্যবস্থাপনা যথেষ্ট থাকায় যানজট নিয়ন্ত্রণে সমস্যা হয়নি।

Published by: Dolon Chattopadhyay
First published: September 9, 2020, 10:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर