কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

দলে বড় দায়িত্ব, সঙ্গে বৈশাখীকেও গুরুত্ব! শোভনকে মাঠে নামাতে তৎপর বিজেপি

দলে বড় দায়িত্ব, সঙ্গে বৈশাখীকেও গুরুত্ব! শোভনকে মাঠে নামাতে তৎপর বিজেপি
বিজেপি-তে গুরুত্ব বাড়ল শোভন-বৈশাখীর৷
  • Share this:

#কলকাতা: শেষ পর্যন্ত কি বিজেপি-র সঙ্গে মান অভিমানের পালা শেষ করে সক্রিয় হতে চলেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ সেরকমই ইঙ্গিত দিয়ে শোভনকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দিল রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব৷ কলকাতার সাংগঠনিক জোনের পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে শোভনকে৷

শোভনের দাবি কার্যত মেনে নিয়ে বৈশাখীকেও ওই কমিটির সহ আহ্বায়ক করা হয়েছে৷ ফলে বিজেপি-র অস্বস্তি কাটিয়ে শোভন এবার সক্রিয় হন কি না, সেদিকেই নজর রাজনৈতিক মহলের৷

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একদা সবথেকে বিশ্বস্ত সৈনিকদের ভিড় বাড়ছে বিজেপি-তে৷ প্রায় দেড় বছর আগে শোভনকে দলে টেনে বড় চমক দিয়েছিল বিজেপি৷ কিন্তু তার পর থেকেই শোভনের সঙ্গে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্বের নানা ইস্যুতে ঠোকাঠুকি লেগেই ছিল৷ বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গেও শোভন- বৈশাখীর মতবিরোধ শুরু থেকেই অস্বস্তিতে আসে৷ বৈশাখীকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না, এমনও অভিযোগ ছিল শোভনের তরফে৷ বার বার চেষ্টা করেও শোভনকে সক্রিয় করতে ব্যর্থ হন বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতারা৷ এমন কি, গত নভেম্বর মাসে কলকাতায় অমিত শাহের সঙ্গে শোভন- বৈশাখীর বৈঠকের পরেও বিজেপি-র কোনও কর্মসূচিতেই দেখা যায়নি দু' জনকে৷ ডিসেম্বর মাসে জে পি নাড্ডা এবং অমিত শাহ পর পর রাজ্যে এলেও তাঁদের কোনও কর্মসূচিতে হাজির হননি শোভন৷ ছিলেন না মেদিনীপুরে শুভেন্দু অধিকারীর মেগা যোগদান অনুষ্ঠানেও৷

এর পরেও শোভনকে গুরুত্বপূর্ণ পদে আনা ইতিবাচক ইঙ্গিতই মনে করছেন রাজ্য বিজেপি-র নেতারা৷ তাঁদের ধারণা বৈশাখীকে গুরুত্ব দেওয়ায় এবার মাঠে নামবেন শোভনও৷ মুকুল, শুভেন্দুর মতো প্রাক্তন তৃণমূল নেতারা এখন নিয়মিত তৃণমূলকে আক্রমণ করে শাসক দলের অস্বস্তি বাড়াচ্ছেন৷ সেখানে শোভন নীরব থাকাটা বিজেপি-র কাছে অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল৷ শুভেন্দু, মুকুলদের সঙ্গে শোভনকেও মাঠে নামানো গেলে তৃণমূল কংগ্রেস এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কোণঠাসা করা আরও সহজ হবে বলেই মনে করছেন বিজেপি নেতারা৷

কলকাতার ১১টি, দমদমের ৭টি এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার ৩১টি বিধানসভা নিয়ে বিজেপি-র কলকাতা সাংগঠনিক জোন৷ প্রায় ৯ বছর কলকাতার মেয়র ছিলেন শোভন, তৃণমূলে থাকাকালীন দীর্ঘসময় দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার জেলা সভাপতি ছিলেন তিনি৷ ফলে কলকাতা জোনের দায়িত্ব দিলে শোভন দলেরই কাজে আসবেন বলে মনে করছেন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: December 28, 2020, 12:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर