খড়গপুর সদর এখনও 'প্রার্থীহীন', দিলীপের জন্য ইতিবাচক বার্তা বিজেপির?

খড়গপুর সদর এখনও 'প্রার্থীহীন', দিলীপের জন্য ইতিবাচক বার্তা বিজেপির?

যে আসনে ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জিতেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ

যে আসনে ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জিতেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ

  • Share this:

    #কলকাতা: অবশেষে প্রথম দু'দফা ভোটের প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করেছে বিজেপি। কিন্তু প্রথম দু'দফায় ৬০ আসনে ভোট থাকলেও ৫৭ আসনেই এখন প্রার্থীতালিকা ঘোষণা করেছে বিজেপি। বাকি রয়েছে তিনটি আসন। আর সেই আসনগুলির মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হল, খড়গপুর সদর। যে আসনে ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জিতেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ২০১৯-এ সাংসদ পদে ভোটে লড়ার সময় ছেড়ে দেন সেই আসন। কিন্তু এবারের নির্বাচনে আবার জল্পনা তুঙ্গে উঠেছে, খড়গপুর সদরে দিলীপকেই প্রার্থী করছে বিজেপি। আর সেইসঙ্গেই আরও এক জল্পনা ভাসছে, তবে কি বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী দিলীপই? সেই জল্পনা জিইয়ে রইল এদিনের প্রার্থীতালিকা প্রকাশের পরও।

    বাংলায় বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মুখ কে? বিজেপির শীর্ষ নেতাদের বারবার শুনতে হয়েছে এ প্রশ্ন। নিজেদের উপর থেকে 'বহিরাগত' তকমা দূর করতে বাংলার ভূমিপুত্র কাউকেই যে মুখ্যমন্ত্রী করা হবে, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন অমিত শাহরা। আর সেক্ষেত্রে শুভেন্দু অধিকারীর মতো তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যাওয়া নেতার নাম যেমন ভাসছে, তেমনই প্রবলভাবে জল্পনায় রয়েছে দিলীপ ঘোষের নামও। এমনকী সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বা নরেন্দ্র মোদীর ব্রিগেড সমাবেশে যোগ দিতে চলা মিঠুন চক্রবর্তীর নামও রয়েছে রাজনৈতিক মহলের আলোচনায়।

    তবে, এদিন প্রার্থীতালিকা ঘোষণার পরও দিলীপ ঘোষকে নিয়ে নিঃসন্দেহে ধোঁয়াশা বাড়ল। নিজের মুখ্যমন্ত্রী মুখ হওয়া প্রসঙ্গে বারবার প্রশ্নের মুখেও দিলীপ ঘোষ কখনই সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দেননি। এমনকী অনেক দিলীপ অনুগামীরাই 'দাদাকে মুখ্যমন্ত্রী চাই' বলে নানা সময়ও প্রচার চালিয়েছে। সম্প্রতি বিজেপি যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁ দিলীপকে নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন, 'শুভেন্দু দা'র নেতৃত্ব একদিন গোটা তৃণমূল দলটাই ভেঙে যাবে। আর দিলীপ ঘোষই হবেন বাংলার পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী। কারণ দিলীপ ঘোষ একজন প্রকৃত নেতা। তিনি কখনও সংসারধর্ম করেননি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, তিনিই একদিন রাজ্য চালাবেন। তাঁকে নিয়ে অনেক তৃণমূল নেতা বলেন, দিলীপ ঘোষ কী জানেন? কিন্তু তিনি যেদিন এই বাংলা চালাবেন, সেদিনই তাঁরা উত্তর পেয়ে যাবেন।' সৌমিত্রের সেই মন্তব্য়কেও উড়িয়ে দেননি দিলীপ নিজেও।

    যদিও বিজেপির একটা অংশের দাবি, খড়গপুর সদরে প্রার্থী করা হতে পারে সদ্য তৃণমূলত্যাগী খড়্গপুরের প্রাক্তন কাউন্সিলর দেবাশিস চৌধুরীকে। যদিও তা মানতে নারাজ দিলীপ ঘনিষ্ঠ নেতারা। অবশ্য গেরুয়া শিবিরের একটা অংশের মন্তব্য, নন্দীগ্রামের মতো আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখোমুখি লড়তে পাঠানো হয়েছে শুভেন্দু অধিকারীকে। তিনি জিতলে আর বিজেপি ক্ষমতায় এলে শুভেন্দু কি মুখ্যমন্ত্রী পদের জোরাজুরি করবেন না, আশঙ্কায় বিজেপির অনেক নেতাই।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    লেটেস্ট খবর