Abhishek Banerjee to Mukul Roy: নবীনের প্রবীণ-বরণ! 'সংঘাত' অতীত, মুকুল-অভিষেক যুগলবন্দিই তৃণমূলের 'ভবিষ্যৎ'

স্বাগত মুকুল

Abhishek Banerjee to Mukul Roy: আপাতত অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সঙ্গে যুগলবন্দি করেই তৃণমূলকে ভিনরাজ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার কাজে যোগ দেবেন মুকুল রায়।

  • Share this:

    কলকাতা: দীর্ঘ বৈঠকের পর মঞ্চে তখন উঠছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, মুকুল রায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, শুভ্রাংশু রায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়রা। অভিষেক আগে, মুকুল পিছনে। কিন্তু আনুষ্ঠানিক যোগদান মঞ্চের সামনে গিয়েই মুকুলকে স্টেজে ওঠার জন্য এগিয়ে দিলেন অভিষেক। শুধু তাই নয়, স্টেজে উঠে মুকুল-শুভ্রাংশুকে তৃণমূলের উত্তরীয় পরিয়ে দিলেন সেই অভিষেকই। আর এরপরই স্পষ্ট হয়ে গেল, সংঘাত অতীত। আপাতত অভিষেকের সঙ্গে যুগলবন্দি করেই তৃণমূলকে ভিনরাজ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার কাজে যোগ দেবেন মুকুল।

    প্রসঙ্গত, মুকুল রায়ের অসুস্থ স্ত্রীকে দেখতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ে হাসপাতাল যাত্রা, এরপর মুকুল পুত্র শুভ্রাংশুর অভিষেক-বন্দনা, সর্বোপরি মুকুল রায়-দিলীপ ঘোষ সংঘাত নতুন করে মাথাচাড়া দেওয়া, সব মিলিয়েই মুকুল রায়কে নিয়ে দিন কতক ধরে রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড় চলছিল। পথ যে তৈরি হচ্ছিল, তা স্পষ্ট হয়ে উঠছিল ক্রমশই। অবশেষে সেই পর্বে যবনিকা পতন হল। মমতার সামনে অভিষেকের হাত ধরেই তৃণমূলে ফিরলেন মুকুল রায়।

    মুকুলের যোগদান পর্বে এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, 'আমাদের ঘরের ছেলে ঘরে ফিরল। ওঁকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। ওল্ড ইজ গোল্ড। আরও অনেকে আসবে। তবে টাকার জন্য যারা বিজেপিতে গিয়েছিল, তারা কখনই নয়।' আর মুকুল বলছেন, 'আমার অত্যন্ত ভালো লাগছে বিজেপি থেকে বেরিয়ে এসে নতুন আঙিনায় যাদের সাথে দেখা হচ্ছে, তারা সবাই চেনা । ভেবে ভালো লাগছে বাংলা আবার নিজের জায়গায় ফিরবে। যিনি নেতৃত্ব দেবেন, তিনি আমাদের সকলের নেত্রী, ভারতবর্ষের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।' মুখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথাই শুধু বললেও, মুকুলের 'ঘরে' ফেরার নেপথ্যে যে অন্যতম কারিগর ছিলেন অভিষেক, তা এতদিনে স্পষ্ট। সেই অভিষেকই এদিন উত্তরীয় পরালেন মুকুলের গলায়।

    মুকুলের তৃণমূল যাত্রা নিয়ে গুঞ্জন ছড়াতেই বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব অবশ্য তাঁকে 'আটকাতে' চেষ্টার কসুর করেনি। নরেন্দ্র মোদি স্বয়ং ফোন করেছেন তাঁকে, এমনকী মুকুলকে আরও গুরুত্বপূর্ণ কোন পদ দেওয়া নিয়েও আলোচনা চলছিল বলে খবর। কিন্তু মুকুল মন ঠিক করেই ফেলেছিলেন। তারই প্রতিফলন দেখা গেল এদিন তৃণমূল ভবনে।

    রাজনৈতিক মহলের মতে, রাজ্যে ব্যাপক জয় পেয়ে তৃণমূল এখন বিজেপি বিরোধী দলগুলিকে নিয়ে দিল্লি দখলের স্বপ্ন দেখছে। আর ভিন রাজ্যে সংগঠন বিস্তারে মুকুল রায়ই যে ট্রাম্পকার্ড হতে পারে, তা তৃণমূলের অন্দরে সকলেরই জানা। তাই যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সংঘাতের কারণে মুকুল রায়ের তৃণমূল ত্যাগ বলে দাবি করে রাজনৈতিক মহলের একাংশ, সেই অভিষেকের সঙ্গেই যুগলবন্দি গড়লেন মুকুল।

    Published by:Suman Biswas
    First published: