প্রার্থী নিয়ে ক্ষোভ কমাতে তৎপর বিজেপি, তালিকায় কি বদল হবে?

হেস্টিংসে বিজেপি দফতরের বাইরে সমর্থকদের ভিড়৷

দলীয় প্রার্থীদের ঘিরে এই বিক্ষোভ নিয়ে রাজ্য নেতাদের ভূমিকায় ক্ষোভও প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই চলছে বিক্ষোভ৷ গতকাল সোমবার থেকেই হেস্টিংসে দলের নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে শুরু করেছিলেন বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি-র কর্মী- সমর্থকরা৷ যাঁদের মূল দাবি ছিল, নিজেদের বিধানসভা কেন্দ্রে প্রার্থী বদল করতে হবে৷ অবশেষে দলীয় কর্মীদের এই ক্ষোভ প্রশমনে উদ্যোগী হল বিজেপি৷

    সোমবারের পর মঙ্গলবারও ক্রমশ বিক্ষোভ বাড়তে থাকে৷ পরিস্থিতি এমন হয় যে বিজেপি কর্মী- সমর্থকদের সঙ্গে কয়েক দফায় পুলিশের সংঘর্ষ হয়৷ মুকুল রায় সহ দলীয় নেতাদের ঘিরে বিক্ষোভও হয়৷ টাকার বিনিময়ে প্রার্থী পদ বিক্রি হয়েছে এমন স্লোগানও ওঠে৷ হাওড়া, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার মতো জেলাগুলির বিভিন্ন আসনকে কেন্দ্র করেই বিক্ষোভ ছিল সবথেকে বেশি৷ জয়নগরের মতো বেশ কয়েকটি কেন্দ্রের বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে দলের হয়ে পরিশ্রম করা নেতাদের টিকিট না দিয়ে তৃণমূল থেকে আসা নেতাদের প্রার্থী করা হয়েছে৷

    দলীয় প্রার্থীদের ঘিরে এই বিক্ষোভ নিয়ে রাজ্য নেতাদের ভূমিকায় ক্ষোভও প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ৷ শেষ পর্যন্ত বিক্ষোভ সামাল দিতে এ দিন তৎপর হয় রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব৷ যে বিধানসভা কেন্দ্রগুলি থেকে আসা কর্মী- সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন, তাঁদের সঙ্গে আলোচনায় বসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ সেই মতো যে কেন্দ্রের প্রার্থীদের নিয়ে ক্ষোভ রয়েছে, সেখান থেকে আসা কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে থেকে পাঁচ জনের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে কথা বলেন রাজ্য বিজেপি-র সহ সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বিকল্প প্রার্থী হিসেবে যাঁদের চাওয়া হচ্ছে, তাঁদের নামও জমা নেওয়া হয়৷ ফলে কয়েকটি কেন্দ্রে প্রার্থী বদল হবে কি না, সেই প্রশ্নও উঠছে৷

    এ দিকে আজ রাতেই দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায় সহ রাজ্য বিজেপি-র বেশ কয়েকজন শীর্ষ নেতাকে দিল্লিতে তলব করা হয়েছে৷ সূত্রের খবর, তৃতীয় এবং চতুর্থ দফার প্রার্থী তালিকা নিয়ে সেখানে আলোচনা করা হতে পারে৷ পাশাপাশি প্রার্থী তালিকা নিয়ে বিক্ষোভের বিষয়টি নিয়ে রাজ্য নেতাদের ফের একবার প্রশ্নের মুখে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷

    বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অবশ্য বলেন, 'আমাদের দলে নতুন অনেকে এসেছেন৷ দল বড় হচ্ছে৷ অনেকেরই প্রার্থী হওয়ার আকাঙ্খা ছিল৷ তবে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে তা দু' একদিনের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে৷'

    Sourajyoti Banerjee

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: