নোবেলের আদলে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে পুরস্কার, প্রতিশ্রুতি বিজেপি-র ইশতেহারে

নোবেলের আদলে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে পুরস্কার, প্রতিশ্রুতি বিজেপি-র ইশতেহারে

বিজেপি-র ইশতেহারে বাংলার সাংস্কৃতিক উন্নয়নেও ঢালাও প্রতিশ্রুতি৷

নির্বাচনের আগে থেকেই বাঙালি মনীষীদের সম্মান জানিয়ে বাঙালি আবেগকে উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন বিজেপি নেতারা৷

  • Share this:

    #কলকাতা: বাংলায় ক্ষমতায় এলে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে নোবেল পুরস্কারের আদলে পুরস্কার চালু করবে বিজেপি৷ পাশাপাশি সত্যজিৎ রায়ের নামে চালু করা হবে অস্কারের আদলে সম্মান৷ এ দিন বিজেপি-র ইশতেহারে এমনইঅ দাবি করা হয়েছে৷ পাশাপাশি, বিজেপি-র ইশতেহারে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে, ক্ষমতায় এলে সমস্ত রাজ্যের রাজধানীতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে সাংস্কৃতিক উৎকর্ষ কেন্দ্র তৈরি করা হবে৷ বিদেশেও বাছাই করা কয়েকটি জায়গায় এই ধরনের কেন্দ্র তৈরির দাবি করেছে বিজেপি৷

    বিজেপি-র ইশতেহারে দেওয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গকে ভারতের সাংস্কৃতিক রাজধানী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে ১১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হবে৷

    নির্বাচনের আগে থেকেই বাঙালি মনীষীদের সম্মান জানিয়ে বাঙালি আবেগকে উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন বিজেপি নেতারা৷ খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বক্তব্যে ঘুরেফিরে এসেছে বাঙালি মনীষীদের নাম৷ তার মধ্যে সবথেকে বেশি চর্চা হয়েছে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নিয়ে৷ যা নিয়ে বিজেপি-কে বারবারই তীব্র কটাক্ষ করেছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস৷ ফলে কবিগুরুকে সম্মান জানিয়ে বিজেপি-র ইশতেহারে বড় কোনও প্রতিশ্রুতি থাকবে, তা প্রত্যাশিতই ছিল৷ বিজেপি-র ইশেতেহার অনুযায়ী, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে নোবেল সম্মানের আদলে 'টেগোর প্রাইজ' চালু করা হবে বিশ্বের নানা ক্ষেত্রে কৃতিদের সম্মান জানাতে৷

    তবে শুধু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বা সত্যজিৎ রায় নন, বিজেপি-র ইশেতহারে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু, উত্তম কুমার, চৈতন্য মহাপ্রভুদের সম্মান জানাতেও একাধিক ঘোষণা করা হয়েছে৷ নেতাজির জন্মদিনকে পরাক্রম দিবস হিসেবে জাঁকজমকের সঙ্গে পালন করা হবে৷ ইশতেহারে বলা হয়েছে, চৈতন্য মহাপ্রভুর নামে গড়ে তোলা হবে আধ্যাত্মিক প্রচার কেন্দ্র৷ মহানায়ক উত্তম কুমারের নামে সোনারপুরে ফিলম সিটি তৈরিরও প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: