ট্যুইটারে মমতাকে একযোগে আক্রমণ বিজেপির, শুভেন্দুর দাবি বিজেপি নেতাদের মুখে মুখে

ট্যুইটারে মমতাকে একযোগে আক্রমণ বিজেপির, শুভেন্দুর দাবি বিজেপি নেতাদের মুখে মুখে
মমতাকে সামনে রেখে বিজেপির ট্যুইট ঝড়।

ট্যুইটের বিষয় নন্দীগ্রাম এবং প্রার্থী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

  • Share this:

    #কলকাতা: কখনও তিনি বলেছেন ২৯৪টি আসনে তিনিই প্রার্থী। আজ বাংলা নিজের ঘরের মেয়েকেই চায়- স্লোগানের উন্মোচনও বুঝিয়ে দিয়েছে, এপিসেন্টার তিনিই হবেন, তাতে খুব একটা অবাক হওয়ার কিছু নেই। তবে চমকপ্রদ আক্রমণ পদ্ধতি স্লোগান লঞ্চের দিনে একযোগে ট্যুইটারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়-রা। ট্যুইটের বিষয় নন্দীগ্রাম এবং প্রার্থী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

    এ দিন দিলীপ-মুকুলরা ট্যুইটারে লেখেন,"মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম থেকে তাঁর প্রার্থীপদ ঘোষণা করেছেন। যদি তিনি নন্দীগ্রাম থেকে জেতার বিষয়ে এতই নিশ্চিত থাকেন, তবে ঘোষনা করুন শুধু এই কেন্দ্র থেকেই তিনি প্রার্থী হবেন, যাতে পরে তিনি নিজের কথা থেকে সরে না আসেন। নইলে তিনি কি করবেন জানা আছে...।" এ দিন এই নিয়ে প্রথম ট্যুইটটি করেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য। অমিত মালব্যের পরেই একের পর এক ট্যুইট করতে থাকেন দিলীপ ঘোষ, অর্জুন সিং, কৈলাস বিজয়বর্গীয়রা।

    প্রসঙ্গত এই দাবি নতুন নয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেকে নন্দীগ্রামের প্রার্থী ঘোষণা করেছিলেন, পাশাপাশি নিজের কেন্দ্রে লড়ার কথাও বলেন তিনি। তার পরেই শুভেন্দু অধিকারী রীতিমতো চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলেন, ৫০ হাজার ভোটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়কে হারাবেন তিনি। তাঁর দাবি ছিল,' মাননীয়াকে একটি কেন্দ্রেই দাঁড়াতে হবে'। এই প্রসঙ্গটিই কার্পেট বম্বিংয়ের ধাঁচে আবার ফিরিয়ে আনল বিজেপি। বিজেপির এ হেন ট্যুইট কৌশল নতুন নয়, নির্বাচনক সামনে রেখে অতীতেও বারবার ব্যবহৃত হয়েছে ট্যুইটার। তবে বাংলার নির্বাচনের সাপেক্ষে এটা নতুন। ভবিষ্যতে যে এভাবেই নানা বিষয় ট্যুইটারে ট্রেন্ডিং করে জাতীয় স্তরে নজর কাড়বে তার আভাসও এটা।

    রাজনৈতিক মহলের ব্যখ্যা, কোকেন সহ পামেলা গোস্বামীর ধরা পড়া, তৃণমূলের স্লোগান লঞ্চ ঘরে বাইরে বিজেপিকে একটু অস্বস্তিতে ফেলেছে। সেই কারণেই এই ধরনের আক্রমণের নকশা। তৃণমূলের পাল্টা প্রশ্ন, বিজেপি কেন বলছে না নন্দীগ্রামে তাদের প্রার্থী কে, তাহলে কি তারা ভয় পাচ্ছেন?

    Published by:Arka Deb
    First published: