• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • শিশু পাচার কাণ্ডে দলীয় নেতার মন্তব্যে চুড়ান্ত অস্বস্তিতে বিজেপি

শিশু পাচার কাণ্ডে দলীয় নেতার মন্তব্যে চুড়ান্ত অস্বস্তিতে বিজেপি

দলের মধ্যে থেকে আগেই অভিযোগ উঠেছিল। দিন দশেক আগে অভিযোগ করেছিলেন খোদ বিজেপি রাজ্য কমিটির সদস্য।

দলের মধ্যে থেকে আগেই অভিযোগ উঠেছিল। দিন দশেক আগে অভিযোগ করেছিলেন খোদ বিজেপি রাজ্য কমিটির সদস্য।

দলের মধ্যে থেকে আগেই অভিযোগ উঠেছিল। দিন দশেক আগে অভিযোগ করেছিলেন খোদ বিজেপি রাজ্য কমিটির সদস্য।

  • Share this:

    #কলকাতা: দলের মধ্যে থেকে আগেই অভিযোগ উঠেছিল। দিন দশেক আগে অভিযোগ করেছিলেন খোদ বিজেপি রাজ্য কমিটির সদস্য। রাজ্য সভাপতিকে জানিয়েছিলেন, দলের একাংশ শিশুপাচার, গরুপাচারের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত। জলপাইগুড়ির জুহি চৌধুরীর ঘটনায় ঘরে-বাইরে অভিযোগকে আরও জোরালো করেছে। যার জেরে অস্বস্তি বেড়েছে বিজেপির।

    একসময়ের দলীয় মুখপাত্র। বর্তমানে রাজ্য কমিটির সদস্য। কৃশানু মিত্রের ই-মেল প্রকাশ্যে আসায় অস্বস্তি বাড়ল রাজ্য বিজেপির।

    ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে সরাসরি ই-মেলে অভিযোগ করা হয়। সেখানেই জানানো হয়,

     বিজেপি নেতার অভিযোগ,

    আপনাকে ঘিরে রেখেছে শিশুপাচারকারী, গরুপাচারকারী, চাকরিপ্রার্থীদের সঙ্গে প্রতারণাকারী এবং সমাজবিরোধীরা। আমি আপনার সঙ্গে আর যুক্ত থাকতে চাই না।’

     অভিযোগকারী আর কেউ নন। দলের পরিচিত মুখ কৃশানু মিত্র। ই-মেলের দশ দিন পার হওয়ার আগেই, জলপাইগুড়িতে শিশুপাচারচক্রে নাম জড়াল জেলার বিজেপি নেত্রী জুহি চৌধুরীর। চাপের মুখে জেলা কমিটিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ‘জলপাইগুড়ি জেলা বিজেপিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ৷ রিপোর্ট পেলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে ৷ অভিযোগ প্রমাণ হলে দল থেকে বহিষ্কার৷’

    আরও পড়ুন,

    রাজ্য সভাপতিকে ইমেল করে বিজেপি নেতার পদত্যাগ

    এর আগে শিশুপাচার চক্রে নাম  জড়িয়েছিল সল্টলেকের বিজেপি নেতা, চিকিৎসক দিলীপ ঘোষের। টেটপ্রার্থীদের সঙ্গে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ জেলে যেতে হয় আরেক বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদারকে। এবার জুহি চৌধুরীর সৌজন্যে অস্বস্তি আরও বাড়ল গেরুয়া শিবিরের।

    First published: