Home /News /kolkata /
Kalyan Choubey becomes agent of Hindustan Awami Morcha: হিন্দুস্তান আওয়ামি মোর্চার এজেন্ট বিজেপি নেতা কল্যাণ! প্রতারণার অভিযোগ তৃণমূলের

Kalyan Choubey becomes agent of Hindustan Awami Morcha: হিন্দুস্তান আওয়ামি মোর্চার এজেন্ট বিজেপি নেতা কল্যাণ! প্রতারণার অভিযোগ তৃণমূলের

ভবানীপুরে বিজেপি নেতা কল্যাণ চৌবেকে ঘিরে উত্তেজনা৷

ভবানীপুরে বিজেপি নেতা কল্যাণ চৌবেকে ঘিরে উত্তেজনা৷

এ দিন কল্যাণ চৌবের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগকে কেন্দ্র করে ভবানীপুরে নির্বাচনের শেষ বেলায় বেশ কিছুটা উত্তেজনা ছড়ায় (Kalyan Choubey becomes agent of Hindustan Awami Morcha)৷

  • Share this:

    #কলকাতা: তিনি বিজেপি নেতা৷ বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থীও হয়েছিলেন৷ এ হেন কল্যাণ চৌবে ভবানীপুরে দিনভার হিন্দুস্তান আওয়ামি মোর্চার প্রার্থীর মুখ্য নির্বাচনী এজেন্ট হয়ে ঘুরে বেড়ালেন (Kalyan Choubey becomes agent of Hindustan Awami Morcha)৷ বিষয়টি জানাজানি হতেই কল্যাণ চৌবের দাবি, তৃণমূল রিগিং করছে কি না বুথে ঢুকে তা দেখতেই এই রাজনৈতিক কৌশল অবলম্বন করেছিলেন তিনি৷

    এ দিন কল্যাণ চৌবের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগকে কেন্দ্র করে ভবানীপুরে নির্বাচনের (Bhabanipore By Election) শেষ বেলায় বেশ কিছুটা উত্তেজনা ছড়ায়৷ কল্যাণ চৌবের সহযোগী রাজবীর সিং নামে এক বিজেপি (BJP) নেতাকে গ্রেফতারও করে পুলিশ৷

    আরও পড়ুন: ভবানীপুর নিয়ে নিশ্চিন্ত, ভোট দিয়ে বেরনোর সময় ছোট্ট মন্তব্যে বোঝালেন অভিষেক

    ঘটনার সূত্রপাত এ দিন বিকেল তিনটের কিছু পরে৷ সকাল থেকে ভবানীপুর বিধানসভা এলাকার বিভিন্ন বুথে বুথে ঘুরছিলেন কল্যাণ চৌবে৷ তাঁর অভিযোগ, বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ শরৎ বসু রোডের উপরে পদ্মপুকুর ক্রসিংেয় তৃণমূলের পতাকা নিয়ে তাঁর গাড়ির উপরে চড়াও হয় বেশ কয়েকজন যুবক৷ তাঁর গাড়ি ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ বিজেপি নেতার৷

    এই ঘটনার পর পরই কাছের একটি বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে পৌঁছন কল্যাণ চৌবে৷ সেখানে হাজির হন তাঁর সহযোগী রাজবীর সিং৷ কয়েক মিনিটের মধ্যেই সেখানে হাজির হন তৃণমূলের কো অর্ডিনেটর অসীম বসু এবং তাঁর সহযোগীরা৷ অভিযোগ, কল্যাণ চৌবের সহযোগী রাজবীর সিং সেই সময় তৃণমূল সমর্থকদের উদ্দেশে আপত্তিকর মন্তব্য করেন৷ এ দিন দুুপুরে এই রাজবীরই ভবানীপুরের খালসা হাইস্কুলে গন্ডগোল পাকান বলেও অভিযোগ তৃণমূলের৷ যার জেরে দু' পক্ষের মধ্যে তুমুল বচসা শুরু হয়৷ রাজবীর সিং-এর সঙ্গে তৃণমূল সমর্থকদের হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়৷ কোনওক্রমে পরিস্থিতি সামাল দেন পুলিশ কর্মীরা৷ পরে রাজবীর সিংকে গ্রেফতার করে ভবানীপুর থানার পুলিশ৷

    এই ঘটনা ঘটার সময়ই কল্যাণ চৌবের কাছে থাকা নির্বাচন কমিশনের পরিচয়পত্রে দেখা যায় তিনি হিন্দুস্তান আওয়ামি মোর্চার প্রার্থী শতদ্রু চট্টোপাধ্যায়ের মুখ্য নির্বাচনী এজেন্ট৷ এই নিয়ে প্রশ্ন করা হলে কল্যাণ চৌবের জবাব, 'আমি যা করছি নিয়মের মধ্যে থেকেই করছি৷ নির্বাচন কমিশন আমাকে পরিচয় পত্র দিয়েছে, তা নিয়ে আমি বিভিন্ন বুথে ঘুরতেই পারি৷ ভোটের সময় সব দলই এটা করে৷ এটা নতুন কিছু নয়৷'

    তৃণমূল শিবিরের অবশ্য দাবি, কল্যাণ চৌবের গাড়িতে হামলার ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই৷ পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের দাবি, রাস্তায় বাইক আরোহী যুবকদের সঙ্গে গাড়ির ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায়৷ এর সঙ্গে রাজনীতির কোনও যোগ নেই৷

    কল্যাণ চৌবের হিন্দুস্তান আওয়ামি মোর্চার এজেন্ট হওয়া নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ্য নির্বাচনী এজেন্ট বৈশ্বানর চট্টোপাধ্যায়ের কটাক্ষ, 'এতো এক ধরনের প্রতারণা৷ উনি নিজেকে বিজেপি নেতা বলে দাবি করেন,অথচ এজেন্ট হয়েছেন অন্য দলের৷ আয়নায় নিজের মুখটা দেখতে পারবেন তো?'

    Sukanta Mukherjee

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    পরবর্তী খবর