কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

উপলক্ষ ভাইফোঁটা, উপহার নিয়ে শোভন-বৈশাখীর ফ্ল্যাটে অরবিন্দ মেননরা

উপলক্ষ ভাইফোঁটা, উপহার নিয়ে শোভন-বৈশাখীর ফ্ল্যাটে অরবিন্দ মেননরা
শোভন-বৈশাখীর সঙ্গে অরবিন্দ মেনন ও অমিতাভ চক্রবর্তী৷

খোদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পরও শোভনকে রাজ্য বিজেপি-র কোনও কর্মসূচিতে দেখা যায়নি৷ গত ১৮ থেকে ২০ নভেম্বর কলকাতায় বিজেপি-র জোন ভিত্তিক সাংগঠনিক বৈঠকেও গরহাজির ছিলেন তিনি৷

  • Share this:

#কলকাতা: উপলক্ষ ভাইফোঁটা৷ ফের একবার শোভনকে সক্রিয় করার চেষ্টায় বিজেপি নেতৃত্ব৷ শুক্রবার রাতেই শোভন- বৈশাখীর ফ্ল্যাট যান বিজেপি-র কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন এবং রাজ্য সাধারণসম্পাদক (সংগঠন) অমিতাভ চক্রবর্তী৷ বৈশাখীর থেকে ফোঁটাও নেন তাঁরা৷ তুলে দেন উপহারও৷ কিন্তু এসবের আড়ালে মূল উদ্দেশ্য ছিল শোভনকে সক্রিয় করে মাঠে নামানো৷ কিন্তু শুক্রবারের পরও সেকাজে বিজেপি নেতারা কতটা সফল হলেন, তা নিয়ে ধোঁয়াশা থেকেই যাচ্ছে৷ তবে রবিবার রাজ্য বিজেপি-র উদ্যোগ ইজেডসিসি-তে যে বিজয়া সম্মেলনীর আয়োজন করা হয়েছে, সেখানে শোভন এবং বৈশাখীকে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন অরবিন্দ মেনন ও অমিতাভ চক্রবর্তী৷ শোভন-বৈশাখী আসবেন কি না, তা অবশ্য এখনও নিশ্চিত নয়৷

বিজেপি-তে যোগদানের পর থেকেই কার্যত অন্তরালে থেকে গিয়েছিলেন শোভন৷ বরং রাজ্য বিজেপি-র নেতাদের আচরণে তাঁদের উপেক্ষা করার অভিযোগে বার বার সরব হয়েছেন বৈশাখী৷ রাজ্যে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই শোভনকে সক্রিয় করতে উদ্যোগী হন অরবিন্দ মেনন৷ গত ছ' থেকে আট মাসে অন্তত বার ছয়েক শোভনের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে তাঁর৷ এর পর সুব্রত চট্টোপাধ্যায়ের জায়গায় অমিতাভ চক্রবর্তী গত মাসে রাজ্য বিজেপি-র সাংগঠনিক সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পর তিনিও শোভনের সঙ্গে বার বার কথা বলেন৷ মূলত তাঁর উদ্যোগেই রাজ্যে থাকাকালীন কলকাতার হোটেলে অমিত শাহের সঙ্গে শোভনের সাক্ষাৎ হয়৷

কিন্তু খোদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পরও শোভনকে রাজ্য বিজেপি-র কোনও কর্মসূচিতে দেখা যায়নি৷ গত ১৮ থেকে ২০ নভেম্বর কলকাতায় বিজেপি-র জোন ভিত্তিক সাংগঠনিক বৈঠকেও গরহাজির ছিলেন তিনি৷ এরই মধ্যে অরবিন্দ মেনন এবং অমিতাভ চক্রবর্তীকে ভাইফোঁটা নেওয়ার জন্য বৈশাখী আমন্ত্রণ জানান বলে সূত্রের খবর৷ কিন্তু সাংগঠনিক বৈঠক থাকায় এবং কলকাতায় কেন্দ্রীয় নেতারা থাকায় দুই নেতাই ব্যস্ত ছিলেন৷ শুক্রবার সাংগঠনিক বৈঠক শেষ হতেই রাত সাড়ে ন'টা নাগাদ শোভন-বৈশাখীর দক্ষিণ কলকাতার ফ্ল্যাটে পৌঁছন মেনন ও অমিতাভ চক্রবর্তী৷ বৈশাখীর হাতে উপহারও তুলে দেন তাঁরা৷ সেখানে হাজির ছিলেন শোভনও৷ সেই ছবি ফেসবুকে পোস্টও করেছেন বৈশাখী৷

গত বছরই ভাইফোঁটার দিন কালীঘাটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে হাজির হয়েছিলেন শোভন৷ বিজেপি-তে যোগদানের পরও মমতা শোভনকে ফোঁটা দেওয়ায় নতুন করে রাজনৈতিক জল্পনা শুরু হয়৷ যদিও তার পরে শোভনের অবস্থানে কোনও বদল হয়নি৷ সূত্রের খবর, এবছরও ভাইফোঁটায় 'দিদি'-র থেকে বার্তার অপেক্ষায় ছিলেন শোভন৷ কিন্তু তৃণমূল সূত্রের খবর, শোভন অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেছেন তা জানতে পেরেই তাঁর উপরে আরও ক্ষুব্ধ হন মমতা৷ ভাইফোঁটার দিন রাত পর্যন্ত মমতার বার্তার জন্য অপেক্ষা করেও হতাশ হন শোভন- বৈশাখী৷ এর পরেই অরবিন্দ মেননদের কাছে ফোঁটা নেওয়ার আমন্ত্রণ পাঠান বৈশাখী৷ যদিও  সূত্রের খবর, করোনা সতর্কতার কারণে এ বছর বাড়িতে ঘনিষ্ঠ কাউকেই ফোঁটা দিতে ডাকেননি মুখ্যমন্ত্রী৷ তবে প্রত্যেকের কাছেই পৌঁছে গিয়েছিল উপহার৷ যদিও সেই তালিকায় শোভনের নাম ছিল না৷

তবে মেননদের এই ভাইফোঁটা দৌত্যের পরও শোভন আদৌ সক্রিয় হন কি না, তা নিয়ে সংশয় থাকছেই৷ কারণ বিজেপি-তে যোগদানের পর থেকেই তাঁর সঙ্গে দলীয় নেতাদের এই মান- অভিমান পর্ব চলছে৷ অনেক বারই মনে হয়েছে, সব জট কাটিয়ে সক্রিয় হবেন শোভন৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত হতাশই হয়েছেন কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতারা৷ সম্ভবত সেই কারণে এবারেও মুখে কুলুপ এঁটেছেন সবপক্ষই৷ কারণ যতক্ষণ না শোভন সত্যিই সক্রিয় হচ্ছেন, বিজেপি নেতারাও কিছু বলতে পারছেন না৷ এ দিন সকালেই ফের একবার শোভনকে সক্রিয় হওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷

Arup Dutta

Published by: Debamoy Ghosh
First published: November 21, 2020, 12:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर