বারবার তিনবার, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অধ্যক্ষ হলেন বিমান বন্দ্যোপাধ্য়ায়

আজকের বিধানসভা। বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় স্পিকার মনোনীত হলেন।

এক কথায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফের অধ্যক্ষ হলেন বিমান বন্দোপাধ্যায়

  • Share this:

#কলকাতা: এই নিয়ে তৃতীয় বার। ধ্বনিভোটে বিধানসভার অধ্যক্ষ নির্বাচিত হলেন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। গত দুইদিন পালা করে শপথ নিয়েছেন নির্বাচিত বিধায়করা। শপথ গ্রহণ করিয়েছিলেন প্রোটেম স্পিকাররা। আজ ছিল স্পিকার মনোনয়নের পালা। পার্থ চট্টোপাধ্যায়, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, তাপস রায়  বীরবাহা হাঁসদা, শ্যামল মন্ডল, শশী পাঁজা, গুলশন মল্লিকরা বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম প্রস্তাব করেন।  এক কথায় বিনা প্রতিদ্বন্দিতায়  ফের স্পিকার হলেন বিমান বন্দোপাধ্যায়।

অধ্যক্ষ নির্বাচনে এদিন উপস্থিত ছিল না বিজেপির কেউ। বক্তব্য রাখতে উঠে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিধানসভা থেকে বলেন, "নির্বাচন কমিশনের সহায়তায় রিগিং করেছে বিজেপি। বাংলার মানুষ প্রমাণ করেছে বাংলার মানুষ মাথা নত করে না। মানুষের জয় ওরা মেনে নিতে পারছে না। সেই কারণেই এইরকম করেছে। ২৪ ঘণ্টা শপথ নেয়নি একটা সরকার, ওরা লোক পাঠিয়ে দিয়েছে। বাংলার সঙ্গে বিমাতৃসুলভ আচরণ করছে। করোনা প্রসঙ্গে মমতার যুক্তি, "যে টাকা বিজেপি নির্বাচনে খরচ করেছে সে টাকা অতিমারীতে কাজে লাগানো যেত। রাজ্যের অক্সিজেন অন্যত্র ছাড়াচ্ছে। চিঠি দিয়ে ভ্যাকসিন চেয়েছি। কাজ হয়নি। গত ছমাস কেন্দ্রের লোক বাংলায় এসে পড়েছিল।"

নবনির্বাচিত বিধায়কদের মমতার অনুরোধ, এলাকায় শান্তি রাখবেন। কেউ হিংসা ছড়াতে চাইলে মানুষকে বোঝাবেন।  আরও বিনম্র হতে হবে। জনগণের কাছে পৌঁছতে হবে। করোনা রোগীদের সাহায্য করুন।

পার্থ চট্টোপাধ্যায় এ দিন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় তৃতীয় বার অধ্যক্ষ মনোনীত হওয়ায় বলেন, "নবনিযুক্ত অধ্যক্ষকে স্বাগত। আজকের দিন আবেগপূর্ণ। বিমান বন্দোপাধ্যায় অধ্যক্ষ নির্বাচিত হওয়ায়। আমাদের সরকার ও বিমান দার হ্যাটট্রিক। তিনি যেভাবে সংবিধানের প্রতি আস্থা জানিয়ে বিধানসভায় বিধায়কদের বলার সুযোগ দিয়েছেন। গরিমা প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি তৃতীয় বার অধ্যক্ষ হওয়ায় আশা প্রকাশ করছি। সংবিধান ও কার্যাবলী মজবুত হবে। বিধায়করা মানুষের কথা বলার সুযোগ পাবে।"

Published by:Arka Deb
First published: