পৌষের শুরুতেই জাঁকিয়ে শীত, দার্জিলিং থেকে দিঘা, খুশি পর্যটকরা

পৌষের শুরুতেই জাঁকিয়ে শীত, দার্জিলিং থেকে দিঘা, খুশি পর্যটকরা

দার্জিলিং-সহ পার্বত্য এলাকায় তাপমাত্রা কিছুটা কমলোও সমতলে সামান্য বাড়ল তাপমাত্রা। এক নজরে দেখে নিন শনিবার কোন জেলায় কত তাপমাত্রা

  • Share this:

BISWAJIT SAHA

#কলকাতা: পৌষের শুরুতেই জাঁকিয়ে পড়েছে শীত। উত্তরবঙ্গ থেকে দক্ষিণবঙ্গ, শীতের ধুন্ধুমার ব‍্যাটিং শুরু শীতের। রানার এন্ডে সঙ্গ দিচ্ছে কুয়াশা। দার্জিলিং থেকে দিঘা, পর্যটকদের মধ‍্যে খুশির আমেজ। ঠাণ্ডায় জবুথবু রাজ‍্যবাসী।

দেরিতে হলেও ধুন্ধুমার ব‍্যাচিং শুরু শীতের। সমান তালে তাল মেলাচ্ছে কুয়াশা। উত্তর থেকে দক্ষিণ-- জবুথবু অবস্থা রাজ‍্যবাসীর।

কোচবিহার, ডুয়ার্স, জলপাইগুড়িতে সকাল থেকেই সূর্যের দেখা নেই। শীতের শুরুতে দার্জিলিঙে পর্যটকদের ভিড়। দার্জিলিং ম‍্যালে ঠাণ্ডা উপভোগ করলেন তারা। ঠাণ্ডার মধ‍্যেই কালিম্পঙে শপিং সারলেন পর্যটকরা।

কোচবিহারে আজ সর্ব সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দার্জিলিং- ৪.২, জলপাইগুড়ি- ১১.৮, শিলিগুড়ি- ১২ আর মালদহ- ১০.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পিছিয়ে নেই দক্ষিণবঙ্গও। বোলপুরের শ্রীনিকেতনে শীত থেকে বাঁচতে কেউ হাত সেঁকছেন আগুনে, কেউ বা গরম চায়ে দিলেন চুমুক। শ্রীনিকেতন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সনিবার আসানসোল সকাল ছিল কুয়াশায় ঢাকা, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাঁকুড়ায় ছিল ১০.১, বারাকপুরে ১০.৯, বর্ধমানে ৯.৮, পানাগড়ে ১১.১, কাঁথিতে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শীতকাল এলেই আলাদা সাজে দেখা দেয় জঙ্গলমহল। শীতের শুরুতে কুয়াশায় সাজল ঝাড়গ্রাম।

ডায়মন্ড হারবার নুন্যতম তাপমাত্রা ছিল ১২.৩, হলদিয়াতে ১২.৫, মেদিনীপুরে ১১.৭, কলকাতায় ১২.৭, সল্টলেকে ১২.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস

ঠাণ্ডা উপভোগ করতে দিঘার সমুদ্র সৈকতেও পর্যটকদের ভিড়। বড়দিনের ছুটিতে জাঁকিয়ে ঠাণ্ডা পেয়ে খুশি তারাও। দিঘায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

First published: 03:54:38 PM Dec 21, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर