• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BENGAL NEWS PETROL PUMP STRIKE OWNERS ASSOCIATION TO CLOSE DOWN TOMORROW 24 HOURS SANJ

Bengal News | Petrol Pump Strike : পেট্রোপণ্য আকাশছোঁয়া! রাজ্যজুড়ে হাজার হাজার পেট্রোল পাম্প বন্‌ধের ডাক...

পেট্রোল পাম্প ধর্মঘট

Bengal News | West Bengal Petrol Pump Strike : জনজীবনে ব্যাপক প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা।

  • Share this:

    #কলকাতা : আগামিকাল রাজ্যব্যাপী ধর্মঘটের (Petrol Pump Strike) ডাক। ডাক দিল পেট্রোলিয়াম ডিলারস সংগঠন (Petrol Pump Dealers Association)। তাদের দাবি, পরিমাণে কম দেওয়া হচ্ছে তেল। ইথানল মিশ্রিত তেল দেওয়া হচ্ছে। যথাযথ ভাবে জ্বালানির সরবরাহ নেই। এই সব দাবিকে সামনে রেখেই তারা ধর্মঘটে  ( Petrol Pump Strike )যাচ্ছে, জানিয়েছেন সংগঠনের যুগ্ম সচিব টুলটুল সেন। প্রায় ৩০০০ পেট্রোল পাম্প এর আওতায় আসছে। উত্তরবঙ্গের একাধিক পেট্রোল পাম্প (Petrol Pump Strike) এর আওতায় আসবে বলে জানিয়েছেন। তবে ধর্মঘটে যেতে নারাজ একাধিক পেট্রোল পাম্প।

    মঙ্গলবার সকাল ছটা থেকে বুধবার ভোর ছটা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে সংগঠনে থাকা কয়েক হাজার পেট্রল পাম্প। সংগঠনের আওতায় থাকা পেট্রল পাম্প মালিকদের দাবি, পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়লেও মালিকদের কমিশন বাড়েনি। পাশাপাশি বেশ কিছু দাবিও রয়েছে তাদের। সবমিলিয়ে মঙ্গলবার  থেকে নো পারচেজ, নো সেলের সিদ্ধান্ত নিল সংগঠন।

    প্রসঙ্গত, পেট্রোলের সঙ্গে ক্রমেই ইথানল ব্যবহারের পরিমাণ বাড়ছে। একটি তেলের ট্যাঙ্কারে চার হাজার লিটার পেট্রোলের সঙ্গে তেল কোম্পানি গুলি বর্তমানে প্রায় ১০ শতাংশ ইথানল (ethanol) মেশাচ্ছে। অর্থাৎ ৪ হাজার লিটার পেট্রোলের সঙ্গে মিশ্রিত হচ্ছে ৪০০ লিটার ইথানল। আগামী দিনে কেন্দ্রের নির্দেশ মোতাবেক আরও বেশি পরিমাণে পেট্রোলের সঙ্গে ইথানল মেশানোর পরিকল্পনা রয়েছে। কিন্তু বর্তমানে এতেই হিতে বিপরীত হয়েছে বলে দাবি পেট্রোল পাম্প মালিকদের।

    এই মরশুমে কলকাতায় বৃষ্টি হয়েছে প্রচুর। এখনও হচ্ছে। অধিক পরিমাণে বৃষ্টির জেরে শহর ও শহরতলির পাম্পগুলিতে তেলের যে সমস্ত ফুয়েল রিজার্ভার রয়েছে সেখানেও জল ঢুকে বিপত্তি দেখা দিয়েছে। তবে শহর কলকাতা বা শহরতলিই শুধু নয়। সূত্রের খবর, রাজ্য জুড়ে ইন্ডিয়ান অয়েল, হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম, ভারত পেট্রোলিয়ামের নিজস্ব পেট্রোল পাম্পগুলির রিজার্ভারে জল ঢুকে বিপত্তি দেখা দিয়েছে অজস্র পেট্রোল পাম্পে। রিজার্ভারে জল ঢুকে পড়ায় সেই পেট্রোল রিজার্ভার থেকে জল মুক্ত করার কারণে মাঝেমধ্যেই গ্রাহকরা পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

    পাশাপাশি পেট্রল পাম্প মালিকদের দাবি, পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়লেও মালিকদের কমিশন বাড়েনি। পাশাপাশি রয়েছে বেশকিছু দাবিও রয়েছে তাদের। সবমিলিয়ে মহ্গলবার থেকে নো পারচেজ, নো সেলের সিদ্ধান্ত নিল সংগঠন। সংগঠনের দাবি, কমিশন বাড়ানোর দাবি বহুবার কথা হয়েছে ইন্ডিয়ান ওয়েল কর্পোরেশনের সঙ্গে। কিন্তু কোনও ফল হয়নি। এখন ধর্মঘটের পরও যদি কমিশন বাড়ানো না হয় তাহলে এনিয়ে আরও কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: