• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BENGAL BJP LEADERS WILL ORGANISE ASHIRBAD YATRA TO PROTEST POST POLL VIOLENCE IN WEST BENGAL SB

Bengal Bjp: নাম 'আশীর্বাদ যাত্রা', নতুন কর্মসূচি ঘিরে ফের কোমর বাঁধছে BJP! সম্মুখসমরে তৃণমূলও

নতুন কর্মসূচিতে কোমর বাধছে বিজেপি

Bengal Bjp: আশীর্বাদ যাত্রায় ভোট পরবর্তী হিংসায় দলের নিহত কর্মীদের বাড়িতে যাবেন চার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুভাষ সরকার, জন বার্লা, শান্তনু ঠাকুর ও নিশীথ প্রামাণিক।

  • Share this:

    #কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi) ব্যস্ত থাকায় বাংলার বিজেপি সাংসদদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়ে ওঠেনি। বদলে সংসদ ভবনে মঙ্গলবার মোদির প্রতিনিধি হিসেবে তাঁদের সঙ্গে দেখা করেছেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান এবং কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডবিয়া। এরপরই সাংসদদের নিয়ে বৈঠকে বসেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। সেখানে ছিলেন দিলীপ ঘোষ, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অমিত মালব্যের মতো নেতারা। আর সেই বৈঠকেই সিদ্ধান্ত হয়, ভোট পরবর্তী বাংলায় হিংসা নিয়ে এবার আরও জোরকদমে আসরে নামবে বঙ্গ বিজেপি। আর সেই সূত্রেই ভোট পরবর্তী হিংসায় দলের নিহত কর্মীদের বাড়িতে যাবেন চার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুভাষ সরকার, জন বার্লা, শান্তনু ঠাকুর ও নিশীথ প্রামাণিক। তাঁদের সঙ্গে থাকবেন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের সাংসদ, বিধায়করা। নিহত কর্মীদের এই বাড়ি যাওয়াকে বিজেপি নাম দিয়েছে 'আশীর্বাদ যাত্রা'।

    প্রসঙ্গত, ভুয়ো ভ্যাকসিন, ভ্যাকসিন দুর্নীতি এবং নির্বাচন-পরবর্তী অশান্তি নিয়ে শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে নালিশ জানিয়েছেন বঙ্গ বিজেপির সাংসদরা। আসলে বিরোধীরা যখন ২০২৪কে সামনে রেখে কোমর বাঁধছে তখন চুপ করে বসে নেই শাসক দল বিজেপিও। মঙ্গলবারই দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয় সংসদীয় কমিটির বৈঠক। সেখানেই বিজেপি সাংসদদের বিশেষ বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সূত্রের খবর বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা সংসদে সব প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য তৈরি থাকুন। দীর্ঘশ্বাসের মত ভুয়ো ইস্যু নিয়ে লড়ছে বিরোধীরা। আসল উদ্দেশ্য সংসদ অধিবেশন বসতে না দেওয়া।'

    এদিকে, মঙ্গলবারই বাংলার সাংসদদের দিল্লিতে আরএসএস কার্যালয়ে জরুরি তলব করা হয়েছিল৷ সূত্রের খবর, বাংলার সাংসদদের ক্লাস নেওয়ার উদ্দেশ্যেই তাঁদের আরএসএস দফতরে তলব করা হয়েছিল৷ বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ থেকে শুরু করে দিল্লিতে উপস্থিত বাংলার সব বিজেপি সাংসদকেই সেখানে হাজিরা দিতে হয়েছিল। কিন্তু হঠাৎ কেন আরএসএস-এর ক্লাসে ডাকা হল বাংলার বিজেপি সাংসদদের? আরএসএস সূত্রে খবর, বাংলার একের পর এক সাংসদ যেভাবে বারবার প্রকাশ্যে বিতর্কে জড়াচ্ছেন, তা আরএসএস-এর তৈরি করে দেওয়া অনুশাসনের বিরোধী৷ এই ধরনের বিতর্কের ফলে রাজ্যে বিজেপি তথা আরএসএস-এর ভাবমূর্তিও ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। তাই দলের সাংসদ হিসেবে কী কী অনুশাসন মেনে চলতে হবে, তা রাজ্যের বিজেপি সাংসদদের মনে করিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

    Published by:Suman Biswas
    First published: